Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯ , ২ পৌষ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.7/5 (41 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৫-১৪-২০১৪

যেসব কারণে পুরুষদের তুলনায় নারীদের ঘুম হালকা

প্রায়শই দেখা যায় পুরুষদের তুলনায় নারীদের ঘুম বেশ হালকা হয়ে থাকে। অনেক সময় দেখা গেছে নারীরা না ঘুমিয়েই সারা রাত পার করে দিয়েছেন। এর ফলে তারা অনিদ্রাজনিত ঝুঁকিতে বেশি পড়েন। এর ফলে তারা নানা ধরনের মানসিক সমস্যাতেও পড়ে থাকেন। যে যে কারণে নারীদের ঘুম পুরুষদের তুলনায় হালকা হয়ে থাকে :

যেসব কারণে পুরুষদের তুলনায় নারীদের ঘুম হালকা

১. চিন্তা করেন বেশি :
নারীরা পুরুষদের চেয়ে অনেক বেশি চিন্তা করে থাকেন। স্বাভাবিকভাবে অতিরিক্ত চিন্তার ফলে ব্রেনে চাপ পড়ায় ক্লান্তিতে ঘুম আরও বেশি হওয়ার কথা। কিন্তু নারীদের ক্ষেত্রে বিপরীতটি ঘটে যে তারা চিন্তা করে ঠিকই তবে এই চিন্তা থেকে তারা অনেক বেশি ভয় পান। ফলে তাদের চিন্তাগুলো ব্রেনকে অনেক চাপ দেয় কিন্তু ক্লান্তিভাব বা ঘুম এনে দেয় না। অন্যদিকে পুরুষরা কম চিন্তা করেন। চিন্তা কম করলে ব্রেন বিশ্রামেই থাকে। যার ফলে যতটুকুই ঘুম হয় তা একেবারে ভালো ঘুম হয়।

২. নারীরা বেশি ভয় পায় :
স্বাভাবিকভাবেই নারীরা রাতের বেলায় বেশ ভয় পেয়ে থাকেন। তাদের হার্ট পুরুষের তুলনায় বেশ দুর্বল। ফলে বিভিন্ন অলৌকিক বিষয়ে চিন্তা করে তা একপ্রকার বিশ্বাস করে রাতের বেলায় ভয় পেয়ে থাকেন। ফলে ঘুম অনেক পাতলা হয়। বিপরীতে পুরুষরা এসব অলৌকিক বিষয়ে বিশ্বাস করেন না বলে তারা নির্দ্বিধায় ঘুমিয়ে যান।

৩. শারীরিক পরিশ্রম :
পুরুষদের তুলনায় নারীরা শারীরিক পরিশ্রম কম করে থাকেন ফলে পুরুষদের চেয়ে নারীদের ঘুম অনেক কম হয়ে থাকে। যত বেশি শারীরিক পরিশ্রম হয় দেহে তত বেশি ক্লান্তি চলে আসে এবং ব্রেনও আর কাজ করতে চায় না। ফলে চোখ ভেঙ্গে ঘুম আসে। সারাদিনে বিভিন্ন কাজে পুরুষদের অনেক শারীরিক পরিশ্রম যায়। এজন্য রাতের বেলা তারা গভীর ঘুম ঘুমাতে পারেন। অপরদিকে নারীরা শারীরিকভাবে পুরুষদের তুলনায় অনেক কম পরিশ্রম করে। এজন্য তাদের শরীরে ক্লান্তি আসে না। ফলে রাতে ঘুমও গাঢ় হয় না।

৪. হরমোনের কারণে :
পুরুষদের সাথে নারীদের হরমোনের কিছুটা পার্থক্য রয়েছে। যার ফলে হরমোনের পার্থক্যের ফলেও পুরুষদের ঘুম অনেক গভীর হয় আর নারীদের ঘুম অনেক পাতলা হয়।

৫. নারীরা বেশি স্বপ্ন দেখেন :
গবেষণায় দেখা গেছে নারীরা পুরুষদের তুলনায় অনেক বেশি স্বপ্ন দেখেন। যার ফলে স্বপ্নে যখন বিরতি পড়ে তখন হঠাৎ করেই ঘুম ভেঙ্গে যায়। অবশ্য ঘুম গাঢ় হলেই স্বপ্ন দেখে মানুষ। কিন্তু দেখা গেছে যে মেয়েদের ঘুম হয়ত কিছুক্ষণের জন্য গাঢ় হয় আবার স্বপ্ন দেখার জন্য তা ভেঙ্গে যায়। আর যদি সেটা ভয়ংকর কোনো স্বপ্ন হয় তাহলে তো কোনো কথাই নাই।

৬. নারীর মস্তিষ্ক পুরুষের চেয়ে কার্যকর বেশি :
নারীর মস্তিষ্কের আকৃতি পুরুষের মস্তিষ্কের তুলনায় ৮ শতাংশ কম হলেও কার্যকারিতার দিক থেকে এগিয়ে রয়েছে। লস অ্যাঞ্জেলেস ও মাদ্রিদের একদল গবেষক এ তথ্য জানিয়েছেন। যুক্তরাজ্যের সানডে টাইমস পত্রিকায় প্রকাশিত গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়, নারীর মস্তিষ্ক তুলনামূলক কম শক্তি ও স্নায়ু ব্যবহার করেই জটিল কাজকর্ম সম্পন্ন করতে পারে। যুক্তরাজ্যের কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ট্রেভর রবিনস বলেন, মস্তিষ্কের আকৃতি কোনো ব্যাপার নয়, এই গবেষণার ফলাফলে সেটা প্রমাণ হয়েছে। তুলনামূলক ছোট মস্তিষ্ক বিভিন্ন স্নায়ুকোষকে আরও নিবিড়ভাবে নিয়ন্ত্রণ করতে পারে। এ কারণেও পুরুষের তুলনায় নারীদের ঘুম হালকা হয়ে থাকে।

 

জানা-অজানা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে