Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ১১ নভেম্বর, ২০১৯ , ২৭ কার্তিক ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.4/5 (17 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০৩-১৪-২০১৪

আওয়ামী লীগ একসময় জামায়াতকে নিয়ে আন্দোলন করেছে

আওয়ামী লীগ একসময় জামায়াতকে নিয়ে আন্দোলন করেছে

ঢাকা, ১৪ মার্চ- ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য আওয়ামী লীগ জামায়াতকে সঙ্গে নিয়ে বিএনপির বিরুদ্ধে একসময় আন্দোলন করেছিল বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি নেতা ও ঢাকা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকা।

তিনি বলেন, জামায়াত হচ্ছে ভিন্ন রাজনৈতিক দল, তারা তাদের রাজনীতি করে আর বিএনপি তার রাজনীতি করে। এক সময় আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য জামায়াতকে সঙ্গে নিয়ে বিএনপির বিরুদ্ধে আন্দোলন করেছে। আর এখন বলছে জামায়াত ও শিবির সন্ত্রাসী দল।

খোকা বলেন, জামায়াত-শিবিরকে সভা সমাবেশ করতে দিন, দেখুন শিবির যদি সমাবেশের সময় পুলিশ বা অন্য কাউকে মারে কি-না তখন দেখুন।

সরকারের উদ্দেশে বিএনপির এই নেতা বলেন, আপনি শিবিরকে আন্দোলন বা সমাবেশ করতে অনুমোদন দিলেন না আর হঠাৎ করে বলেন, শিবির সন্ত্রাসী দল। আপনি তাদের গণতান্ত্রিক আন্দোলন করতে দিন।

বৃহস্পতিবার রাতে বেসরকারি টেলিভিশন এসএ টিভির লেট নাইট এডিশন অনুষ্ঠানে সাদেক হোসেন খোকা এসব কথা বলেন।

ঢাকা সিটি কপোরেশনের নির্বাচনে সরকার দলীয় প্রার্থীরা বিজয়ী হয়ে আসতে পারবেন না জেনে আওয়ামী লীগ সরকার নির্বাচন দিচ্ছে না বলে অভিযোগ করেন তিনি।

খোকা বলেন, সরকার গণতান্ত্রিক আচরণ না করলে এর মাশুল একদিন তাদের দিতে হবে। আন্দোলন এখনো শেষ হয়নি, আমরা স্বৈরাচার এরাশাদকে ৯ বছর আন্দোলন করে ক্ষমতা থেকে নামিয়েছি। আন্দোলনে মাধ্যমে এ সরকারকেও নামানো হবে।

তিন বলেন, ইতিহাসে এমন নজির নেই যে, অত্যাচারী সরকার চিরদিন ক্ষতায় থাকে। আপনারা দেখবেনএ সরকারও থাকবে না।

বিএনপির এই ভাইস চেয়ারম্যান বলেন, “একজন দলীয় বিচারপতি দিয়ে সংবিধান সংশোধন করে সরকার একটি বিতর্কিত নির্বাচন করে ক্ষমতায় রয়েছে। আমি মনে করি সংবিধান সংশোধন করার জন্য আবারো আন্দোলন করতে হবে।”

সাবেক মেয়র বলেন, “সারাদেশের মানুষ মনে করছিল আন্দো্লন হবে কিন্তু সরকারের অগণতান্ত্রিক আচরণে কারণে তা হয়নি। কিন্তু আমাদের সরকার যখন ক্ষতায় ছিল তখন তো দেশের সব রাজনৈতিক দল তাদের আন্দোলন করতে পেরেছে। আর আজ আওয়ামী লীগ সরকার তা করতে দেয়নি। জনগণকে রাস্তায় নামামাত্র গুলি চালিয়েছে।”

তিনি বলেন, “আইয়ুর খান, স্বৈরাচার এরশাদকে এ সরকার হার মানিয়েছে। এ সরকার ফ্যাসিবাদী সরকার। আন্দোলনের মাধ্যমে আমরা জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করবো।”

সাবেক মেয়র বলেন, “ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার বাসায় আসতে চেয়েছিলেন। তাদের পুলিশ ও ছাত্রলীগের কর্মীদের দিয়ে বাধাসহ নানা হয়রানি করা হয়েছে।”

তিনি বলেন, “৯১ সালে আমি বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে পরাজিত করেছি। এ পরাজয় আমার জন্য হয়নি, এটা বেগম খালেদা জিয়ার জন্য হয়েছে।”

মহানগর আহ্বায়কের পদ ছাড়ছেন কেন? এমন প্রশ্নের জবাবে সাদেক হোসেন খোকা বলেন, “আমি হঠাৎ করে তো মহানগরের আহ্বায়ক পদ ছেড়ে দেয়ার ঘোষণা দিইনি। আমি জেল থেকে বের হওয়া এবং জেলে যাওয়ার আগে বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে কথা বলেছি। আমি দল ছাড়িনি, আমি দলে ভাইস চেয়ারম্যান পদে আছি। বেগম খালেদা জিয়া আমাকে যে পদে রাখবে আমি সেই পদে থাকবো।”

ঢাকা সিটি করপোরেশন প্রসঙ্গে সাবেক মেয়র বলেন, “আমি ৯ বছর ৯ মাস মেয়রের দায়িত্ব পালন করেছি। প্রতিটি পাড়া মহল্লায় আমি গিয়ে সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করেছি। অনেক উন্নয়ন করেছি। কিন্তু এখন মহানগরে অনেক সমস্যা বাড়ছে। আমরা জনগণের জন্য রাজনীতি করি। এ জন্য ক্ষতায় যাওয়ার প্রয়োজন মনে করি।”

৫ জানুয়ারি নির্বাচন বাতিলের জন্য আপনি ও মহানগরে কেউ মাঠে নামেননি-এর কারণ কী? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “আমি জানি এখনো মহানগর বিএনপি শক্তিশালী। গুলির কারণে অনেক নেতাকর্মী রাস্তায় নামেননি এটা ঠিক, তবে এ দোষ আমার একার নয়, সবার এ দায় নিতে হবে।”

তিনি বলেন, “এখন ঢাকা মহানগরে রাস্তা-ঘাটের অনেক সমস্যা রয়েছে, তা দেখার কেউ নেই। আগে আমি এবং ওর্য়াড কমিশনার দেখতাম এবং সমস্যা সমাধান করতাম এখন কে করবে। যারা আছে তারা সরকারি কর্মচারী। তারা জনগণের সমস্যা বুঝবে না।”

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে