Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শনিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ , ১০ ফাল্গুন ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০৩-২৫-২০১৪

বাংলাদেশে কোনো ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্র নেই: নির্বাচন কমিশনার

বাংলাদেশে কোনো ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্র নেই: নির্বাচন কমিশনার

ঢাকা, ২৫ মার্চ- 'বাংলাদেশে কোনো ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্র নেই। কোনো কেন্দ্র গুরুত্বপর্ণ, কোনো কেন্দ্র অধিক গুরুত্বপূর্ণ। এগুলো নির্ধারণ করা হয় যোগাযোগ-পরিবেশগত কারণে। প্রার্থীরা বলে থাকেন—ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্র, সেটিই প্রচলিত হয়ে গেছে প্রশাসনের কাছে। প্রকৃত অর্থে সাংবিধানিকভাবে ঝুঁকিপূর্ণ বলতে কিছুই নেই। শ্রীপুর উপজেলার ১২৬টি ভোট কেন্দ্রই গুরুত্বপূর্ণ।'

আজ মঙ্গলবার উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে স্থানীয় উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক আয়োজিত নির্বাচনী মতবিনিময় সভায় গাজীপুর জেলার শ্রীপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রার্থী, ভোটার, উপজেলা প্রশাসন, সুধী ও প্রেস-মিডিয়ার সংবাদকর্মীদের সাথে মতবিনিময়কালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) মো. জাবেদ আলী এ সব কথা বলেন।

নির্বাচন কমিশনার বলেন, 'কে কোন দলের—নির্বাচন কমিশনের কাছে এটি গুরুত্বপূর্ণ নয়। প্রার্থীরা আচরণ-বিধি সংক্রান্ত যে সমস্ত অভিযোগ নির্বাচন কমিশনে করে থাকেন, প্রতিটি অভিযোগ সময় বিশেষে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। তাই মিথ্যা অভিযোগ দিলে সেটি নির্বাচনের আগে বা পরে হলেও অবশ্যই আইগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। নির্বাচন কমিশন কোনো আইন তৈরি করে না, সাংবিধানিকভাবে আইনের প্রয়োগ করে মাত্র।'

মো. জাবেদ আলী বলেন, 'শ্রীপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তারিখ ছিল ১৫ মার্চ, অনিবার্য কারণে ভোট গ্রহণ স্থগিত করতে হয়েছিল। বর্তমানে উপজেলার সার্বিক আইন-শৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকায় নির্বাচন কমিশন আগামী ৩১ মার্চ নির্বাচনের তারিখ ফের ঘোষণা করে। উপজেলার বেশ কিছু অঞ্চল আছে, যেখানে বিদ্যুত্ নেই, রাস্তা-ঘাট অসমতল, যানবাহনের অপ্রতুলতা থাকায় সময়মতো ভোট প্রয়োগের কার্যক্রম শেষ করা হবে। কমিশনের কাছে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দী সকল প্রার্থী সমান, বিশেষ কোনো দলকে কমিশন বাড়তি গুরুত্ব দেয় না। এ ছাড়া, সকল ভোটার বিনা বাধায় ভোট কেন্দ্রে আসবেন এবং ভোট দিতে পারবেন—এমন ব্যবস্থাই গ্রহণ করা হয়েছে। কোনো ভোটারই অতীতের মতো ভোট কেন্দ্রে গিয়ে দেখবেন না যে, তার ভোট আগেই দেয়া হয়ে গেছে। এমন দিন আর নেই।'

প্রার্থীদের উদ্দেশে নির্বাচন কমিশনার বলেন, 'আপনারা প্রত্যেকে নির্বাচনী আচরণ-বিধি মেনে চলবেন। কেউ আচরণ-বিধি লঙ্ঘন করবেন না। ভোট গ্রহণের দিন কোনো প্রার্থীর কোনো অভিযোগ থাকলে কমিশনের ৮৮ বিধি মোতাবেক তা বিকাল ৪টার মধ্যে করবেন।'

কাপ-পিরিচ প্রতীকের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আ. মোতালেবের এক প্রশ্নের জবাবে কমিশনার বলেন, 'অযাচিত বা মিথ্যা বা অনুমান-নির্ভর অভিযোগ করা থেকে বিরত থাকবেন। এমন কোনো অভিযোগ বা বিভ্রান্তিকর বা অপপ্রচার ছড়াবেন না, যাতে সাধারণ ভোটাররাা বিপাকে পড়েন।'

ঘোড়া প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী শামসুদ্দিন খন্দকারের প্রশ্নের জবাবে মো. জাবেদ আলী বলেন, 'উপযুক্ত সাক্ষ্য-প্রমাণসহ কমিশনে অভিযোগ দাখিল করুন। অবশ্যই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।'

গাজীপুর জেলা প্রশাসক মো. নুরুল ইসলামের সভাপতিত্বে এবং শ্রীপুরের সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাজমুল ইসলাম ভূইয়ার পরিচালনায় সভায় বক্তব্য দেন গাজীপুরের পুলিশ সুপার আ. বাতেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ও রিটার্নিং অফিসার শাহনওয়াজ দিলরুবা খান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার আজীজ হায়দার ভূইয়া।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে