Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ১২ আগস্ট, ২০২০ , ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৩-২১-২০১৪

বাড়ছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজের যৌনজীবন শেয়ার করার প্রবণতা

বাড়ছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজের যৌনজীবন শেয়ার করার প্রবণতা

আজকাল বিভিন্ন ওয়েবসাইটে নিজেদের যৌনজীবন শেয়ার করতে দেখা যায় বহু মানুষকে। আর ক্রমশ বাড়ছে এই প্রবণতা। ২০০৮ সালের একটি বইতে বিল ট্যানসার জানান ইন্টারনেট ব্যবহারের ক্ষেত্রে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো অন্যান্য ক্ষেত্রের পর্নোগ্রাফিকে পেছনে ফেলে দিচ্ছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো এখন একটা বড় সমস্যার মুখোমুখি। তা হলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চলে আসা নানান রকম পর্নোগ্রাফি ও ব্যক্তিগত যৌন জীবন সম্পর্কিত তথ্য। অনেক ইউজারই এসব নিয়ে বিব্রতকর অবস্থায় পড়ছেন। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে গার্ডিয়ান।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের জোয়ারে পর্নোগ্রাফি প্রথমে খানিকটা পিছিয়ে পড়লেও এরপর নতুন কিছু ওয়েবসাইট যুক্ত হয় যেগুলোর ব্যবহারকারীরা তাদের যৌনজীবন অনলাইনে শেয়ার করে (যেমন ফেসবুকের পর্নো ভার্সন ও ইন্সটাগ্রামের পর্নো ভার্সন)। এসব ওয়েবসাইটের ব্যবহারকারীর সংখ্যাও কম নয়।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কেন পর্নোগ্রাফি চলে আসে এ প্রশ্নে ইউনিভার্সিটি অফ সাসেক্সের সিনিয়র লেকচারার শরিফ মওলাবকাস বলেন, পর্নোগ্রাফি সম্পূর্ণভাবে অসামাজিক বিষয়, এটি একটি নতুন ধারণা। অতীতেও পর্নোগ্রাফির সঙ্গে সামাজিক যোগাযোগের ঘনিষ্ঠতা পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ১৯২০ ও ১৯৩০ দশকে পর্নোগ্রাফির অডিও ভার্সন এসেছিলো। যেগুলো মানুষ সাধারণত গ্রুপ করেই শুনতো বলে তিনি জানান। এছাড়া তিনি ১৯৪০ সালের পর্নোগ্রাফি মুভির কথাও উল্লেখ করেন, যেগুলো সিনেমা হলে প্রদর্শিত হতো। তিনি বলেন, ‘এগুলো গোপন, তবে এগুলো সামাজিকও বটে।’

খুঁজে পেতে আমাদের দেশেও দেখা যাবে এর বিস্তার। শুধু সেলিব্রেটি নায়ক-নায়িকা নন, বহু ফেসবুকারকে দেখা যায় নিজেদের একান্ত ব্যক্তিগত মুহূর্তের ছবি ফেসবুকে শেয়ার করতে। বিষয়টি নিয়ে আর তাদের মাঝে জড়তা কাজ করছে না। কমবয়সী তরুণ তরুণীদের মাঝে এই প্রবণতা আরও অনেক বেশি।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে