Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ২১ জানুয়ারি, ২০২০ , ৭ মাঘ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.8/5 (94 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৩-১৫-২০১৪

নালায় ছুঁড়ে ফেলে দেয়া সদ্যোজাত এক কন্যা শিশু

রুমানা বৈশাখী


নালায় ছুঁড়ে ফেলে দেয়া সদ্যোজাত এক কন্যা শিশু

চট্টগ্রাম, ১৫ মার্চ- ছবির ফুটফুটে শিশুটিকে দেখছেন? শিশুটির বয়স এই মুহূর্তে ২/৩দিন কিংবা হয়তো ৪/৫ দিন... সত্যটা জানার উপায় নেই কোনো। কেননা এই শিশুটিকে পাওয়া গিয়েছে চট্টগ্রামের একটি ড্রেনের নালায়। হ্যাঁ, জন্মের পর মুহূর্তেই তাঁকে ছুঁড়ে ফেলা হয়েছে নিদারুণ অবহেলায়। সন্দেহ নেই যে মা তাঁকে জন্ম দিয়েছেন, এই কুকীর্তি তারই করা।

কে এই শিশুটি? কোন বড়লোকের অবৈধ সন্তান? হবে হয়তো। কেননা যৌনকর্মীর ঘরে সন্তান হলেও তাঁকে সাদরে বরণ করা হয়, অন্তত ভবিষ্যতের কথা ভেবে। গরিবের ঘরেও সন্তান আগমনকে "আল্লাহ দেখবেন" ভেবে গ্রহণ করা হয়। বাকি থাকে কে? কেবল ধনীরাই। হয়তো এই শিশুটি কোনো ধনীর দুলালির অবৈধ সন্তান, কিংবা হয়তো কোনো কাজের মেয়ের গর্ভে জন্ম নেয়া ধনী পুরুষের লালসার প্রমাণ। কিংবা হয়তো কোনো ধর্ষিতার নির্যাতিত কাহিনীর বয়ান।

বিষয়টা কী? জানার উপায় নেই কোনো। কেননা তাঁকে ছুঁড়ে ফেলে দেয়া হয়েছে নালায়। ছুঁড়ে ফেলে দেয়া হয়েছে মরে যাওয়ার জন্য। গত ১৩ই মার্চ এই সদ্যোজাত কন্যা শিশুটিকে খুঁজে পাওয়া যায় চট্টগ্রামের ২ নং গেটের মেয়রগলি এলাকার একটি নালায়। শিশুটি কেঁদে উঠলে টের পায় পাশেই কর্মরত ময়লাওয়ালা! আর পৃথিবীতে আসা নতুন এ অতিথির সংবাদটি ময়লাওয়ালার কাছ থেকে চলে যায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী তানজিনা উর্মীর কানে। একজন ময়লাওয়ালা, কয়েকজন অল্প বয়সী তরুণ তরুণী মিলে শিশুটিকে উদ্ধার করে নিয়ে চলে যায় উপযুক্ত চিকিৎসার খোঁজে।

যে তরুণী মেয়েটি এই শিশুটিকে উদ্ধার করে, মেয়েটির নাম তানজিমা ঊর্মি। এই কমবয়সী মেয়েটি তাঁর বন্ধুদের সাহায্যে রক্ষা করে শিশুটির প্রাণ। ছবিতে ঊর্মির কোলেই দেখছেন আপনারা শিশুটিকে। মার্চের ১৩ তারিখে ফেসবুকে এই ছবিটি আপলোড করে ঊর্মি লেখেন-

"নালায় ফেলে যাওয়া একদিনের বাচ্চাটাকে মেডিকেল নিয়ে গেলাম। অশেষ ধন্যবাদ ময়লাওয়ালা, ওমর, বর্ষন যারা আমাকে অনেক সাহায্য করেছে বাচ্চাকে বাঁচাতে। নাম দিয়েছি 'নিধি'। সবাই দোয়া করবেন নিধির জন্যে। আপনাদের জানাশুনা কেউ দত্তক নিতে চাইলে যোগাযোগ করুন।"

তানজিনা তার ছবিটির কমেন্টেসে আরো উল্লেখ করেন, "এভাবে কতো শিশু যে মারা যাচ্ছে, আমরা তার খবর পাই না। আল্লাহর অশেষ কৃপা যে আমার ভাগ্য হয়েছে, সব না হলেও একটা শিশুকে বাঁচানোর।"

আপনাদের মাঝে কেউ কী আছেন? হৃদয়বান এমন কেউ, যে এই শিশুটিকে একটি ঘর দিতে পারেন? সন্তানের মত ভালোবাসায় মানুষ করতে পারেন? আমরা খুব চাইবো, একজন হৃদয়বান/হৃদয়বতী মানুষ এই শিশুটিকে বুকে টেনে নিক। নিদেনপক্ষে একটু সাহায্য করুক একটা ঘর খুঁজে পেতে? আপনাদের নজরে আছেন কি নিঃসন্তান কেউ, যারা হয়তো একটি শিশু দত্তক নিতে আগ্রহী?

তানজিমা ঊর্মি, লক্ষ্মী আপুটা তোমাকে স্যালুট। অন্তরের একদম অন্তঃস্থল থেকে স্যালুট। আর ভালোবাসা অন্তহীন। এমন একটা কাজ তুমি করেছ, যেটা সবাই করতে পারে, কিন্তু কেউ করে না। কেউ না। কারণ অনেক বড় একটা অন্তর থাকতে হয় এই কাজের জন্য। অনেক বড়।

আমাকে কেউ বলতে পারেন, আমরা এত খারাপ কেন? জন্ম যখন দিয়েই ফেলেছেন, তখন মেরে ফেলতে কেন চান? কেন এই পৃথিবীর আলো হাওয়া থেকে তাঁর অধিকার কেড়ে নিতে চান? কেন? যাতে সে আপনার কুৎসিত কর্মকাণ্ড প্রকাশ করতে না পারে?

হাতজোড় করে বলি... মেরে ফেলবেন না। একটু দয়া করেন, মেরে ফেলবেন না। কোথাও রেখে আসুন। একটা মসজিদ, মন্দির, গির্জার সামনে। কারো ঘরের দুয়ারে, নিদেন পক্ষে একটা পাবলিক প্লেসে ফেলুন। যেন অনন্ত কেউ একজন শিশুটির প্রাণ রক্ষা করতে পারে। আপনি নিষ্ঠুর, পুরো পৃথিবী তো না!

চট্টগ্রাম

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে