Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ২২ জানুয়ারি, ২০২০ , ৯ মাঘ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.5/5 (44 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০২-২৪-২০১৪

ইউক্রেনে রুশ হস্তক্ষেপের বিরুদ্ধে মার্কিন হুঁশিয়ারি

ইউক্রেনে রুশ হস্তক্ষেপের বিরুদ্ধে মার্কিন হুঁশিয়ারি
রোববার হোয়াইট হাউসে উড়ছে ইউক্রেন ও ইউউ পতাকা

ওয়াশিংটন, ২৪ ফেব্রুয়ারী- ইউক্রেনে রাশিয়ার সম্ভাব্য সামরিক হস্তক্ষেপের বিরুদ্ধে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। এদিকে প্রেসিডেন্ট ভিক্টর ইয়ানোকোভিচ ক্ষমতাচ্যূত হওয়ার পর উদ্ভূত পরিস্থিতিতে কিয়েভ থেকে রুশ রাষ্ট্রদূতকে ডেকে পাঠিয়েছে মস্কো।

মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা সুসান রাইস বলেছেন, ইউক্রেনে সেনা পাঠালে তা হবে রাশিয়ার জন্য মারাত্মক রকমের ভুল। তিনি বলেন, ইউক্রেন, রাশিয়া, ইউরোপ অথবা যুক্তরাষ্ট্র কারো জন্য দেশটিকে বিভক্ত করে ফেলা মঙ্গলজনক হবে না। দেশটিতে সহিংসতা ফিরে আসুক এবং তা আরো ছড়িয়ে পড়ুক কেউ তা দেখতে চায় না। রোববার এনবিসি’র মিট দ্যা প্রেস অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেছেন সুসান রাইস।
 
মার্কিন নিরাপত্তা উপদেষ্টা দাবি করেন, রাশিয়ার সঙ্গে ধীর্ঘদিন ধরে থাকা ইউক্রেন আর আধুনিক ইউক্রেন- যে কিনা ইউরোপের সঙ্গে অনেক বেশি ঘনিষ্ঠ হতে চায় তার অবস্থা এক নয়। ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক বাহিনীর হস্তেক্ষেপের আশংকা আছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে রাইস এ কথা বলেন।
 
অনুষ্ঠানের সঞ্চালক ডেভিড গ্রেগোরি জানতে চান- পূর্ব ইউরোপের দেশগুলোকে প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন স্নায়ু যুদ্ধের সময়কার প্রেক্ষাপটে দেখতে চাইছেন কিনা। জবাবে রাইস সে সম্ভাবনার কথা স্বীকার করে  বলেছেন- ‘হতে পারে।’ তিনি আরো বলেন, এমনটি হলে তা ইউক্রেনের জনগণের সঙ্গে মানানসই হবে না।

এদিকে ইউক্রেনের বর্তমান পরিস্থিতিকে ভয়াবহ উল্লেখ করে কারাকাসে নিযুক্ত রুশ রাষ্ট্রদূত মিখাইল জুরামভকে  রোববার প্রত্যাহার করে নিয়েছে মস্কো। শনিবার পার্লামেন্ট কর্তৃক প্রেসিডেন্ট ইয়ানুকোভিচকে অপসারিত করার ঘটনারও কঠোর নিন্দা করেছে রাশিয়া।

তবে ইউক্রেনের অন্তর্বর্তী প্রেসিডেন্ট ওলেস্কান্দর তুর্কিনোভ ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে সম্পর্ক ঘনিষ্ঠ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন। রোববার জাতির উদ্দেশে দেয়া এক ভাষণে তিনি বলেন,‘আমরা ইউরোপীয় দেশগুলোর কাছে ফিরে যাচ্ছি।’ দেশটির রাজনৈতিক এবং অর্থনৈতিক সংকট উত্তরণের উপায় খুজে বের করতে সোমবার কারাকাস সফরে যাচ্ছেন ইইউর পররাষ্ট্র প্রধান ক্যাথেরিন অ্যাস্টোন।

ইয়ানুকোভিচকে ক্ষমতাচ্যূত করার পর পররাষ্ট্র মন্ত্রী এবং শিক্ষামন্ত্রীকেও বরখাস্ত করা হয়েছে। সাবেক ইনকাম ট্যাক্সমন্ত্রী ওলেকসানদর ক্লিমেনকো এবং সাবেক প্রসিকিউটর জেনারেল ভিক্টর পুসোনকার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। এছাড়া সাবেক প্রেসিডেন্ট ইয়ানুকোভিচের বিলাসবহুল বাড়িটি বাজেয়াপ্ত করার উদ্যোগ নিচ্ছে পার্লামেন্ট।

প্রসঙ্গত, গত বছরের নভেম্বরের শেষদিকে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে একটি বাণিজ্য চুক্তিতে না গিয়ে রাশিয়ার কাছ থেকে বড় অংকের ঋণ নেন ইয়ানুকোভিচ। এরপর থেকে তার সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে, যা গত দুদিন ধরে ব্যাপক রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে রূপ নেয়। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সূত্রে জানা গেছে, ইউক্রেনের সরকারবিরোধী আন্দোলনে গত ১৮ ফেব্রুয়ারি থেকে এ পর্যন্ত ৮৮ জন প্রাণ হারিয়েছে যাদের সিংহভাগ ছিলেন বিক্ষোভকারী।

ইউরোপ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে