Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই, ২০১৯ , ৮ শ্রাবণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (109 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০২-১৯-২০১২

দক্ষিণ কোরিয়ায় পিএইচডি অর্জনকারী ছাত্রদের সংবর্ধনা

মোহাম্মাদ আল-আমিন


দক্ষিণ কোরিয়ায় পিএইচডি অর্জনকারী ছাত্রদের সংবর্ধনা
দক্ষিণ কোরিয়ায় অবস্থিত বাংলাদেশি ছাত্রদের একমাত্র সংগঠন বাংলাদেশী স্টুডেন্টস এসোসিয়েশন ইন কোরিয়া  দুদিন ব্যাপী জাঁকজমক পূর্ণ প্রিয়জন ছেড়ে শত কাজের ভিড়ে, মিলি সবাই বন্ধুত্বে শিরোনামে এক ব্যতিক্রমধর্মী শীতকালীন গেট-টুগেদার আয়োজন করে। উইন্টার সেমিস্টার ২০১২ সালে যে সমস্ত বাংলাদেশী মেধাবী ছাত্র দঃ কোরিয়ার বিভিন্ন ইউনিভার্সিটি থেকে মাস্টার্স এবং পিএইচডি ডিগ্রী অর্জন করেছেন, তাদেরকে এই সংগঠনের পক্ষ থেকে সম্মাননা সনদ সহ সংবর্ধনা দেয়া হয়, সে সাথে নবাগত ছাত্রদেরকেও বরণ করে নেয়া হয়। অপরুপ সুন্দর প্রকৃতি ঘেরা দেজন শহরের সন্নিকটে এ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে দঃ কোরিয়ার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা বাংলাদেশি ছাত্রদের এক মিলন মেলায় পরিণত হয়। বিদেশের মাটিতে একসাথে এত ছাত্রের সম্মিলন সত্যিই এক আবেগঘন পরিবেশের সৃষ্টি করে। ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের তরুণ শিক্ষক ডঃ শরিফ আল রেজা যিনি দেগু ইউনিভার্সিটি থেকে এ বছর সবে মাত্র ডক্টরেট ডিগ্রী অর্জন করলেন, তার অনুভুতি ব্যক্ত করতে গিয়ে বলেন, এটি সত্যিই ভাল উদ্যোগ,আপনজনদের পক্ষ থেকে এ ধরনের সম্মাননা পেয়ে আমি সত্যিই অভিভুত, এ ধরনের প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকুক সে কামনাই করছি। বাংলাদেশের পক্ষ থেকে যদি এ সব তরুণ বিজ্ঞানীদেরকে একত্রিত করে সংবর্ধনা দেয়া হয় তাহলে তারা দেশের কাজে উৎসাহ পাবেন এবং অর্জিত জ্ঞান দিয়ে দেশকে এগিয়ে নিতে পারবেন বলে তিনি আশা করেন। আজু ইউনিভার্সিটি থেকে মাস্টার্স ডিগ্রী প্রাপ্ত দামাল ইসলাম বলেন দীর্ঘ প্রবাস জীবনে এত আনন্দময় মুহূর্ত আর আসেনি। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের তরুণ শিক্ষক এবং চুংনাম ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির পিএইচডি গবেষক জনাব আরিফ সিদ্দিক তার অভিব্যক্তিতে বলেন, চল্লিশ বছর আগেও দঃ কোরিয়ার অর্থনৈতিক অবস্থা এ রকম ছিলনা, শুধু সততা আর ঐকান্তিক প্রচেষ্টার ফলেই এই দেশ আজ বিশ্বের উদীয়মান দেশে পরিণত হয়েছে। আমরা যাতে দেশে ফিরে সেই অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে দেশকে কিছু দিতে পারি তেমন প্রত্যাশাই রাখেন সকলের নিকট।



BSAK এর ওয়ার্কিং কমিটির কো-অর্ডিনেটর পিএইচডি শিক্ষার্থী জালাল আহমেদ বলেন, কারো কোন অনুদান ছাড়াই ছাত্রদের নিজস্ব অর্থায়নে এত বড় অনুষ্ঠানই প্রমাণ আমাদের পক্ষে অনেক কিছুই সম্ভব; যদি মেধাবী তরুণরা এভাবে দেশের প্রতিটি কাজেই সহযোগিতার মনোভাব নিয়ে এগিয়ে আসে। যে মুহূর্তে জাতি হিসেবে আমাদের পরিচিতি মোটেও আশা ব্যাঞ্জক নয় ঠিক সেই মুহূর্তে এ রকম ভাল উদ্যোগ আমাদের মনে আশার সঞ্চার করে। দূর্নীতি আর অস্থির রাজনীতির কারণে বিদেশে এমনিতেই বাংলাদেশের ভাবমুর্তি হতাশা ব্যাঞ্জক তবুও আমরা চেষ্টা করছি নিজেরাই কিছু একটা দাঁড় করাতে। দঃ কোরিয়ায় অনেক বিদেশী ছাত্রদের ইউনিক প্লাটফর্ম রয়েছে যেমন ইন্দোনেশিয়া, ভারত, ভিয়েতনাম, ফিলিপাইন, চীন, শুধু বাংলাদেশী ছাত্রদের কোন প্লাটফর্ম ছিলনা। গত এক বছর যাবত আমরা চেষ্টা করছি যাতে বিদেশে এসেও একসাথে সবাই মিলে কাজ করতে পারি, অন্তঃত সুখ-দুঃখ ভাগাভাগি করতে পারি সে সূত্রেই শুরু হয় BSAK এর পথ চলা, দ্বিতীয় বারের মত এই সংবর্ধনার আয়োজন করতে পেরে আমরা আনন্দিত। উল্লেখ্য, একমাত্র বাংলাদেশী স্টুডেন্টস এসোসিয়েশান ইন কোরিয়া ছাড়া এদেশে বাংলাদেশী ছাত্রদের জন্য এ ধরনের সংবর্ধনা অনুষ্ঠান ইতোপূর্বে আয়োজিত হয়নি। বাংলাদেশ দূতাবাসে আনুষ্ঠানিক সাক্ষাতে BSAK সম্পর্কে মন্তব্য করতে গিয়ে দঃ কোরিয়াস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্টদূত জনাব শহিদুল ইসলাম বলেন, অনেক দিন যাবত এ ধরনের একটি প্লাটফর্ম আমারাও আশা করছিলাম, যেখানে সকল ছাত্রদের কে একসাথে পাওয়া যাবে, বিলম্বে হলেও BSAK সে কাজ করতে যাচ্ছে জেনে আমরা খুশি। কোরিয়া ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব আর্টস এর ছাত্রী তাবাসসুম সম্পা বলেন, বিদেশে এসে একসাথে এত বাংলাদেশি ছাত্র দেখে সত্যিই অবাক লাগছে! BSAK এর মাধ্যমে স্বল্প সময়ে অনেকের সঙ্গেই তিনি পরিচিত হয়েছেন বলে জানান।

অন্যান্য শিক্ষার্থী এ ধরনের আয়োজনে অভিভুত হয়ে ভবিষ্যতে আরো বড় পরিসরে এ রকম আনুষ্ঠানের ব্যাপারে তাদের আগ্রহের কথা জানান। উল্লেখ্য, BSAK ফেসবুক গ্রুপে বর্তমানে সদস্য সংখ্যা ৩০৩ জন, www.bsak.org নামে তাদের নিজস্ব হোমপেজ চালু করেছে যাতে দঃ কোরিয়াস্থ সব বাংলাদেশি স্টুডেন্টদের ডাটাবেজ এবং কোরিয়ার বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ঠিকানা সহ এই ওয়েবপেজে বিভিন্ন ধরনের স্কলারশীপের তথ্য থাকবে, দেশে থেকেই যাতে কোন আগ্রহী ছাত্র জানতে পারে কোরিয়ার উচ্চ শিক্ষার সুযোগ সুবিধা সম্পর্কে। প্রতিযোগীতামূলক বিশ্বে মেধার রাজ্যে জায়গা করে নিতে হলে এ ধরনের ইউনিক প্লাটফর্ম গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখবে বলে অনেকেই মতামত দেন। দেশের মাটিতে যা এতোদিন সম্ভব হয়নি তাই বাস্তবায়ন করে দেখালেন বাংলাদেশের সম্ভাবনাময় একঝাঁক তরুণ মেধাবী।

দক্ষিন কোরিয়া

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে