Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, রবিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ , ৪ ফাল্গুন ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.8/5 (47 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০২-২৬-২০১৪

কোথায় আছেন, কেমন আছেন শ্রাবস্তী দত্ত তিন্নি?

কোথায় আছেন, কেমন আছেন শ্রাবস্তী দত্ত তিন্নি?

ঢাকা, ২৬ ফেব্রুয়ারী- এক ঝলমলে নক্ষত্রের মতন মিডিয়া জগতে প্রবেশ, রাতারাতি বনে যাওয়া দর্শকের হৃদয়ের রানী। রাতারাতি তারকা হয়ে যাওয়া তিন্নি কি বেসামাল হয়ে পড়েছিলেন নিজের তারকা খ্যাতিতেই? সমালোচকদের ধারণা তেমনই। আকাশচুম্বী জনপ্রিয়তা, ছোট পর্দা হতে বড় পর্দায় প্রবেশ, নেশায় আসক্তি, হিল্লোলের সাথে ডিভোর্স... শ্রাবস্তী দত্ত তিন্নির ক্ষেত্রে এইসবই এখন পুরনো সংবাদ। বহুকাল যাবত মিডিয়ার চোখের আড়ালে আছেন এই তারকা। কোথায় আছেন? আর কেমন আছেন?

শেষবার তিন্নির দেখা মিলেছিল ফেসবুকে। লম্বা বিরতি ভেঙে ২ও১৩ সালে ফেসবুকে নিজের একটি ছবি প্রকাশ করে ব্যাপকভাবে আলোচনায় আসেন শ্রাবস্তী দত্ত তিন্নি। ফেসবুকে তাঁর কঙ্কালসার ছবিটি সারাদেশে ভক্ত-দর্শক-সমালোচকদের মাঝে তোলপাড় সৃষ্টি করেছিল সে সময়ে। এখনও তাঁর ফেসবুক টাইমলাইনে সেই ছবিটিই দেখা যায়।

একথা এখন সকলেই জানেন যে বিগত বছরগুলোতে শ্রাবস্তী তিন্নির পারিবারিকভাবে নজরবন্দি থাকার কারণ ‘ড্রাগস' আসক্তি। এর মধ্য থেকেই অনেক চেষ্টা তদবির করে নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরী গেল বছর তিন্নিকে নাটকে ফেরান। ২০১৩ সালের প্রথম দিন অপূর্বকে সঙ্গে নিয়ে শুটিং করেন ‘এই মায়া' নামের একটি নাটক। জানা গেছে, এই নাটকের সুবাদে আবারও ঘর থেকে বাইরে যাবার সুযোগ হয় তিন্নির। সেই সূত্রে আবারও ‘ড্রাগস'-এ আক্রান্ত হন তিনি। এরপর তাকে পারিবারিক উদ্যোগে ঢাকা-কলকাতার বিভিন্ন রিহ্যাবেও চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, সম্পূর্ণ সুস্থ না হবার কারণে তিন্নি এখনও বাবা-মা'র তত্ত্বাবধানে আছেন। সময় কাটছে ইস্কাটনস্থ সরকারি কোয়ার্টের। সঙ্গে আছেন একমাত্র কন্যা ওয়ারিশাও। যদিও মেয়ের দেখাশোনা করেন তিন্নির পিতা-মাতা। বড়জোর আত্মীয়-স্বজনদের বাসায় আসা যাওয়া করতে পারছেন কঠোর নজরদারির মধ্যে।

অন্যদিকে তিন্নির প্রাক্তন প্রেমিক-স্বামী আদনান ফারুক হিল্লোলও পুনরায় প্রেম করেছেন, ব্যস্ত হয়েছেন অভিনেত্রী-উপস্থাপিকা নওশীনের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়ে। সমালোচকরা বলছেন, হিল্লোল এখন খুব সুখী নওশীন আর তার পুরনো সংসারের পুত্রকে নিয়ে। তিন্নি বা কন্যাকে নিয়ে বিশেষ ভাবছেন না তিনি। অন্যদিকে তিন্নির পরিবারও চাইছে না হিল্লোলের সুবাদে সৎমা নওশীনের সংস্পর্শে থাকুক ছোট্ট শিশু ওয়ারিশা।

বিশ্লেষকরা বলছেন, মিডিয়ায় তিন্নির সমস্ত সম্ভাবনা এখানেই শেষ!

নাটক

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে