Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ১৯ জুন, ২০১৯ , ৫ আষাঢ় ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.1/5 (14 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৭-১০-২০১৪

হল্যান্ডকে হারিয়ে ফাইনালে আর্জেন্টিনা

হল্যান্ডকে হারিয়ে ফাইনালে আর্জেন্টিনা

ব্রাসিলিয়া, ১০ জুলাই- বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে কখনো হারেনি আর্জেন্টিনা। এবারও তার ব্যতিক্রম হলো না। সেমিফাইনালে হল্যান্ডকে হারিয়ে ফাইনালে চলে গেল লিওনেল মেসির দল।

আজ হল্যান্ড-আর্জেন্টিনার ম্যাচে আরও বেশ কয়েকবার হয়েছে ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি। বিশ্বকাপে অতিরিক্ত সময়ের খেলায় কখনো গোল করতে পারেনি হল্যান্ড। আর্জেন্টিনাকেও কখনো গোল হজম করতে হয়নি অতিরিক্ত ৩০ মিনিটে। এই দুই ঘটনারও ব্যতিক্রম হয়নি এবারের বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে। নির্ধারিত ৯০ মিনিটের পর অতিরিক্ত সময়ও থেকেছে গোলশূণ্য।

টাইব্রেকারের সময়ও খুব বেশি বদলায়নি ইতিহাসের পরিসংখ্যান। বিশ্বকাপে পেনাল্টি শুটআউটে কখনো জিততে পারেনি হল্যান্ড। ১৯৯৮ সালের সেমিফাইনালে ব্রাজিলের কাছে টাইব্রেকারে হেরে বিদায় নিতে হয়েছিল ডাচদের। এবারও শেষ চারের লড়াইয়ে সেই টাইব্রেকারের ভাগ্যেই কপাল পুড়েছে কমলাদের। আর ১৯৯০ সালের মতো আরও একবার সেমিফাইনালে পেনাল্টি শুটআউটে জিতেই ফাইনালে উঠেছে আর্জেন্টিনা।

গোলরক্ষক সার্জিও রোমেরোর ওপর হয়তো খুব বেশি ভরসা ছিল না আর্জেন্টিনার সমর্থকদের। কিন্তু সেই রোমেরোই হয়ে গেছেন আজকের ম্যাচের নায়ক। রন ভ্লার ও ওয়েসলি স্নেইডারের শট ঠেকিয়ে তিনিই আর্জেন্টিনাকে এনে দিয়েছেন ৪-২ ব্যবধানের জয়। আর্জেন্টিনার পক্ষে গোল করেছেন গারাই, মেসি, সার্জিও আগুয়েরো ও ম্যাক্সি রদ্রিগেজ।

এর আগে নির্ধারিত ৯০ মিনিটের পর অতিরিক্ত সময়েও গোলের দেখা পায়নি কোনো দল। ৯০ মিনিটের পর যোগ করা সময়ে জয়সূচক গোলটি করার দারুণ এক সুযোগ পেয়েছিলেন আরিয়েন রোবেন। কিন্তু তাঁর সেই গোল প্রচেষ্টা দারুণভাবে রুখে দিয়েছেন আর্জেন্টিনার ডিফেন্ডার হাভিয়ের মাচেরানো।

৭৬ মিনিটের মাথায় হল্যান্ডের জালে একবার বল জড়িয়েও দিয়েছিলেন গঞ্জালো হিগুয়েইন। আর্জেন্টিনার সমর্থকেরা মেতে উঠেছিলেন উল্লাসে। কিন্তু পরমুহূর্তেই রেফারির অফসাইডের পতাকার দিকে তাকিয়ে হতাশ হতে হয়েছে তাদের। রেফারির সিদ্ধান্ত সঠিক ছিল কিনা, সেটা নিয়ে হয়তো অনেক বিতর্কই চলবে ফুটবল বিশ্বে। কিন্তু আপাতত সেটা দূরে রেখে অতিরিক্ত সময়ের দিকেই তাকিয়ে থাকতে হবে ফুটবলপ্রেমীদের।

প্রথমার্ধের মতো দ্বিতীয়ার্ধেও সমানে সমানেই লড়াই চালিয়েছে দুই সেমিফাইনালিস্ট। নির্ধারিত ৯০ মিনিটের খেলায় ৫৪ শতাংশ সময় বলের দখল ছিল হল্যান্ডের কাছে। তবে রক্ষণভাগে এসে খুব বেশি শট নিতে পারেনি ডাচরা। ছয়টি শট নিলেও কোনোটিই ছিল না আর্জেন্টিনার গোলপোস্ট লক্ষ্য করে। প্রথমার্ধে ওয়েসলি স্নেইডারের একটি শটটা চলে গেছে গোলপোস্টের বেশ খানিকটা বাইরে দিয়ে। আরিয়েন রোবেনকে কয়েকবার দেখা গেছে স্বভাবসুলভ দ্রুতগতিতে আর্জেন্টিনার রক্ষণভাগে ঢুকে পড়তে। কিন্তু সেগুলো দিয়ে গোলের সুযোগ তৈরি করতে পারেননি এই ডাচ উইঙ্গার।

১৫ মিনিটে অধিনায়ক লিওনেল মেসির একটি ফ্রি-কিক দারুণভাবে রুখে দিয়েছিলেন ডাচ গোলরক্ষক ইয়াসপার সিলেসেন। ২৫ মিনিটে এজেকিয়েল গারাইয়ের হেড চলে গেছে হল্যান্ডের গোলপোস্টের কিছুটা ওপর দিয়ে।

বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৪

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে