Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯ , ১ পৌষ ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০৪-২৬-২০১৪

ঢাবিতে শুরু হলো যুক্তির লড়াই

ঢাবিতে শুরু হলো যুক্তির লড়াই

ঢাকা, ২৬ এপ্রিল- ঝড়ের সঙ্গে লড়িয়াছি মোরা, বাদলের সাথে যুঝি/বর্ষার সাথে মিতালি পাতায়ে সোনাধান করি পুঁজি- পল্লীকবি জসীম উদ্দীনের এই কবিতাংশকে স্লোগান হিসেবে ধারণ করে শুক্রবার শুরু হয়েছে ষষ্ঠ পল্লীকবি আন্তঃক্লাব বিতর্ক প্রতিযোগিতা-১৪২১।

শুক্রবার সন্ধ্যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কবি জসীম উদ্দীন হল মিলনায়তনে এ প্রতিযোগিতার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হয়। এতে দেশের সরকারি-বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মোট ৩৮টি দল অংশ নিচ্ছে।

কবি জসীম উদ্দীন হল ডিবেটিং ক্লাবের এ আয়োজনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন শাহজালাল ইসলামী ব্যাংকের চেয়ারম্যান ও এফবিসিসিআইর সাবেক সভাপতি এ কে আজাদ।

হল ডিবেটিং ক্লাব সভাপতি আরাফাত আল হোসাইনীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আল মনসুর হেলালের সঞ্চালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক নাসরীন আহমাদ।

du

উদ্বোধনী বক্তৃতায় এ কে আজাদ বলেন, অধিক সম্পদের অধিকারী হলে মানুষ আর মানুষ থাকে না, অমানুষ হয়ে ওঠে। এ কারণে মুষ্টিমেয় কিছু মানুষের হাতে অধিকাংশ সম্পদ কুক্ষিগত হয়েছে। অন্যদিকে, ভূমিহীন হয়ে পড়ছে সাধারণ মানুষ। ফলে সমাজে বাড়ছে বৈষম্য।

দেশে ৩ থেকে সাড়ে ৩ কোটি শিক্ষিত যুবক বেকার ও প্রতি বছর আরও ১০ লাখ করে মানুষ বেকার হচ্ছে বলে মন্তব্য করে তিনি বলেন, বিত্তশালী ও রাজনীতিবিদদের দায়িত্ব তাদের চাকরির ব্যবস্থা করা। আর ব্যবস্থা করতে না পারলে তাদের বেকার ভাতা দিতে হবে। কারণ কর্মসংস্থান একটি মৌলিক অধিকার।

তিনি আরও বলেন, বিত্তবানদের সন্তান ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলে পড়ে। তারপর তাদের বিদেশে পাঠানো হয়। এ কারণে তারা সাধারণ ও নিম্নবিত্ত পরিবারের সন্তানদের কথা চিন্তা করেন না। চাকরি না পাওয়ার কারণে মেধাবী শিক্ষার্থীরা মাদকাসক্তিসহ বিভিন্ন অপকর্মে জড়িয়ে পড়ছে। এরজন্য বিত্তশালীরাই দায়ী।

বিতার্কিকরা অন্যদের চেয়ে অসাধারণ ও অগ্রগণ্য থাকে উল্লেখ করে তিনি বলেন, যারা মেধা-মননশীলতা, শিক্ষা, যুক্তি ও প্রগতিশীলতায় অ্যাডভান্স তারাই এ ধরনের ক্লাবগুলোর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট থাকে। এটা কোনো সহজ কাজ না। তাদের মধ্যে ভিশন ও মিশন কাজ করে।

ডাকসুসহ ছাত্র সংসদ নির্বাচন না হওয়ায় শিক্ষার্থীরা তাদের অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ছাত্র সংসদ নির্বাচন না হলেও ফি নেওয়া হচ্ছে। এ টাকাগুলো কোথায় যাচ্ছে সেটা জানি না। আমি মনে করি ডিবেটিং ক্লাবগুলো বিতর্কের মাধ্যমে ডাকসুর শূন্যতা মুছে দিতে পারে। শিক্ষার মাধ্যমে যে বৈষম্য তৈরি হচ্ছে বিতর্কের মাধ্যমে সেটাকে আলাদা করে দেখাতে পারবেন বিতার্কিকরা।

উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক নাসরীন আহমাদ বলেন, পাকিস্তান আমল থেকে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিতার্কিকরা ঐতিহ্যবাহী ভূমিকা পালন করে আসছেন। পূর্ব ও পশ্চিম পাকিস্তানের মধ্যে বিতর্ক হলে সবসময়ই এ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা জয়ী হতেন।

তিনি আরও বলেন, যুক্তি দিয়ে কথা বললে হাতের জোরের প্রয়োজন পড়ে না। যারা বিতর্ক করে তারা যুক্তি দিয়ে কথা বলে, প্রচুর পড়াশোনা করে, শব্দ ভাণ্ডার তৈরি করে ও তাৎক্ষণিক যুক্তি উপস্থাপনের যোগ্যতা অর্জন করে।

হল প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক রহমত উল্লাহ অধ্যাপক রহমত উল্লাহ বলেন, আন্তঃক্লাব বিতর্ক প্রতিযোগিতা সারাদেশের বিতার্কিকদের নতুন বন্ধনে ও নতুন ছন্দে একত্রিত করেছে।

এতে আরও বক্তব্য রাখেন- হল ডিবেটিং ক্লাবের মডারেটর অধ্যাপক আবদুল বাছির, ঢাকা ইউনিভার্সিটি ডিবেটিং সোসাইটির(ডিইউডিএস) সাবেক সভাপতি আল আমিন চৌধুরী সুমন, হল ডিবেটিং ক্লাবের সাবেক সভাপতি ব্যারিস্টার হুমায়ুন কবির পল্লব ও সাবেক সভাপতি কামরুল হাসান এবং ডিইউডিএস সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শোয়াইব।

আয়োজক সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার দুপুরে এ প্রতিযোগিতার প্রাথমিক পর্ব শুরু হয়েছে। রোববার বিকেলে এ প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হবে।

গণমাধ্যম সহযোগী হিসেবে রয়েছে অনলাইন সংবাদ মাধ্যম বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম, দৈনিক সমকাল ও সময় টেলিভিশন।

 

ঢাকা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে