Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ১৯ জুলাই, ২০১৯ , ৩ শ্রাবণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 5.0/5 (1 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৪-০৮-২০১৪

ক্ষমতায় গেলে অযোধ্যায় রামমন্দির করবে বিজেপি

ক্ষমতায় গেলে অযোধ্যায় রামমন্দির করবে বিজেপি

নয়াদিল্লী, ০৮ এপ্রিল- ‘হিন্দুত্বের’ ইস্যুগুলোর প্রতি দায়বদ্ধতা জানিয়েই লোকসভা নির্বাচনের দলীয় ইশতেহার প্রকাশ করেছে ভারতের প্রধান বিরোধী দল ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি)। গতকাল সোমবার সকালে দলীয় সদর দফতরে এটি প্রকাশ করা হয়। ইশতেহারে বলা হয়েছে, বিজেপি ক্ষমতায় গেলে বাবরি মসজিদের সেই বিতর্কিত স্থানে রামমন্দির নির্মাণ করা হবে। প্রতিবেশি দেশগুলোর সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখার কথা বলা হলেও বাংলাদেশ সীমান্তে উন্মুক্ত থাকা এলাকাগুলোও দ্রুত কাঁটাতারের বেড়া দিয়ে ঘিরে ফেলার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে বিজেপি।

গতকালই ভারতের ষোড়শ লোকসভা নির্বাচন শুরু হয়েছে। ৯ ধাপের এ নির্বাচনের প্রথম দফায় গতকাল আসাম ও ত্রিপুরার ছয়টি আসনে ভোট গ্রহণ হয়। এদিনই বিজেপি তাদের ইশতেহার প্রকাশ করল। সাধারণত নির্বাচন শুরু হওয়ার আগেই ইশতেহার প্রকাশ করার নিয়ম। ওই দুটি রাজ্যে নির্বাচন শুরু হয়ে যাওয়ায় সেখানে তাদের ইশতেহার প্রকাশ নিষিদ্ধ করে ভারতের নির্বাচন কমিশন।

হিন্দুত্বের ইস্যুগুলো এভাবে সামনে নিয়ে আসায় ভারতে এ ইশতেহারের সমালোচনা শুরু হয়েছে। কমিউনিস্ট পার্টি অব ইন্ডিয়া (সিপিআই) বলেছে, আরআরএসের (রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ) সঙ্গে সুর মিলিয়ে বিজেপির ইশতেহার তৈরি করা হয়েছে।

গতকালই কংগ্রেস নির্বাচন কমিশনে বিজেপির বিরুদ্ধে অভিযোগ দিয়েছে। রামমন্দির নির্মাণ উত্তর প্রদেশের অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মাণের পথ সুগম করতে সম্ভাব্য সব উপায় খুঁজে দেখার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে বিজেপি। দলটির ইশতেহার প্রণয়ন কমিটির প্রধান মুরলি মনোহর যোশী বলেন, সংবিধানের কাঠামোর মধ্যে থেকেই আমরা রামমন্দির নির্মাণ করব।

১৯৯২ সালের ৬ ডিসেম্বর বিজেপির কর সেবকসহ উগ্র হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা মিছিল নিয়ে গিয়ে বাবরি মসজিদ গুঁড়িয়ে দেয়। তারা সেখানে রামমন্দির নির্মাণের দাবি জানিয়ে আসছে শুরু থেকেই। এর আগে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বিজেপির শীর্ষ নেতারা বক্তব্য রাখেন। তাদের বিরুদ্ধে ওই ধ্বংসযজ্ঞে মদদ দেওয়ারও অভিযোগ ওঠে। ওই ঘটনায় ভারতে হিন্দু-মুসলমান দাঙ্গা ছড়িয়ে পড়ে।

বাংলাদেশ প্রসঙ্গ বিজেপি তাদের ইশতেহারে সব প্রতিবেশীর সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। তবে প্রয়োজন হলে কঠোর পদক্ষেপ নিতেও দ্বিধা করবে না বলে উল্লেখ করেছে। বাংলাদেশ-সংলগ্ন সীমান্তের যেসব এলাকায় এখনও কাঁটাতারের বেড়া দেওয়া হয়নি, সেখানে এ কাজ দ্রুত শেষ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে বিজেপি। ইশতেহারে বলা হয়, ভারতের পূর্বপ্রান্তে (বাংলাদেশ) অবৈধ অনুপ্রবেশ রুখতে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অনুপ্রবেশকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছে বিজেপি। বাংলাদেশের সীমান্ত লাগোয়া উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোয় বড় বড় অবকাঠামো নির্মাণের প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে। ইশতেহারে আরও বলা হয়েছে, ভারত বিশ্বের সব ‘নিপীড়িত’ হিন্দুকে আশ্রয় দেবে। গরু রক্ষার জন্য আইন প্রণয়নেরও কথা বলেছে বিজেপি।

ইশতেহারে অভিন্ন দেওয়ানি আইন (হিন্দু-মুসলমান সবার জন্য) প্রণয়ন এবং সংবিধানে জম্মু ও কাশ্মীরের জন্য প্রদত্ত বিশেষ ক্ষমতার ৩৭০ ধারাটি বিলোপের কথা বলেছে বিজেপি। ক্ষমতায় গেলে ভারতজুড়ে আন্তঃনদী সংযোগ পরিকল্পনা বাস্তবায়নেরও অঙ্গীকার করেছে দলটি। যেসব নদীর ক্ষেত্রে সম্ভব হবে শুধু সেগুলোতেই এ পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হবে। ইউপিএ সরকারের নেওয়া পরমাণুনীতি পরিবর্তনের কথা বলেছে বিজেপি। বিদেশি চাপ উপেক্ষা করে সামরিক ও বেসামরিক ব্যবহারযোগ্য পরমাণু কর্মসূচি গ্রহণের প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে ইশতেহারে।

প্রতিশোধমূলক স্পৃহা নিয়ে কোনো কাজ করব না: মোদি ইশতেহার প্রকাশের পর নির্বাচনে বিজেপির প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী মোদি বলেন, ইশতেহারে যা লেখা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী হলে আমি তা বাস্তবায়নে দিনরাত পরিশ্রম করব। আমার কোনো পরিবার নেই। নিজ স্বার্থে বা প্রতিশোধমূলক স্পৃহা নিয়ে কোনো কাজ করব না। প্রকাশ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন লালকৃষ্ণ আদভানি, সভাপতি রাজনাথ সিং, মুরলি মনোহর যোশী, নরেন্দ্র মোদি ও সুষমা স্বরাজ।

বিজেপির আদর্শিক সংগঠন আরএসএসের ‘এক জাতি এক দেশ’ আদর্শ অনুযায়ী ইশতেহারের মূূল স্লোগান ছিল ‘এক ভারত শ্রেষ্ঠ ভারত’। অটল বিহারি বাজপেয়ির নেতৃত্বে এনডিএ জোট সরকার গঠনের শরিকদের সমর্থন পেতে হিন্দুত্বের ইস্যুগুলো স্থগিত বলে ঘোষণা করা হয়েছিল। এবার আর তা করেনি বিজেপি।

নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ কংগ্রেসের বিজেপির ইশতেহারে অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মাণ ইস্যুর মাধ্যমে দলটি ধর্মীয় প্রসঙ্গ টেনে এনে আদর্শিক আচরণবিধি ভঙ্গ করেছে বলে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ করেছে কংগ্রেস। নির্বাচন শুরুর পর ইশতেহার প্রকাশকেও কংগ্রেস জনপ্রতিনিধিত্ব আইন ও কমিশনের নির্দেশনার লঙ্ঘন বলে অভিযোগ করেছে। কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক দিগ্গি্বজয় সিং বলেন, ‘বিজেপি ভোটের জন্য ভগবান রামকে ব্যবহার করেছে।’

দক্ষিণ এশিয়া

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে