Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯ , ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.2/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০১-১৬-২০১২

জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট : ১৬টি দল নিয়ে সম্প্রসারিত হচ্ছে চারদলীয় জোট

জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট : ১৬টি দল নিয়ে সম্প্রসারিত হচ্ছে চারদলীয় জোট
বিএনপির নেতৃত্বাধীন চারদলীয় জোট সম্প্রসারিত হচ্ছে। ছোট ছোট রাজনৈতিক দলের সমন্বয়ে এর নতুন নাম হবে ‘জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট’। ঢাকায় ১২ মার্চের মহাসমাবেশের আগেই নতুন এই জোটের আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরুর সম্ভাবনা আছে।
বিএনপির নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, নতুন জোটে ১৬টি রাজনৈতিক দল থাকছে। তবে জোটে দলের কোনো সংখ্যা নির্দিষ্ট থাকবে না। জোটের ঘোষণাপত্র এমনভাবে থাকবে, যেন যেকোনো সময় যেকোনো দল এতে অন্তর্ভুক্ত হতে পারে।
ইতিমধ্যে ঘোষণাপত্র তৈরির কাজ শুরু হয়েছে। এ জন্য দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এম কে আনোয়ারকে। তাঁর সঙ্গে আছেন ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান ও আবদুল মঈন খান। চারদলীয় জোটের ঘোষণাপত্রে কিছু পরিবর্তন এনে নতুন ঘোষণাপত্র তৈরি হবে।
মঈন খান প্রথম আলোকে বলেন, জোট সম্প্রসারণের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হয়েছে। ১৬টি দল নিয়ে এই উদ্যোগ চলছে।
বিএনপির নেতৃত্বে জোটের অপর দলগুলো হলো জামায়াতে ইসলামী, লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এলডিপি), ইসলামী ঐক্যজোট, বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি (বিজেপি), খেলাফত মজলিস, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি, জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি (জাগপা), ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এনডিপি), ন্যাশনাল পিপলস পার্টি (এনপিপি), বাংলাদেশ ন্যাপ, ন্যাপ ভাসানী, লেবার পার্টি, ইসলামিক পার্টি, মুসলিম লীগ ও মুসলিম লীগের অপর একটি অংশ।
জাগপার সভাপতি শফিউল আলম প্রধান বলেন, জোটে ১৬ থেকে ১৮টি দল থাকছে। শিগগিরই ঘোষণা আসতে পারে।
বিএনপি সূত্রে জানা গেছে, ১৬টি দলের বাইরে আরও কয়েকটি রাজনৈতিক দলের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে। এর মধ্যে আছে বিকল্পধারা বাংলাদেশ, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ ও কয়েকটি বাম রাজনৈতিক দল। তবে এদের কাছ থেকে এখনো তেমন একটা সাড়া পায়নি বিএনপি। দলটির এক নেতা বলেন, সিপিবি বা আরও কিছু বাম দল আছে, যাদের সঙ্গে বিএনপির ঐক্য হওয়া সম্ভব নয়। ওই দলগুলোর আদর্শিক কারণেই তা হবে না।
বিকল্পধারা বাংলাদেশের যুগ্ম মহাসচিব মাহী বি. চৌধুরী বলেন, তাঁদের দল বিএনপির নেতৃত্বাধীন কোনো জোটে যাচ্ছে না। তাঁরা একটি রাজনৈতিক জোট গঠনের চেষ্টা চালাচ্ছেন। এখন পর্যন্ত বিএনপির সঙ্গে যে আলোচনা হয়েছে, এর মাধ্যমে অতীতের দূরত্ব কমানোর চেষ্টা হয়েছে। এটা অনেকাংশে সফলও হয়েছে। ভবিষ্যতে হয়তো বিএনপির সঙ্গে নির্বাচনী জোট গঠন হতে পারে।
এলডিপির যুগ্ম মহাসচিব সাহাদাত হোসেন বলেন, জোট সম্প্রসারণের বিষয়ে যেকোনো সময় ঘোষণা আসতে পারে।
গত বছরের ডিসেম্বরে চারদলীয় জোটের বৈঠকে জোট সম্প্রসারণের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হয়। ওই মাসেই বিএনপির স্থায়ী কমিটির এক সভায় জোট সম্প্রসারণের আনুষ্ঠানিক অনুমোদন দেওয়া হয়।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে