Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০ , ৪ আশ্বিন ১৪২৭

গড় রেটিং: 2.6/5 (29 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০৭-০৮-২০১৪

পতাকার চেয়ে বড় কেউ নয়

পতাকার চেয়ে বড় কেউ নয়

ঢাকা, ০৮ জুলাই- জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমানে ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক খালেদ মাহমুদ সুজন বলেছেন, 'জাতীয় পতাকার চেয়ে বড় কেউ নয়। ক্রিকেটের চেয়ে বড় কেউ নয়। এ জন্যই দলের শৃঙ্খলা রক্ষার জন্য সাকিবের বিষয়ে এই কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে বোর্ড বাধ্য হয়েছে।' গতকাল সন্ধ্যায় সাকিব আল হাসানের শাস্তির ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করা হলে বাংলাদেশ প্রতিদিনের কাছে এ অভিমত ব্যক্ত করেন সাবেক এই অধিনায়ক। বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে ছয় মাস নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত প্রসঙ্গে খালেদ মাহমুদ সুজন বলেন, দেশের বর্তমান সময়ে সবচেয়ে বড় তারকার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়াটা বোর্ডের জন্য বেশ কঠিন ছিল। এক্ষেত্রে বোর্ড দলের শৃঙ্খলাকে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়েছে। কারণ দেশের ক্রিকেটের স্বার্থে দলের শৃঙ্খলা বজায় রাখার কোনো বিকল্প নেই। মনে রাখতে হবে, কোনো একজনের জন্য দেশের ক্রিকেট দলের শৃঙ্খলা ভেঙে পড়বে তা কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। নিশ্চয়ই খেলার চেয়ে বড় কোনো খেলোয়াড় হতে পারে না। জাতীয় পতাকার চেয়ে কেউ নিজেকে বড় ভাবতে পারে না।  

সব ধরনের ক্রিকেট থেকে ছয় মাসের নিষেধাজ্ঞা একজন ক্রিকেটারের জন্য কঠিন শাস্তি কিনা জানতে চাইলে খালেদ মাহমুদ বলেন, সাকিবের অন্যায়টাও বেশ কঠিন। অন্যায় হিসেবে শাস্তি আরও বড় হওয়ার কথা ছিল। তবে ক্রিকেট বোর্ড সাকিবের কথা চিন্তা করেই শাস্তির মাত্রা কিছুটা কমিয়ে দিয়েছে। অন্য কোনো ব্যক্তি বা ভিন্ন কোনো পরিস্থিতি হলে শাস্তির মাত্রা আরও বড় হলেও হতে পারত।  

ক্রিকেট বোর্ডে অতিমাত্রায় রাজনীতি প্রবেশ করার প্রচলিত অভিযোগ সম্পর্কে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে খালেদ মাহমুদ বলেন, প্রথমত, বোর্ডের মধ্যে কোনো রাজনৈতিক প্রতিপত্তির সুযোগ আছে বলে আমি মনে করি না। দ্বিতীয়ত, সাকিবের সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষেত্রে বিন্দুমাত্র রাজনীতির কোনো অবকাশই নেই। বোর্ডের এই সিদ্ধান্ত পুরোপুরি ক্রিকেটের স্বার্থে নেওয়া হয়েছে। সাকিবের বিশৃঙ্খলা ধীরে ধীরে অন্য খেলোয়াড়দের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ার একটি প্রবণতা লক্ষ্য করা যাচ্ছিল। এটা কোনোভাবেই ক্রিকেটের জন্য মঙ্গলদায়ক হতো না। বড় পুরো দলের শৃঙ্খলা নষ্ট করার যথেষ্ট আশঙ্কা ছিল। অবধারিতভাবেই দলের পারফরম্যান্সেও তার প্রভাব পড়ত।   

অগ্রজ ক্রিকেটার হিসেবে পরবর্তী প্রজন্মের খেলোয়াড় সাকিবের বিষয়ে ভাবনা জানতে চাইলে খালেদ মাহমুদ সুজন বলেন, আসলে সাকিব কেন এমন করছে তা খুঁজে দেখতে হবে। সে নিজে থেকে কখনো কারও কাছে এ বিষয়ে কথা বলেনি। হয়তো বললে তার এই সমস্যার সমাধান খুব সহজেই হয়ে যেতে পারত। তবে আশা করব এই শাস্তি তার মধ্যে পরিবর্তন নিয়ে আসবে। নিজেকে শুধরে নিয়ে নিজের মধ্যে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে পারবে সাকিব। ছয় মাসের এই সময়সীমা কাটিয়ে আবারও বাংলাদেশের ক্রিকেটে সাফল্যের সঙ্গেই ফিরে আসবে সাকিব আল হাসান।

ক্রিকেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে