Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ২০ জানুয়ারি, ২০২০ , ৭ মাঘ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.7/5 (3 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৪-২১-২০১৪

স্পট-ফিক্সিং তদন্তে তিন সদস্যের কমিটিতে রবি শাস্ত্রী

স্পট-ফিক্সিং তদন্তে তিন সদস্যের কমিটিতে রবি শাস্ত্রী

মুম্বাই, ২১ এপ্রিল- সুপ্রিম কোর্টের সুপারিশ মেনে আইপিএল স্পট-ফিক্সিং তদন্তে তিন সদস্যের নতুন কমিটি গঠন করল ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই)৷ তিন সদস্যের নতুন কমিটিতে রবি শাস্ত্রী ছাড়াও রয়েছেন কলকাতা হাইকোর্টের প্রাক্তন প্রধান বিচারপতি জেএন পাটিল এবং সিবিআই-এর প্রাক্তন অধিকর্তা আরকে রাঘবন৷ দীর্ঘ মতানৈক্যের পর রবিবার মুম্বইয়ে বোর্ডের সদর দফরে এই তিন জনের কমিটির উপর সিলমোহর দেয় ওয়ার্কিং কমিটি৷ মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টে এই কমিটির সুপারিশ করবে বিসিসিআই।

ষষ্ঠ আইপিএল-এ ম্যাচ গড়াপেটা এবং স্পট-ফিক্সিং কাণ্ডে অপসারিত বোর্ড প্রেসিডেন্ট নারায়ণস্বামী শ্রীনিবাসন-সহ ১২ জন ক্রিকেটারের বিরুদ্ধেও তদন্ত করবে তিন সদস্যের এই কমিটি ৷ ১৬ এপ্রিল বোর্ডে শ্রীনির ফিরে আসার আবেদন খারিজ করে দেয় সুপ্রিম কোর্ট৷ পাশাপাশি সর্বোচ্চ আদালতের দুই সদস্যের ডিভিশন বেঞ্চ জানিয়ে দেয়, স্পট-ফিক্সিং কাণ্ডে বোর্ডই নিরপেক্ষ তদন্ত করবে ৷ ২২ এপ্রিলের আগে বিসিসিআই নতুন তদন্ত কমিটি করে আদালতে জানাবে৷ সেই মতো রবিবার জরুরি ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে ডাকে বিসিসিআই৷ মুম্বইয়ে বিসিসিআই-এর সদর দফতরে ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে শ্রীনি বিরোধী হওয়া উঠলেও তদন্ত কমিটির সদদ্য নির্বাচন নিয়ে শ্রীনি বিরোধী এবং শ্রীনি শিবিরের মধ্য তীব্র মতানৈক্য হয়৷ শ্রীনি বিরোধী শিবিরের নেতৃত্ব দেন প্রাক্তন বোর্ড প্রেসিডেন্ট শশাঙ্ক মনোহর।

বিদর্ভ ক্রিকেট অসোসিয়েশনের প্রতিনিধি হিসেবে এদিনের সভায় উপস্থিত ছিলেন মনোহর৷ জগমোহন ডালমিয়া, শশাঙ্ক মনোহররা তদন্ত কমিটির সদস্য হিসেবে প্রাক্তন লোকসভার স্পিকার সোমনাথ চট্টোপাধ্যায় এবং কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি জেএন পাটিলের নাম সুপারিশ করে৷ কিন্তু, শ্রীনি শিবির প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক রবি শাস্ত্রী এবং সিবিআই-এর প্রাক্তন যুগ্ম অধিকর্তা কে মাধবনের নাম সুপারিশ করে৷ মতানৈক্যের অভাবে শেষ পর্যন্ত দুই শিবিরের মতামতকে গুরুত্ব দিয়ে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেন ওয়ার্কিং কমিটির সদস্যরা৷ পাশাপাশি শ্রীনিবাসনের ভবিষ্যত ঠিক করতে আগামী মাসে বোর্ডের বিশেষ সাধারণ সভা ডাকা সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলা হয় ওয়ার্কিং কমিটিতেতবে, শ্রীনি ঘনিষ্ট বলে পরিচিত শাস্ত্রীর নেতৃত্বে তদন্ত কতটা নিরপেক্ষ হবে তা নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে!

যদিও ক্রিকেটের ম্যাচ গড়াপেটা তদন্তে রাঘবন নতুন নাম নন। ১৯৯৯-২০০০ ম্যাচ গড়াপেটায় সিবিআই তদন্তে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন তিনি৷ এবারও নিজের সেরাটা দিয়ে নিরপেক্ষ তদন্ত করার চেষ্টা করবেন বলে জানান রাঘবন৷ তিনি বলেন, ‘তদন্তে আমি  সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা  করব৷ এই ব্যাপারে আমি নতুন নয়৷ ১৯৯৯-২০০০ ম্যাচ গড়াপেটায় সিবিআই তদন্তে আমিই নেতৃত্ব দিয়েছিলাম৷ আশা করি, সেই অভিজ্ঞতা কাজে লাগবে৷’

বিহার ক্রিকেট সংস্থার সচিব আদিত্য বর্মার অভিযোগের ভিত্তিতে ষষ্ঠ আইপিএল-এ স্পট-ফিক্সিং কাণ্ডে বোর্ডের অভ্যন্তরীণ তদন্ত রিপোর্ট বাতিল করে প্রাক্তন বিচারপতি মুকুল মুদগল কমিটির হাতে তদন্ত ভার তুলে দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট ৷ মুদগল কমিটির তদন্তে নানা চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে আসে৷ রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পর বোর্ড প্রেসিডেন্ট থেকে শ্রীনিকে সরিয়ে সুনীল গাভাস্করকে দায়িত্ব দেওয়ার সুপারিশ করে সর্বোচ্চ আদালত৷ সেই মতো শ্রীনিকে সরিয়ে বোর্ডের অন্তবর্তী প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নেন গাভাস্কর৷ অন্তবর্তী বোর্ড প্রেসিডেন্ট হিসেবে আইপিএল সেভেনের দায়িত্ব সামলাছেন সানি৷ আর বোর্ডের অন্য কাজ দেখেছেন সিনিয়র ভাইস-প্রেসিডেন্ট শিবলাল যাদব৷ যিনিই রবিবারের বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন৷

ক্রিকেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে