Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ২৭ জানুয়ারি, ২০২০ , ১৪ মাঘ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.9/5 (80 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০৬-২৯-২০১৪

চাঁদপুরের ৪০ গ্রামে আজ রোজা

চাঁদপুরের ৪০ গ্রামে আজ রোজা

চাঁদপুর, ২৯ জুন- সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ, হাজীগঞ্জ, মতলব উত্তর, দক্ষিণ এবং কচুয়া উপজেলার প্রায় ৪০ গ্রামের মুসলমানরা আজ রবিবার থেকে রোজা রাখা শুরু করেছেন। শনিবার রাতে তারা তারাবির নামাজও আদায় করেছেন।

১৯২৮ সালে সাদ্রা দরবার শরীফের পীর মরহুম মাওলানা ইসহাক সৌদি আরবের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে এক দিন আগে ঈদ ও রোজা পালনের মতবাদের প্রচলন শুরু করেন।

চাঁদপুরে আরব দেশগুলোর সঙ্গে সঙ্গতি রেখে আগাম ঈদ ও রোজা পালনের উদ্যোক্তা সাদ্রা দরবার শরীফের পীর মাওলানা ইসহাক এর ছেলে মাওলানা আবু জোফার মো. আবদুল হাই বলেছেন, ‘সৌদিতে রবিবার রোজা। তাই আমরা রোজা রাখবো।’

সাদ্রা দরবার শরীফের পীর মাওলানা ইসহাকের মৃত্যুর পর তার ছয় ছেলে এই মতবাদ প্রচারে নিয়োজিত রয়েছেন।

চাঁদপুর জেলার যে সব গ্রামের অধিকাংশ মানুষ আগাম রোজা পালন করে সে গ্রামগুলো হচ্ছে : হাজীগঞ্জ উপজেলার সাদ্রা, বলাখাল, অলিপুর, বড়কুল, শমেশপুর, জাকনী, রামচন্দ্রপুর, প্রতাপপুর, শ্রীপুর, বেলচোঁ, রাজারগাঁও, ফরিদগঞ্জ উপজেলার শাচনমেঘ, বিঘা, উভারামপুর, বাজপাড়া, খিলা, ওটতলী, বালিথুবা, শোল্লা, রূপসা, গোয়ালভাওর, নোয়াহাট, বাশারা, তেলিসাইর, পৌনসাইর, কামতা, সুড়ঙ্গচাউল, পাইকপাড়া, মূলপাড়া, মুন্সিরহাট, কইতাড়া, মতলব উপজেলার আশ্বিনপুর, নায়েরগাঁও, পাঁচআনী, দশআনী, মোহনপুর, এখলাসপুর ও বেলতলী।

বিশ্বের যে কোনো দেশে চাঁদ দেখার খবরের ওপর ভিত্তি করে এসব গ্রামে রোজা শুরু ও ঈদ পালিত হয়ে আসছে প্রায় শত বছর ধরে। যার ধারাবাহিকতায় এবারো এসব গ্রামে বাংলাদেশের অন্যান্য এলাকা থেকে একদিন আগে রোজা রাখা শুরু হয়।

চাঁদপুর

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে