Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শনিবার, ২০ জুলাই, ২০১৯ , ৫ শ্রাবণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.3/5 (41 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১০-০৫-২০১১

সব ম্যাচ জেতার লক্ষ্য নিয়ে ঢাকায়

সব ম্যাচ জেতার লক্ষ্য নিয়ে ঢাকায়
পুরো দল এখনো আসেনি। তবে ভারতে অনুষ্ঠানরত চ্যাম্পিয়নস লিগ টোয়েন্টি টোয়েন্টিতে ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগোর হয়ে খেলা ব্যস্ত পাঁচজনকে ছাড়াই গতকাল রাতে ঢাকা বিমানবন্দরে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল নেমেছে ১৯ ক্রিকেটার নিয়ে। বহর ইংল্যান্ড দলেরও বড় হয়। তবে শুধু খেলোয়াড় সংখ্যায় কাল নতুন রেকর্ড গড়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। আর কোনো দল এত বেশিসংখ্যক ক্রিকেটার নিয়ে বাংলাদেশ সফরে আসেনি। সব মিলিয়ে ২৪ ক্রিকেটার নিয়ে কোনো দল দ্বিপক্ষীয় সফর করেছে, এমন ঘটনার কথা শোনা যায়নি।
বাংলাদেশকে প্রবল প্রতিপক্ষ ভেবে দেশের সব ক্রিকেটার নিয়ে এসেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ, ব্যাপারটা তেমন নয়। দ্বিপক্ষীয় সিরিজের নিয়মিত আয়োজন টেস্ট এবং ওয়ানডের সঙ্গে একটি টোয়েন্টি টোয়েন্টি ম্যাচও রয়েছে। ভিন্ন ভিন্ন ধরনের ক্রিকেট আছে বলেই ক্যারিবীয় দলে ক্রিকেটারের সংখ্যা বেশি। দূরত্ব কম হলে যাওয়া-আসার মধ্য দিয়ে দলের কলেবর স্বাভাবিক রাখা যেত। কিন্তু বিমান পথেই যে বাংলাদেশ এবং ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জের দূরত্ব প্রায় দুই দিনের! তাই একসঙ্গেই সবাইকে নিয়ে ঢাকায় ড্যারেন সামির ওয়েস্ট ইন্ডিজ।
তবে দুটি টেস্ট, তিনটি ওয়ানডে এবং একটি টোয়েন্টি টোয়েন্টি ম্যাচ খেলতে প্রায় এক মাসের এ সফরে সোজা দেশ থেকে আসেনি ওয়েস্ট ইন্ডিজ। বাংলাদেশের কন্ডিশনের সঙ্গে অভ্যস্ত হতে শারজায় ক্যাম্প করে ঢাকায় এসেছেন ড্যারেন সামিরা। আগামীকাল ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের সঙ্গে যোগ দেবেন চ্যাম্পিয়নস লিগে ব্যস্ত ত্রিনিদাদের পাঁচ ক্রিকেটার। আজ বিসিবি একাডেমী মাঠে অনুশীলনে ঢাকার আবহাওয়ার সঙ্গে আরো ভালো পরিচয় হবে ক্যারিবীয়দের। ১১ অক্টোবর মিরপুরের শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে সফরের একমাত্র টোয়েন্টি টোয়েন্টি ম্যাচের আগে প্রস্তুতির সর্বোচ্চ সুযোগও পাচ্ছেন ড্যারেন সামিরা। ওই ম্যাচের আগে ফতুল্লা স্টেডিয়ামে দুটি প্রস্তুতিমূলক ওয়ানডে ম্যাচ খেলবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। প্রথমে টোয়েন্টি টোয়েন্টি এবং ওয়ানডের পর দুই দল মুখোমুখি হবে টেস্ট সিরিজে। উল্লেখ্য, টোয়েন্টি টোয়েন্টি এবং সব ওয়ানডে-ই দিবা-রাত্রির।
ক্রিকেট-বিশ্বে এখন বাংলাদেশের মূল পরিচয় তার স্পিন শক্তি। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যানেজার রিচি রিচার্ডসন ঢাকায় নেমেই জানালেন বাংলাদেশের স্পিন নিয়ে তাঁদের যথেষ্ট সমীহ আছে। তাহলেও সফরে সব ম্যাচ জেতার স্বপ্ন তাঁর, 'আমরা জানি বাংলাদেশের মূল শক্তি তাদের স্পিন বোলিং। নিজের মাঠে সেটা আরো ধারালো হবে স্বাভাবিক। তবু আমরা সব ম্যাচ জেতার লক্ষ্য নিয়েই এখানে এসেছি।'

ফুটবল

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে