Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই, ২০১৯ , ৮ শ্রাবণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.5/5 (50 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১০-০৪-২০১১

১০০ মিটারে হাফিজুলের চমক

১০০ মিটারে হাফিজুলের চমক
দৌড় শেষ। হাফিজুল ইসলামকে নিয়ে ততক্ষণে মাতামাতি শুরু হয়ে গেছে। প্রথমবারের মতো দ্রুততম মানব হওয়া স্প্রিন্টারকে নিয়ে মিডিয়ার টানাটানি চলার ফাঁকেই ভেতরে জমে থাকা ক্ষোভ উগরে দিলেন, ?ট্র্যাকে নামার আগেই আমি বলেছিলাম, আজই আমার প্রথম, আজই শেষ।?
দেশের দ্রুততম মানব মোহন খানকে টপকে ওয়ালটন জাতীয় সামার অ্যাথলেটিকসে সেরা হলেন শেরপুরের ২৬ বছর বয়সী যুবক। হাতে ঘড়ি ধরে নির্ণীত টাইমিং ১০.৯০ সেকেন্ড। কিন্তু সোনা জিতে অভিমানভরে বললেন, ?আর কোনো দিন ১০০ মিটার স্প্রিন্টে খেলব না।?
বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে সামার অ্যাথলেটিকসের শেষ দিনে আরও নাটক বাকি ছিল। মেয়েদের স্প্রিন্টের গতবারের চ্যাম্পিয়ন নাজমুন নাহার (বিউটি) হাঁটলেন উসাইন বোল্টের পথে। না, রেকর্ড গড়েননি। গত আগস্টে দক্ষিণ কোরিয়ার দেগুতে যেভাবে ফলস স্টার্টের কারণে বাদ পড়েছিলেন বোল্ট, কাল সেই কাণ্ডটাই করে বসলেন বিজেএমসির দেশসেরা অ্যাথলেট! হতাশ বিউটি বসে রইলেন মাঠের ঘাসের ওপর। চেয়ে চেয়ে দেখলেন কীভাবে তাঁর শ্রেষ্ঠত্ব ছিনিয়ে নিয়ে গেলেন বাংলাদেশ আনসারের শামসুন নাহার (চুমকি)। ১২.৩০ সেকেন্ড সময় নিয়ে দুই বছর পর আবারও সামার মিটের দ্রুততম মানবী হলেন। তবে চুমকির কথায় বিউটির জন্য ঝরে পড়ল সমবেদনা, ?আমার ধারণা, বিউটি আপা থাকলে আরও ভালো হতো। প্রতিযোগিতাটা জমত। আমি খুব কষ্ট পেয়েছি।? বিউটি বাদ পড়ায় দ্রুততম মানবী হওয়ার স্বপ্ন জেগে উঠেছিল প্রথমবারের মতো জুনিয়র থেকে সিনিয়রে আসা পাপিয়া সরকারেরও, ?আমার খারাপ লেগেছে। কিন্তু যখন বিউটি আপা সরে গেলেন, তখন মনে হচ্ছিল, কিছু একটা হয়ে যেতে পারে।? তবে সেই ?কিছু? আর হয়নি। ১২.৪০ সেকেন্ড সময় নিয়ে রুপা জিতেছেন বিকেএসপির কিশোরী। গত মাসে ইংল্যান্ডের যুব কমনওয়েলথ গেমসের সেমিফাইনালের (১২.৬৩ সেকেন্ড) চেয়ে ভালো সময় করেছেন। আশাবাদী পাপিয়া বললেন, ?একদিন অবশ্যই সোনা জিতব।?
১০০ মিটারে জাতীয় চ্যাম্পিয়ন মোহন খান ব্রোঞ্জ জিতেছেন ১১.১০ সেকেন্ড সময় করে। সেনাবাহিনীর স্প্রিন্টার হতাশার সঙ্গে বললেন, ?আমাদের এবার পর্যাপ্ত অনুশীলন হয়নি।? রুপা জেতা বিকেএসপির মেজবাহ আহমেদ সময় নিয়েছেন ১১.০০ সেকেন্ড। ছেলেদের ১১০ মিটার হার্ডলসে জাতীয় চ্যাম্পিয়ন আসাদুল ইসলাম দুর্ভাগ্যজনকভাবে সোনা জিততে পারেননি। বাংলাদেশ বর্ডার গার্ডের (বিজিবি) এই হার্ডলার একদম ফিনিশিং লাইনের কাছে এসে পায়ের পেশিতে চোট পান। শেষ পর্যন্ত ১৫.৩০ সেকেন্ড সময় নিয়ে অবশ্য ব্রোঞ্জ জিতেছেন। এই ইভেন্টে সোনা জিতেছেন বিজেএমসির মাসুদ খান (১৫.০০ সেকেন্ড), রুপা সেনাবাহিনীর মোহাম্মদ মজি (১৫.২০ সেকেন্ড)। ৫টি সোনাজয়ী বিজেএমসির মেরুনা হয়েছেন সেরা অ্যাথলেট।
আধিপত্য দিয়ে শুরু করা বিজেএমসি অবশ্য শেষ দিনেও সেটি ধরে রাখার চেষ্টা করেছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত চ্যাম্পিয়ন হয় সেনাবাহিনী। ১০টি সোনা, ১১টি রুপা ও ১২টি ব্রোঞ্জ জিতেছে তারা। রানার্সআপ বিজেএমসি জিতেছে ১০টি সোনা, ১০টি রুপা ও ৬টি ব্রোঞ্জ। খেলা শেষে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী আহাদ আলী সরকার।
পদকে সেরা পাঁচ
সোনা রুপা ব্রোঞ্জ
সেনাবাহিনী ১০ ১১ ১২
বিজেএমসি ১০ ১০ ৬
আনসার ৫ ১ ৫
নৌবাহিনী ৪ ৮ ০
বিকেএসপি ৩ ৩ ৩

ফুটবল

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে