Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯ , ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.2/5 (17 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০৫-০৬-২০১৪

টোল নিয়ে বিরোধে নেতাকে কুপিয়ে জখম

টোল নিয়ে বিরোধে নেতাকে কুপিয়ে জখম

বগুড়া, ৬ মে- টোল আদায় নিয়ে বিরোধের জের ধরে বগুড়ার ধুনটে বোহাইল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহসভাপতি আপেল মাহমুদকে (২৪) কুপিয়ে গুরুতর জখম করা হয়েছে। এ ঘটনায় তাঁর পক্ষের নেতা-কর্মীরা ভান্ডারবাড়ী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতির বাড়িতে পাল্টা হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করেছেন।
এলাকাবাসীর কয়েকজন জানান, উপজেলার ভান্ডারবাড়ী ইউনিয়নে যমুনা নদীর শহড়াবাড়ী নৌঘাট জেলা পরিষদ থেকে বার্ষিক ইজারা দেওয়া হয়। এ বছর ওই ঘাটের মূল্য কম হওয়ায় ইজারা দেওয়া হয়নি। তাই জেলা পরিষদ থেকে ধুনট ডাকবাংলার তত্ত্বাবধায়ক (কেয়ারটেকার) জাহাঙ্গীর আলমের উপস্থিতিতে এক সপ্তাহ ধরে ভান্ডারবাড়ী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি আবু সালেহ দৈনিক চুক্তিতে ঘাটের টোল আদায় করছেন। এদিকে ঘাটের পাশেই সারিয়াকান্দি উপজেলার বোহাইল ইউনিয়ন। এ ইউনিয়নের ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা আবু সালেহের কাছে টোলের কিছু অংশের অংশীদারি দাবি করায় তাঁদের মধ্যে বিরোধ দেখা দেয়। এ নিয়ে গত রোববার সন্ধ্যায় আবু সালেহসহ কয়েকজন নেতা-কর্মী আপেলকে মুঠোফোনে গোসাইবাড়ী বাজারে ডেকে নিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে আহত করেন। স্থানীয় লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেন।
ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসা কর্মকর্তা মাজেদুর রহমান বলেন, আপেলের শরীরে বেশ কয়েকটি কোপের ক্ষত রয়েছে। এ ছাড়া তাঁর বাঁ পায়ের গোড়ালির কাছে রগ কেটে গেছে। তাৎক্ষণিকভাবে তাঁকে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
এ ঘটনার জের ধরে আপেলের সমর্থকরা রাত সাড়ে আটটার দিকে পাল্টা হামলা চালিয়ে চুনিয়াপাড়া গ্রামে আবু সালেহের বাড়িসহ একই গ্রামের ছাত্রলীগের চার নেতা-কর্মীর বাড়ি ভাঙচুর ও দুটি ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটান।
এ ব্যাপারে আবু সালেহ বলেন, ‘যমুনা নদীর শহড়াবাড়ী নৌঘাটের টোল আদায়ের অংশ না দেওয়ায় বোহাইল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা আমাদের গালিগালাজ করেন। এ বিষয়ে জানতে আপেল মাহমুদকে ডেকে আনা হয়। এ নিয়ে কথা-কাটাকাটির একপর্যায়ে মারামারির ঘটনা ঘটেছে। পরে তারা পাল্টা হামলা চালিয়ে আমার বাড়িসহ চারটি বাড়ি ভাঙচুর করে ও ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। এ সময় তাদের মারপিটে সাতজন আহত হন।’
ধুনট থানার ওসি মোজাফফর হোসেন বলেন, খবর পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে।
বগুড়া জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কমল রঞ্জন দাস বলেন, অফিসে জনবল কম থাকায় ঘাটের টোল আদায় করতে স্থানীয় লোকজনকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এ নিয়ে কোনো ঘটনা ঘটে থাকলে তাদের বাদ দিয়ে দ্রুত ইজারার ব্যবস্থা করা হবে।

বগুড়া

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে