Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারি, ২০২০ , ১১ মাঘ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.8/5 (25 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০২-১৯-২০১৪

রাজীব গান্ধী হত্যা: মুক্তি পাচ্ছেন ৭ আসামি

রাজীব গান্ধী হত্যা: মুক্তি পাচ্ছেন ৭ আসামি

নয়াদিল্লী, ১৯ ফেব্রুয়ারী- রাজীব গান্ধী হত্যাকাণ্ডে দণ্ডিত ৭ জনকে মুক্তি দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তামিলনাড়ু সরকার।

রাজ্য সরকারের মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতার মন্ত্রিসভা বুধবার সকালে এই সিদ্ধান্ত নেয় বলে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে।

এর আগে মঙ্গলবার এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত তিন ব্যক্তির মৃত্যুদণ্ডাদেশ রহিত করে তাদের আজীবন কারাভোগের নির্দেশ দেয় ভারতের সর্বোচ্চ আদালত।

তার ঠিক একদিন পরই দণ্ডিতদের মুক্তি দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হলো, যা নির্বাচন সামনে রেখে একটি রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত বলে বিশ্লেষকরা মনে করচেন।

মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিতদের ক্ষমা ভিক্ষা আবেদনের নিষ্পত্তির জন্য ১১ বছর দেরি হওয়ার সময়টি আসামিদের জন্য কষ্টদায়ক ছিল না বলে সরকার পক্ষের দাবিও খারিজ করে দেয় আদালত।

আদালত নির্দেশনা দেয়, যদি তামিলনাডু সরকার তাদের ক্ষমা করে তবে অভিযুক্ত সাঁথন, মুরুগন ও পেরারিভালন মুক্তিও পেতে পারেন।

ওই তিন ব্যক্তির ফাঁসির দণ্ড রহিত করার রায় দেয়ার সময় ভারতের প্রধান বিচারপতি পি সদাশিভমের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ বলেন, “প্রেসিডেন্টের ক্ষমতায় হস্তক্ষেপ করা এই আদালতের জন্য সুখকর কোনো বিষয় নয়। ক্ষমা ভিক্ষার আবেদন যত দ্রুত সম্ভব নিষ্পত্তি করা উচিত, প্রেসিডেন্টকে এই পরামর্শ দেয়ার জন্য আমরা সরকারের কাছে বিনীত আবেদন জানাচ্ছি।”

অভিযুক্তরা ক্ষমা পাওয়ার যোগ্য নয়, দেশটির সরকারের এ অভিমত গ্রহণ করেনি আদালত।

ভারতের অ্যাটর্নি জেনারেল গুলাম ভাহানভাতি বলেছেন, “অভিযুক্তদের ক্ষমা ভিক্ষার আবেদনে তারা অপরাধবোধ করছে, এমন একটি শব্দও ছিল না। ক্ষমা ভিক্ষার আবেদন নিষ্পত্তির বিলম্বে তারা মানসিক যন্ত্রণা, অত্যাচার ও অমানবিক কোনো পরিস্থিতিতে পড়েনি।”

সরকারি আইনজীবীরা ক্ষমা ভিক্ষার আবেদন নিষ্পত্তি বিলম্বে অভিযুক্তরা কীভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তা প্রমাণ করার আর্জি জানালেও আদালত তা বাতিল করে দেয়।

আদালতের এই রায়ের পর অভিযুক্তদের আইনজীবী যুগ চৌধুরী এনডিটিভিকে বলেন, “এটি খুব বিবেচনাপ্রসূত এবং মানবিক বিচার, এটি আমাদের দেশ থেকে মৃত্যুদণ্ড তুলে দেয়ার পথ প্রশস্ত করবে।”

১৯৯১ সালের ২১ মে তামিলনাড়ুতে নির্বাচনী প্রচারের সময় আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহত হন কংগ্রেস নেতা রাজীব গান্ধী। ওই ঘটনায় শ্রীলঙ্কার তামিল টাইগারদের সাত সদস্য আদালতে দোষী সাব্যস্ত হন।
ওই ঘটনায় ১৯৯৮ সালে তিন আসামিকে মৃত্যুদণ্ড দেয় আদালত। আসামিরা ওই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করলেও ফাঁসির আদেশ বহাল থাকে।

দক্ষিণ এশিয়া

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে