Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৯ , ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.6/5 (36 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০১-২৩-২০১৪

জুনে চট্টগ্রাম থেকে কর্মপরিকল্পনা

জুনে চট্টগ্রাম থেকে কর্মপরিকল্পনা

ঢাকা, ২৩ জানুয়ারি- আগামী জুন মাসে বন্দর নগরী চট্টগ্রামে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ-চীন-ভারত ও মিয়ানমারের (বিসিআইএম) বাণিজ্য জোটের কর্মপরিকল্পনা নির্ধারণী বৈঠক। আর এ বৈঠক থেকেই আসবে এ অঞ্চলের বাণিজ্য জোটের নতুন পরিকল্পনা।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, জুনে অনুষ্ঠেয় ওই বৈঠকে সদস্যদেশগুলোর বাণিজ্য বা পররাষ্ট্র মন্ত্রীদের উপস্থিতি আশা করা হচ্ছে। এ বিষয়ে চীন ও মিয়ানমারের আশ্বাস পাওয়া গেলেও ভারত এখনও তাদের সিদ্ধান্ত জানায়নি।

এদিকে, এ বৈঠকটি ঢাকায় আয়োজনের জন্য জোটের কয়েক দেশ মত দিলেও বাংলাদেশ তার বাণিজ্যিক রাজধানী চট্ট্রগ্রামে বৈঠকটি আয়োজনের আগ্রহ দেখায়।

এ বিষয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা বলেন, গত ১৭ ডিসেম্বর চীনের কুনমিংয়ে বিসিআইএম জোটের গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে বাংলাদেশে পরবর্তী বৈঠকের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

ওই বৈঠকে জোটের সদস্য দেশগুলো ভবিষ্যতে বিসিআইএমকে কিভাবে পরিচালনা করবে তার কর্মপরিকল্পনা তৈরি করার বিষয়ে আলোকপাত করা হয়। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বাংলাদেশ এরই মধ্যে এ লক্ষ্যে কাজ শুরু করেছে।
চীন ও ভারতকে অর্থনৈতিকভাবে শক্তিশালী করা হল বিসিআইএম জোটের প্রস্তাব। এর বাইরে বাংলাদেশ ও মিয়ানমারকেও সম্ভাবনাময় রাষ্ট্র হিসেবে রাখা হয়েছে। পাশাপাশি সাম্প্রতিক রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক প্রেক্ষাপটেও ভারত ও চীনের পর বাণিজ্য ও বিনিয়োগের ক্ষেত্র হিসেবে বাংলাদেশ এবং মিয়ানমারকে গুরুত্ব দিচ্ছে পশ্চিমা বিশ্ব।

আর এসব বিষয়ে সার্বিক কর্মপরিকল্পনা আসবে জুনে চট্টগ্রামে অনুষ্ঠিক জোটের পরবর্তী বৈঠক থেকেই।
সংশ্লিষ্টরা বলছেন, এ ধরনের সহযোগিতা সম্পর্ক স্থাপনে বেসরকারি গবেষণা সংস্থার পাশাপাশি এডিবি ও বিশ্বব্যাংকের মতো দাতা সংস্থাগুলোরও উৎসাহ রয়েছে। বিসিআইএম ফোরাম সংক্রান্ত এক ধারণাপত্রে বলা হয়েছে, এ অঞ্চলের মোট জনসংখ্যা প্রায় ২ দশমিক ৮ বিলিয়ন, যা বিশ্বের মোট জনসংখ্যার প্রায় অর্ধেক।
পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তত্ত্বাবধানে সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগ (সিপিডি) ও বাংলাদেশ ইনস্টিটিউড অব ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড স্ট্যাটিজিক স্টাডিজ (বিআইআইএসএস) এজন্য কাজ করে যাচ্ছে। এতে চার দেশীয় যোগাযোগ এবং বাণিজ্যিক বিষয় প্রাধান্য পাচ্ছে।

কিছুদিন আগে বিসিআইএম কো-অপারেশন গঠনের ব্যাপারে বাংলাদেশের মতামত চেয়ে সরকারের কাছে একটি ধারণাপত্র পাঠায় চীন। বাংলাদেশের ইতিবাচক মনোভাবও দেখায়। গতবছর চীনের প্রধানমন্ত্রী লি কেসিয়াং ভারত সফরকালে দেশটির প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের সঙ্গে বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে আলোচনা করেন। এরপর গত মাসে বাংলাদেশের মতামত জানতে চিঠি পাঠায় চীন সরকার।

নব্বই দশকে বেসরকারিভাবে বাংলাদেশ, চীন, ভারত ও মিয়ানমারকে নিয়ে এ জোট গঠনের উপর গুরুত্ব দেওয়া হয়। ১৯৯৯ সালে চীনের কুনমিংয়ে অনুষ্ঠিত এক বেসরকারি সম্মেলনে এই ধরনের আঞ্চলিক জোট গঠনের বিষয়ে আনুষ্ঠানিক আলোচনা হওয়ায় এটিকে ‘কুনমিং উদ্যোগ’ বলেও স্বীকৃতি দেওয়া হয়।

ব্যবসা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে