Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ১৭ জানুয়ারি, ২০২০ , ৪ মাঘ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.3/5 (26 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০২-২০-২০১২

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এমপি নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন নাহিম

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এমপি নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন নাহিম
শরীয়তপুর, ২০ ফেব্রুয়ারী- শরীয়তপুর-৩ আসনের উপনির্বাচনে প্রয়াত আওয়ামী লীগ নেতা আবদুর রাজ্জাকের ছেলে নাহিম রাজ্জাকের একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী টি আই এম মহিতুল গনি (মিন্টু সরকার)-এর মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে। গতকাল বাছাইয়ের দিন নাগরিক কমিটির প্রার্থী মহিতুল গনির মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা ফরহাদ আহম্মদ খান। দাখিল হওয়া দু’টি মনোনয়নপত্রের মধ্যে একটি বাতিল হয়ে যাওয়ায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার সুযোগ এসেছে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী নাহিম রাজ্জাকের। মহিতুলের মনোনয়নপত্র বাতিলের কারণ ব্যাখ্যা করে রিটার্নিং কর্মকর্তা ফরহাদ আহম্মদ খান বলেন, স্বতন্ত্র প্রার্থীকে মনোনয়নপত্রের সঙ্গে নির্বাচনী এলাকার এক ভাগ ভোটারের স্বাক্ষর সংবলিত তালিকা জমা দিতে হয়। তবে মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষিত প্রার্থীর দাখিল করা তালিকায় অসঙ্গতি ও ত্রুটি ধরা পড়েছে। রিটার্নিং কর্মকর্তা জানান, মনোনয়নপত্র বাতিলের বিরুদ্ধে মহিতুল তিন দিনের মধ্যে আপিল করতে পারবেন। আপিল করলে তা আগামী ২৫শে ফেব্রুয়ারির মধ্যে নিষ্পত্তি করা হবে। আপিল গ্রহণ না হলে ২৬শে ফেব্রুয়ারি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নাহিম রাজ্জাক নির্বাচিত ঘোষিত হবেন। রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্র জানায়, জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে রোববার সকাল সাড়ে ১০টায় ২ প্রার্থী ও তাদের সমর্থকদের উপস্থিতিতে মনোনয়নপত্র বাছাই করা হয়। মনোনয়নপত্রে ত্রুটি থাকায় স্বতন্ত্র প্রার্থী মহিতুল গনির মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করা হয়। নির্বাচন কমিশনের আইন অনুযায়ী কোন ব্যক্তি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করতে হলে নির্বাচনী এলাকার ১ শতাংশ ভোটারের প্রার্থীর প্রতি সমর্থন থাকতে হবে। ওই ভোটারদের স্বাক্ষরযুক্ত কাগজ মনোনয়নপত্রের সঙ্গে জমা দিতে হবে। মহিতুল গনি মনোনয়নপত্রের সঙ্গে ১৯৬৮ ভোটারের স্বাক্ষরযুক্ত কাগজ মনোনয়নপত্রের সঙ্গে জমা দিয়েছেন। নির্বাচন কমিশন ওই স্বাক্ষরিত কাগজের সত্যতা যাচাই করতে ১০ জন ভোটারের সাক্ষাৎকার গ্রহণ করে। এর মধ্যে ৩ জন ভোটার জানিয়েছেন- তারা ওই কাগজে স্বাক্ষর করেননি এবং মহিতুল গনিকে তারা সমর্থন দেননি। এ কারণে রিটার্নিং কর্মকর্তা মহিতুল গনির মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেছেন। এ বিষয়ে মহিতুল গনি বলেন, আমি মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার আগে ভোটারদের সঙ্গে কথা বলেছি। তাদের সমর্থন নিয়ে কাগজে স্বাক্ষর নিয়েছি। এর মধ্যে কোন ভোটার সমর্থনের কথা অস্বীকার করেছে কিনা আমি তা জানি না। তিনি বলেন, রিটার্নিং কর্মকর্তার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে আপিল করবো। উল্লেখ্য, আওয়ামী লীগের প্রবীণ নেতা আবদুর রাজ্জাক দীর্ঘদিন ধরে শরিয়তপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য ছিলেন। তার মৃত্যুতে সমপ্রতি আসনটি শূন্য ঘোষিত হওয়ায় নির্বাচন কমিশন আসনটিতে উপনির্বাচন করছে।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে