Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ২৫ জুন, ২০১৯ , ১০ আষাঢ় ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.1/5 (15 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০১-২১-২০১৪

নতুন মুদ্রানীতি ২৭ জানুয়ারি, চ্যালেঞ্জ বিনিয়োগ বাড়ানো

সাইদ আরমান


নতুন মুদ্রানীতি ২৭ জানুয়ারি, চ্যালেঞ্জ বিনিয়োগ বাড়ানো

ঢাকা, ২১ জানুয়ারি- চলতি ২০১৩-১৪ অর্থ বছরের দ্বিতীয়ার্ধের জন্য মুদ্রানীতি আগামী ২৭ জানুয়ারি ঘোষণা করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ওই দিন বাংলাদেশ ব্যাংক গভর্নর ড. আতিউর রহমান আনুষ্ঠানিকভাবে জানুয়ারি-জুন মেয়াদের মুদ্রানীতি ঘোষণা করবেন।

বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

সূত্র জানায়, নতুন মুদ্রানীতি চূড়ান্ত করতে আনুষ্ঠানিকভাবে সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে খুব বেশি বৈঠক এবার করা হচ্ছে না। বিশিষ্ট ব্যক্তিদের কাছ থেকে ইমেইলে মতামত ও পর্যালোচনা নেওয়া হয়েছে এবার।

জানতে চাইলে বাংলাদেশ ব্যাংকের সহকারী মুখপাত্র এএফএম আসাদুজ্জামান বলেন, ২৭ জানুয়ারি আনুষ্ঠানিকভাবে মুদ্রানীতি ঘোষণা করা হবে। এ লক্ষ্যে বিশিষ্ট ব্যাংকার, সাবেক কেন্দ্রীয় ব্যাংকার, অর্থনীতিবিদ, গবেষকদের কাছ থেকে ইমেইলে মতামত চাওয়া হয়েছে।

এদিকে নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়, মুদ্রানীতি প্রণয়নে প্রবৃদ্ধি ও মূল্যস্ফীতির লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে চলতি বছর বেশ কিছু বাধা দেখছে বাংলাদেশ ব্যাংক। কেন্দ্রীয় ব্যাংক মনে করে, বিনিয়োগে বড় ধরনের গতিশীলতা আনতে না পারলে প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের সম্ভাবনা কম। আর সম্ভাব্য রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতায় বিনিয়োগ বাড়ানোর চেষ্টাও সফল হবে না। অপরদিকে, রাজনৈতিক অস্থিরতায় বাড়তে শুরু করেছে মূল্যস্ফীতি। মূল্যস্ফীতির হারও নির্ধারিত সীমার মধ্যে আটকে রাখার বিষয়েও আশঙ্কা করছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এমন পরিস্থিতি নিয়ে নতুন মুদ্রানীতি প্রণয়নের কাজ করছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

সোমবার বিকেলে অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে এক বৈঠকে গভর্নর ড. আতিউর রহমান বলেন, রাজনৈতিক অস্থিরতার জন্য দেশের অর্থনীতির যে ক্ষতি হয়েছে তা কাটিয়ে ওঠা বড় চ্যালেঞ্জ। তাই ঘোষিত প্রবৃদ্ধি অর্জন হয়তো হবে না। এমন কি বিনিয়োগ বাড়ানোও কঠিন হয়ে পড়েছে। যদিও বেশ কিছু উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে।

সরকারের লক্ষ্যমাত্রা অনুসারে প্রবৃদ্ধি অর্জন ও মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে ভারসাম্যপূর্ণ মুদ্রা প্রবাহের ঘোষণা করার দিকে যাচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

এর আগে ২০১৩-১৪ অর্থবছরের প্রথম ছয়মাসের জন্য মুদ্রানীতি চূড়ান্ত করে গত ২৫ জুলাই তা ঘোষণা করা হয়। বেসরকারি খাতে ঋণ প্রবাহ কিছুটা বাড়নোর কথা বলা হয়।

কিন্তু সবশেষ বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য মতে, রাজনৈতিক অস্থিরতায় ব্যবসায়ীরা ঋণ নেওয়ার আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছেন। ঋণ প্রবাহ এক অংকে নেমে এসেছে। ব্যাংক খাতে বাড়ছে অলস টাকার পাহাড়। রাজনৈতিক পরিস্থিতি ও উচ্চ সুদহারের কারণে ব্যবসায়ীরা ঋণ নেওয়ার আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছেন।

বাংলাদেশ ব্যাংক মনে করছে, অবকাঠামো খাত ও অন্য বিনিয়োগ কার্যক্রমে বড় ধরনের গতিশীলতা না আনতে পারলে প্রবৃদ্ধি বিগত ১০ বছরের গড় ৬ দশমিক ২ শতাংশের চেয়ে কম হবে।

সূত্র মতে, চলতি অর্থবছরের জাতীয় বাজেটে বার্ষিক গড় মূল্যস্ফীতির হার ধরা হয়েছে ৭ শতাংশ। আর প্রবৃদ্ধির হার ধরা হয়েছে ৭ দশমিক ২ শতাংশ।

ব্যবসা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে