Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ , ৮ আশ্বিন ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.3/5 (22 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০১-২৭-২০১২

মাহী চৌধুরীর ব্লু ব্যান্ড কল গোয়েন্দা নজরে

মির্জা মেহেদী তমাল


মাহী চৌধুরীর ব্লু ব্যান্ড কল গোয়েন্দা নজরে
সামাজিক ওয়েব সাইট ভিত্তিক সংগঠন ব্লু ব্যান্ড কল (বিবিসি) গোয়েন্দা নজরদারির আওতায় নেওয়া হয়েছে। মধ্যপ্রাচ্যের মতো বাংলাদেশেও বিবিসির ফেসবুক গণঅভ্যুত্থানের অন্যতম উৎসে পরিণত হতে পারে বলে গোয়েন্দারা আশঙ্কা করছে। এ অবস্থায় ধানমণ্ডির রবীন্দ্র সরোবরে বিবিসির আজকের পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচি করতে দেওয়া হচ্ছে না।

বিবিসির উদ্যোগদাতা সাবেক এমপি মাহী বি চৌধুরী গতরাতে জানান, পুলিশ কোনো কারণ ছাড়াই তাদের কর্মসূচিতে বাধা দিচ্ছে। অনুমতি নেওয়ার পরও ধানমণ্ডি থানা পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, তারা সেখানে কর্মসূচি পালন করতে পারবে না। পুলিশি বাধা সত্ত্বেও কর্মসূচি পালন করবেন বলে জানান তিনি।

ধানমণ্ডি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুনিরুজ্জামান জানান, সংগঠনটির কাছে কর্মসূচি পালনের জন্যে পুলিশের কোনো অনুমতিপত্র নেই। যে কারণে তাদের কর্মসূচি করতে দেওয়া হচ্ছে না।

এদিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ে গত সপ্তাহে পাঠানো এক গোয়েন্দা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিবিসির কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েক হাজার তরুণ 'হয় সমঝোতা নয় অবসর' স্ল্লোগান সামনে রেখে রাজপথে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছে। তাদের এ কর্মসূচি মধ্যপ্রাচ্যের ন্যায় সরকার বিরোধী কর্মকাণ্ডকে উস্কে দেওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। জানা গেছে, গত ১২ ডিসেম্বর রাজধানীর বনানী ডিআইটি মাঠে 'হয় সমঝোতা, নয় অবসর'-স্লোগান নিয়ে ব্লুব্যান্ড কল নামে সংগঠনটির আত্মপ্রকাশ ঘটে। ফেসবুক ভিত্তিক এই সংগঠনের নেতৃত্বে রয়েছেন মাহি বি চৌধুরী। প্রায় দুই হাজার তরুণ তরুণীর সমাবেশে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক বি চৌধুরী, প্রবীণ আইনজীবী ব্যারিস্টার রফিক উল হক, ডাকসুর সাবেক ভিপি মাহমুদুর রহমান মান্না, অধ্যাপক পিয়াস করিম, সংগীত শিল্পী হায়দার হোসেনসহ অনেকে। বর্তমানে ফেইসবুক এর সদস্য সংখ্যা প্রায় ৩০ থেকে ৩২ হাজার। যারা বিভিন্ন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রী। গত ১২ জানুয়ারি ভোর ৬টা থেকে ১৩ জানুয়ারি ৬টা পর্যন্ত টানা ২৪ ঘণ্টা ব্লু ব্যান্ড কলের সদস্যরা সমঝোতার সারিতে রাজপথে অবস্থান করবে বলে তিনি কর্মসূচি ঘোষণা করেন। তারপরও সমঝোতা না হলে ৪৮ ঘণ্টা, তারপর ৭২ ঘণ্টা রাস্তায় অবস্থান করবেন। এ কারণে ১২ জানুয়ারি ধানমণ্ডি রবীন্দ সরোবরে এক কৌটা চাল, এক কৌটা ডাল নিয়ে শান্তি অবস্থান কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দিলেও পরে তা হয়নি। ওই কর্মসূচি আজ সকাল ৬টা থেকে আগামীকাল শনিবার সকাল ৬টা পর্যন্ত পালিত হওয়ার কথা রয়েছে। ওই অনুষ্ঠানকে কেন্দ করে বিবিসি গত মঙ্গলবার থেকে গতকাল পর্যন্ত ১১ নম্বর বনানী ব্রিজ, উত্তরা মাস্কট প্লাজা, মহিলা সমিতি-বেইলি রোড, ১০ নম্বর মিরপুর ও ধানমণ্ডি মুক্তমঞ্চে সদস্য সংগ্রহ অভিযান চালায়। মাহী বি চৌধুরী জানান, রবীন্দ্র সরোবরে কর্মসূচি পালন না করার জন্যে ধানমণ্ডি থানা পুলিশ সংগঠনের কয়েকজন সদস্যকে থানায় নিয়ে জোরপূর্বক মুচলেকা লেখিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেছে। পুলিশ ও গোয়েন্দারা তার বাসা এবং অফিসে খোঁজ খবর নিয়েছেন।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে