Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ২৯ মে, ২০২০ , ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

গড় রেটিং: 3.1/5 (91 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০৫-২১-২০১৪

চলতি বছরেই সিলেটে বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপনের কাজ শুরু

চলতি বছরেই সিলেটে বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপনের কাজ শুরু

সিলেট, ২১ মে- সিলেটে বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপনের কাজ এ বছরেই শুরু হবে জানালেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত। সিলেটকে বিনিয়োগবান্ধব করে তুলতে একই সাথে যোগাযোগ ব্যবস্থারও উন্নয়ন করা হবে বলে জানান তিনি।

বুধবার সকাল সাড়ে ১১টায় নগরীর একটি অভিজাত হোটেলে ‘ইনভেস্টমেন্ট অপারচুনিটি ইন সিলেট রিজিওন’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। এতে ব্যবসায়ীদের বিভিন্ন প্রস্তাবনার জবাবে প্রধান অতিথির বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী আব্দুল মুহিত এসব তথ্য জানান।

তিনি বলেন, রেল ও হাইওয়ের উন্নয়ন আবশ্যক। তবে বিমানবন্দরে কার্গো ইয়ার্ডের অবস্থা দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বিশেষ করে ঢাকা-সিলেট সড়ক যোগাযোগের উন্নয়ন করা উচিত। শেরপুর পর্যন্ত ডাবল লেন আবার কোথাও ৬ লেন করা যেতে পারে।

তাছাড়া ১৯২২-১৯৮৩ সাল পর্যন্ত রেলের বাজেট আলাদা হতো। কিন্তু পরবর্তী সময়ে রেলের বাজেট ছিল জিরো। এ সরকার রেলের উন্নয়নে ভূমিকা রেখেছে।

অর্থমন্ত্রী বলেন, সিলেটে বিনিয়োগের অবাধ সুযোগ সুবিধা রয়েছে। ৩৩ শতাংশ জমি খালি পড়ে আছে। ইচ্ছে করলে যে কেউ বিনিয়োগ করতে পারেন। এতে তারা সরকারের তরফ থেকেও সুযোগ সুবিধা পাবেন।

বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে মহিলাদের জন্যও বিনিয়োগের সুযোগ সৃষ্টি করে দেওয়া হবে।

শিল্প ও বণিক সংগঠন এফবিসিসিআই এর সভাপতি কাজী আকরাম উদ্দিন আহমদের সভাপতিত্বে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্ণর ড. ফরাসউদ্দিন।

সেমিনারে বৃহত্তর সিলেটে উন্নয়ন ও বিনিয়োগবান্ধব পরিবেশ সৃষ্টি করতে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিতের কাছে বেশ কয়েকটি প্রস্তাবনা তুলে ধরেন ব্যবসায়ীরা।

এসব প্রস্তাবনার মধ্যে রয়েছে- সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কার্গো ইয়ার্ড স্থাপন, রিফ‍ুয়েলিং স্টেশনের কাজ দ্রুততার সাথে সম্পন্নকরণ, চট্রগ্রামের সাথে সিলেটের যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন ও সিলেট-ঢাকা মহাসড়ক চার লেনে উন্নীতকরণ, ব্রডগেজ ট্রেন লাইন স্থাপন, পর্যটন শিল্পের উন্নয়ন ও নিরাপত্তা বৃদ্ধিতে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ, শুল্ক স্টেশনগুলোর সুবিধা বৃদ্ধি ও অবকাঠামোগত উন্নয়ন, শ্রীমঙ্গলে চা নিলাম কেন্দ্র স্থাপন, সম্ভাবনাময় আগরশিল্প এবং বেত শিল্পের উন্নয়নে সরকারি উদ্যোগ গ্রহণ। এছাড়া বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপন প্রক্রিয়া এগিয়ে নেওয়া এবং নারী উদ্যোক্তাদের জন্য শিল্প তৈরির সুযোগ সৃষ্টির প্রস্তাবনা তুলে ধরা হয় সেমিনারে।

সেমিনারে আলোচকবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন-শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসা প্রশাসন অনুষদের অধ্যাপক ড. মো. নজরুল ইসলাম, এফবিসিসিআইএর সহ সভাপতি মিসেস মনোয়ারা হাকিম আলী।

অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, পূবালী ব্যাংকের চেয়ারম্যান হাফিজ আহমদ মজুমদার, রূপালী ব্যাংকের চেয়ারম্যান ড. আহমদ আল কবির, এনআরবি ব্যাংকের চেয়ারম্যান ড. তৌফিক রহমান চৌধুরী। এছাড়া সিলেটের রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব ও ব্যবসায়ীরাও সেমিনারে উপস্থিত ছিলেন।

 

সিলেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে