Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ১৮ জুন, ২০১৯ , ৪ আষাঢ় ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০১-১৬-২০১২

অতীশ দীপঙ্কর ভার্সিটি: রেজিষ্টার কবির তালকুদারকে মারধর: ৬ হাজার শিক্ষার্থীর ভবিষ্যত অনিশ্চিত

অতীশ দীপঙ্কর ভার্সিটি: রেজিষ্টার কবির তালকুদারকে মারধর: ৬ হাজার শিক্ষার্থীর ভবিষ্যত অনিশ্চিত
উপাচার্য পদ নিয়ে সাবেক রাষ্ট্রপতি ইয়াজউদ্দিন আহম্মেদের পরিবারের সঙ্গে দ্বন্দ্বের জের ধরে অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে বেসরকারী অতীশ দীপঙ্কর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায় ৬ হাজার শিক্ষার্থীর শিক্ষা জীবন। আজ টান টান উত্তেজনার মধ্য দিয়ে এক সপ্তাহ পর বিশ্ববিদ্যালয়টি খুলছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে ঝুলিয়ে রাখা এক প্রতিবাদলিপিতে ইমতিয়াজ আহম্মেদ বাবুকে সাবেক রাষ্ট্রপতি ইয়াজউদ্দিন আহম্মেদের পালিত পুত্র উলেস্নখ করে তাঁর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষক শিক্ষর্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। আজ তাঁরা বাবুর দৃষ্টান্তমূলক শাসত্মির দাবিতে ক্যাম্পাসে মানববন্ধন করবে। এদিকে রবিবার ইমতিয়াজ আহম্মেদ বাবু জামিনে মুক্তি পেয়েছেন। আজ তিনি ক্যাম্পাসে যেতে পারেন। সংঘর্ষের আশঙ্কায় ক্যাম্পাসে বাড়তি পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
রাজধানীর গুলশান থানাধীন বনানীর বি বস্নকের ৪ নম্বর রোডের ৮৩ নম্বর ৬ তলা বাড়িতে বেসরকারী অতীশ দীপঙ্কর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় অবস্থিত। জানা গেছে, সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক ড. ইয়াজউদ্দিন আহম্মেদের পরিবার শিৰা প্রতিষ্ঠানটি চালু করেন। বিশ্ববিদ্যালয়টির গুরুত্বপূর্ণ পদেও রয়েছেন তাঁরা। সাবেক রাষ্ট্রপতির স্ত্রী অধ্যাপক ড. আনোয়ারা বেগম ২০১১ সালের এপ্রিল পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়টির উপাচার্য ছিলেন। তিনি দ্বিতীয় মেয়াদে একই পদের জন্য বর্তমান রাষ্ট্রপতি বরাবর আবেদন করেন। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুযায়ী তার সুযোগ নেই।
বিধি মোতাবেক আবুল হোসেন শিকদার বর্তমানে উপাচার্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। কিনত্ম তা মানতে নারাজ সাবেক রাষ্ট্রপতির পরিবার। এ নিয়ে বর্তমান উপাচার্যের সঙ্গে ইয়াজউদ্দিনের পরিবার দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়ে। রাষ্ট্রপতির পরিবার উপাচার্য পদ নিজেদের দখলে রাখতে নানাভাবে তৎপর হয়ে ওঠে। তারই ধারাবাহিকতায় গত ৭ জানুয়ারি রাষ্ট্রপতির স্ত্রী আনোয়ারা বেগম বর্তমান উপাচার্য আবুল হোসেন শিকদার বরাবর একটি চিঠি পাঠান। চিঠিতে জানানো হয়, তিনিসহ কয়েকজন বিশ্ববিদ্যালয়ে আসছেন। এজন্য প্রয়োজনী ব্যবস্থা নিতে। এ ব্যাপারে টেলিফোনে অনুমতি নিয়ে সরাসরি কথা বলতে বিশ্ববিদ্যালয়টির ডিন ও ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য সচিব এবং ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার কবির হোসেন তালুকদার পরদিন ৮ জানুয়ারি সাবেক রাষ্ট্রপতি ইয়াজউদ্দিনের গুলশানের বাসায় যান। সেখানে বিশ্ববিদ্যালয়ের নানা বিষয়াদি নিয়ে কথার এক পর্যায়ে রাষ্ট্রপতির পুত্র ইমতিয়াজ আহম্মেদ বাবু তার ওপর চড়াও হন। তাকে টাই ধরে টেনে হিঁচড়ে বেধড়ক মারধর করেন। পরে চরমভাবে লাঞ্ছিত করে বাসা থেকে বের করে দেয়া হয়। কবির হোসেন তালুকদার ক্যাম্পাসে ফিরে ঘটনাটি সংশিস্নষ্টদের জানান। বিষয়টি জানাজানি হয়ে গেলে শিৰক শিৰার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে বিৰোভ ছড়িয়ে পড়ে। ওইদিনই ইমতিয়াজ আহম্মেদ বাবু, তাঁর মা বিশ্ববিদ্যালয়টির সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. আনোয়ারা বেগম বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তা সিরাজুল হক এবং প্রশাসন বিভাগের পরিচালক আরিফুল বারী মজুমদারকে সঙ্গে নিয়ে ক্যাম্পাসে যান। ক্যাম্পাসে যাওয়া মাত্র তাঁরা বিৰুদ্ধ শিৰার্থীদের তোপের মুখে পড়েন। শিৰার্থীরা প্রায় ৩ ঘণ্টা তাঁদের অবরোধ করে রাখে। এক পর্যায়ে সাবেক রাষ্ট্রপতির পুত্র দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করলে বিৰুব্ধ শিৰার্থীরা তাঁর পিছু নেয়। ধাওয়া খেয়ে ইমতিয়াজ একটি কৰে আত্মগোপন করেন।
খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ ক্যাম্পাসে হাজির হয়। সাবেক রাষ্ট্রপতির স্ত্রী ও সনত্মানকে বাঁচাতে যাওয়ায় বিৰুব্ধ শিৰার্থীরা পুলিশের ওপর চড়াও হয়। খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পরে গুলশান থানা পুলিশ সাবেক রাষ্ট্রপতির স্ত্রী ও সনত্মানসহ অন্যদের উদ্ধার করে থানা হেফাজতে নেয়। সন্ধ্যা পর্যনত্ম উদ্ধারকৃতরা থানায়ই অবস্থান করেন। সন্ধ্যার পর পুলিশ পাহারায় সাবেক রাষ্ট্রপতির পুত্র ব্যতীত সবাইকে বাসায় পৌঁছে দেয়া হয়। বিৰুব্ধ শিৰার্থীদের ধাওয়া খেয়ে আহত ইমতিয়াজকে পুলিশ পাহারায় রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ওইদিনই গভীর রাতে মারধর করার অভিযোগে সাবেক রাষ্ট্রপতি পুত্রকে আসামি করে কবির হোসেন তালুকদার গুলশান থানায় মামলা দায়ের করেন। পুলিশ হেফাজতে থাকা আসামিকে গ্রেফতার দেখায়।
এমন পরিস্থিতিতে বিশ্ববিদ্যালয়টির প্রায় ৬ হাজার শিৰাথর্ীর মধ্যে নানা আশঙ্কা ছড়িয়ে পড়ে। এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিৰক-শিৰার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা এক প্রতিবাদলিপি ঝুলিয়ে রেখেছেন বিশ্ববিদ্যালয়টির মূল ফটকে। তাতে লেখা রয়েছে, নিজ বাসায় ডেকে নিয়ে সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রফেসর ড. ইয়াজউদ্দিন আহম্মেদের পালিত পুত্র ইমতিয়াজ আহম্মেদ বাবু বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিন ও ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ড. কবির হোসেন তালুকদারকে লাঞ্ছিত ও মারধরের ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিৰক, শিৰার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা তীব্র নিন্দা জানাচ্ছে। পালিত পুত্র বাবুর দৃষ্টানত্মমূলক শাসত্মিও দাবি করেন তারা।
আমাদের আদালত প্রতিবেদক জানান, রবিবার সাবেক রাষ্ট্রপতির পুত্র ইমতিয়াজ আহম্মেদ বাবুর পৰে জামিন চেয়ে ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালতে আবেদন করা হলে বিচারক মোঃ জহুরম্নল হক জামিন মঞ্জুর করেন।
বিশ্ববিদ্যালয়টির উপাচার্য আবুল হোসেন শিকদার জানান, একটি অশুভ শক্তি ক্যাম্পাসের স্বাভাবিক পরিবেশ বিনষ্ট করে অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টির পাঁয়তার করছে।
গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদনত্ম) আবু সালেহ মাসুদ করিম জানান, গত ৮ জানুয়ারির ঘটনার সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়টির প্রায় ৩৮ লাখ টাকা আত্মসাতের ঘটনার কোন যোগসূত্র আছে কি-না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।
প্রসঙ্গত, সাবেক রাষ্ট্রপতির পুত্র কতর্ৃক মারধরের শিকার হওয়া বিশ্ববিদ্যালয়টির ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার কবির হোসেন তালুকদার প্রায় ৩৮ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ২০০৯ সালের ৩০ জুন বিশ্ববিদ্যালয়টির প্রশাসন বিভাগের পরিচালক আরিফুল বারী মজুমদারের বিরম্নদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। আরিফুল বারী মজুমদার সাবেক রাষ্ট্রপতির বস্নকের লোক। গত ৮ জানুয়ারি বিৰুব্ধ ছাত্ররা যাদের অবরোধ করে রাখে তাদের মধ্যে আরিফুল বারী মজুমদার অন্যতম। পুলিশ ওইদিন সাবেক রাষ্ট্রপতির স্ত্রী, পুত্র, বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক আরিফুল বারী মজুমদার ও বিশ্ববিদ্যালয়টির উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলামকে উদ্ধার করে।
গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহ আলম  জানান, সাবেক রাষ্ট্রপতি পুত্র ইমতিয়াজ উদ্দিন আহম্মেদ জামিনে মুক্তি পেয়েছেন। আজ তাঁরা ক্যাম্পাসে যেতে পারেন। অন্যদিকে ক্যাম্পাস আজ এক সপ্তাহ পর খুলছে। এ অবস্থায় ক্যাম্পাসে বড় ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটতে পারে। যেকোন ধরনের অরাজক পরিস্থিতি মোকাবেলায় ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েনের পাশাপাশি সার্বৰণিক নজরদারি করা হচ্ছে।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে