Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ২১ মে, ২০১৯ , ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.1/5 (31 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০৩-০৮-২০১৪

ক্ষমতায় থাকতেই ৫০ হাজার পুলিশ নিয়োগ দিচ্ছে সরকার

ক্ষমতায় থাকতেই ৫০ হাজার পুলিশ নিয়োগ দিচ্ছে সরকার

ঢাকা, ০৮ মার্চ- ক্ষমতায় থাকার প্রয়োজনেই ৫০ হাজার পুলিশ নিয়োগ হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, শুনলাম ৫০ হাজার পুলিশ নিয়োগ দেওয়া হবে। সেটা তো ভালো কথা। কিন্তু এসব পুলিশ নিজেদের প্রয়োজনে ব্যবহার করা হবে। দেশকে তারা একটি পুলিশি রাষ্ট্রে পরিণত করেছে।

শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে বিএনপি আয়োজিত তারেক রহমানের ৮ম কারামুক্তি দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল ইসলামী আলমগীর আরও বলেন, দেশের মানুষ শান্তিতে নিঃশ্বাস নিতে চায়। তাই দেশের মানুষ সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আওয়ামী দুঃশাসন থেকে দেশকে রক্ষা করবে। তিনি বলেন এদেশের শান্তিকামী জনতা আওয়ামী লীগকে আর ক্ষমতায় দেখতে চায় না।

তিনি বলেন, দেশ আজ গভীর সংকটে পড়েছে। স্বাধীনতার পর আর কখনই এমন সংকটে পড়েনি উল্লেখ করে ফখরুল বলেন, ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ অক্টোপাসের মতো গণতন্ত্রকে গলা টিপে হত্যা করেছে।

সভাপতির বক্তব্যে মির্জা ফখরুল বলেন, এই দেশের মানুষ এই সরকারকে আর ক্ষমতায় দেখতে চায় না। তারেক প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আসুন, তারেককে ফিরিয়ে আনুন, দেশের মানুষকে এই সরকারের অত্যাচার থেকে বাঁচান।

তিনি বলেন, তারেক রহমানের পরিচয় শুধু জিয়া ও খালেদা জিয়ার সন্তান হিসেবে নয়। দেশের মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার রাজনীতি করেন বলেই এই পরিচিতি। তাই তাকে ষড়যন্ত্র করে কারাবন্দি করা হয়েছিল। তিনি বলেন, খুবই অল্প সময়ে তৃণমূলের ভেতরে গিয়েছেন তারেক, জিয়ার মতো। এখন ডিজিটাল বাংলাদেশের কথা বলা হয়, কিন্তু তারেক তখনই তা প্রয়োগ করেছিলেন।

ফখরুল বলেন, জিয়াউর রহমানের রাজনীতি এখনো দেশের মানুষকে উৎসাহিত করছে, তার রাজনীতি দেশের মানুষের মুক্তির রাজনীতি, মাথা উঁচু করে চলার রাজনীতি।

তিনি বলেন, এখন কেন দেশের এ অবস্থা তা বুঝতে হবে। দেশের মানুষকে যারা অকার্যকর করে রাখতে চায়, তারাই ষড়যন্ত্র করে। সজীব ওয়াজেদ জয় দেশে এলে আমরা স্বাগত জানাই। অন্যদিকে তারা সারাক্ষণ তারেকের বিরুদ্ধে বিষোদগার করে যায়। ফখরুল বলেন, আমরা চাইবো, তারেক দ্রুত দেশে ফিরুন, চলমান সংকট কাটানোতে তিনি নেতৃত্ব দিন। দেশে এখন চরম সংকট। অবৈধ একটি সরকার দেশের মানুষের ওপর জগদ্দল পাথরের মতো চেপে বসেছে।

তিনি বলেন, উপজেলা নির্বাচনে প্রমাণ হয়েছে আওয়ামী লীগের অধীনে কোনো নির্বাচন নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু হতে পারে না। এই নির্বাচন দেশের মানুষের কাছে তো বটেই, পৃথিবীর কোনো মানুষের কাছেই গ্রহণযোগ্য হয়নি। বিচার বিভাগ, প্রশাসনসহ সবকিছু ধ্বংস করছে।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ বলেন, দেশে এখন গণতন্ত্র নেই। যা আছে সেটা সীমিত এবং সরকার নিয়ন্ত্রিত। দেশের সার্বিক পরিস্থিতে উদ্বেগ প্রকাশ করে তিনি বলেন, আজ দেশের যে অবস্থা চলছে তার জন্য তো ভাষা আন্দোলন করিনি, আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলায় আইনি লড়াই করিনি।

দেশে এখন অস্বাভাবিক পরিস্থিতি বিরাজ করছে উল্লেখ করে মওদুদ বলেন, শুধু বক্তব্য দেয়ার জন্য ৭৫ বছর বয়সে আমাকে তিন মাস জেল খাটতে হয়েছে।

অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন- বিএনপির সহ দফতর সম্পাদক শামীমুর রহমান শামীম ও আসাদুল করিম শাহিন।

সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক নাজিমুদ্দিন আলম, যুব বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, ঢাকা মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব আবদুস সালাম,মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক শিরিন সুলতানা, ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল হক নাসির প্রমুখ।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে