Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট, ২০১৯ , ৫ ভাদ্র ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.1/5 (13 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০৪-২৮-২০১৪

নিষেধ মানছেন না জেলেরা

নিষেধ মানছেন না জেলেরা

লক্ষ্মীপুর, ২৮ এপ্রিল- মতলবের ষাটনল থেকে লক্ষ্মীপুর জেলার চর আলেকজান্ডার পর্যন্ত ১শ’ কিলোমিটার মেঘনা নদীতে মাছ ধরা নিষিদ্ধ। দেশের ইলিশ সম্পদ রক্ষায় জাটকা নিধন প্রতিরোধ কর্মসূচির আওতায় ২০০৬ সাল থেকে চাঁদপুরের মেঘনাসহ দেশের ৪টি অঞ্চলে মার্চ-এপ্রিল দু’মাস মাছের অভয়াশ্রম ঘোষণা করা হয়েছে। মতলব ষাটনল থেকে হাইমচর উপজেলার চরভৈরবী পর্যন্ত ৬০ কিলোমিটার ও লক্ষ্মীপুর জেলার চর আলেকজান্ডার পর্যন্ত ৪০ কিলোমিটার মেঘনা নদী অভয়াশ্রমের অন্তর্ভুক্ত। এ সময় ইলিশসহ সব ধরনের মাছ ধরা বন্ধ থাকবে। জেলেরা জাল নিয়ে নদীতে নামতে পারবে না। কিন্তু সরকারি এ নিষেধজ্ঞা মানছে না মতলব উত্তর উপজেলার জেলেরা। এ উপজেলার জেলেরা অভয়াশ্রমের প্রথম দিন থেকেই নির্বিঘ্নে নৌকা নিয়ে মাছ শিকার করে আসছে। এছাড়া মাছের আড়তগুলোতে প্রকাশ্যে জাটকা বিক্রি হচ্ছে। এবার অভয়াশ্রমকালে মতলব উত্তর উপজেলায় মেঘনার তীরে ঘুরে এ অঞ্চলের মেঘনায় মাছের বিচরণের জন্য নিরাপদ বা মাছের অভয়াশ্রম বলে মনে হয়নি। বরং মনে হয়েছে মৎস্য শিকারি বা জেলেদের মৎস্য শিকারের জন্যই যেন এ অঞ্চল। এ অঞ্চলের মেঘনার সর্বত্রই জেলেদেরকে নিরাপদে মাছ ধরতে দেখা গেছে। প্রতিযোগিতা দিয়ে কারেন্ট জাল নিয়ে মাছ ধরছে। আমিরাবাদ থেকে নদীর তীর ধরে ষাটনল এগুলে দেখা যায়, শাখা খালের মতো আছে যেখানে একসঙ্গে ২০-২২টির মতো জেলে নৌকায় জেলেরা কারেন্ট জাল নিয়ে মাছ ধরার জন্য প্রস্তুত রয়েছে। জেলেরা এক এক করে কয়েকটি জালসহ নৌকা মৎস্য শিকারে বেরিয়ে পড়ে। শিকারিদের বেশির ভাগই কারেন্ট জাল ব্যবহার করতে দেখা গেলেও এখলাছপুর লঞ্চঘাট সংলগ্ন নদীর তীরে বিশাল আকৃতির বেশ ক’টি ভিন্ন জাতের ভেজা জাল রোদে শুকানোর জন্য ছড়িয়ে রেখেছে। মতলবে মেঘনা নদীর এখলাছপুর থেকে ষাটনল পর্যন্ত অভয়াশ্রম অঞ্চল সরজমিন সকাল ১০টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত ঘুরে দিনে দুপুরে যা দেখা গেলো তাতে মনে হলো, এখানে জাটকা ধরায় মহোৎসব চলছে। এ অঞ্চলকে অভয়াশ্রম বলে মনে করার মতো ন্যূনতম কোন কারণ খুঁজে পাওয়া গেলো না। এমনকি মৎস্য শিকারের জন্য প্রস্তুতি নেয়াকালে কাছ থেকে ছবি তুলতে গেলেও জেলেদের মাঝে ন্যূনতম কোন ভয় পাওয়ার লক্ষণ দেখা যায়নি। জেলেরা মাছ ধরছে নদীতে আর আড়তদাররা প্রকাশ্যে জাটকা বিক্রি করছে।

লক্ষীপুর

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে