Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৯ , ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.8/5 (12 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০১-২১-২০১৪

বাংলাদেশ ফিরে পেল মুহুরী চরের ১০০ একর

বাংলাদেশ ফিরে পেল মুহুরী চরের ১০০ একর

ঢাকা, ২১ জানুয়ারি- মুজিব-ইন্দিরা চুক্তির চার দশক পর ওই চুক্তির ধারা ব্যবহার করে বাংলাদেশ ফেরত পেয়েছে মুহুরী চরের বিরোধপূর্ণ ১০০ একর জমি। ফেনীর পরশুরাম পৌর এলাকার বিলোনিয়া ও নিজকালিকাপুর সীমান্তের প্রায় ১১০ একর জমি প্রায় অর্ধশত বছর ধরে নোম্যান্স ল্যান্ড হিসাবে পরিত্যক্ত ছিল।

গত বৃহস্পতিবার আনুষ্ঠানিকভাবে দুই দেশের ভূমি জরিপ কর্মকর্তারা জরিপ করে সীমানা নির্ধারন করে দিয়েছেন। এতে বাংলাদেশ প্রায় ১০০ একর জমি ফেরত পেয়েছে। এ ঘটনায় স্থানীয়দের মাঝে দেখা দিয়েছে ব্যাপক খুশির আমেজ।

স্থানীয় সীমান্তবর্তী লোকজনের সাথে কথা বলে জানা গেছে, মুজিব-ইন্দিরা চুক্তিতে নদীর গতিসূত্রকে সীমানা হিসাবে নির্ধারণ করা হয়েছিল। কিন্তু পরশুরামের বিলোনিয়া স্থলবন্দর সংলগ্ন মুহুরী নদীর স্রোতকে সীমানা ধরা হলেও ভারতের অংশে ব্লক দিয়ে রক্ষা করে ভারত, কিন্তু বাংলাদেশ অংশে মুহুরী নদীতে কোনো ব্লক না দেয়ায় ভাঙ্গন দেখা দেয়। ভাঙ্গনের কারণে বাংলাদেশের ১১০ একর ভারতীয় অংশ চর জাগে। ভারতীয়রা ওই ১১০ একর জমিকে তাদের দাবি করে বাংলাদেশের কৃষকদের ওই বিরোধপূর্ণ এলাকায় যাতায়াতে বাধা দেয়।
বিরোধপূর্ণ জমিকে কেন্দ্র করে বিলোনিয়ায় বাংলাদেশ ও ভারত প্রায় ৩৫/৪০ বার গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে গোলাগুলির পর দুই দেশের দ্বিপাক্ষিক পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে বিলোনিয়া মুহুরী চরকে নোম্যান্স ল্যান্ড হিসাবে ঘোষণা করা হয়। তারপর থেকে বাংলাদেশের কৃষক ও ভারতীয় কৃষকরা ওই জমিতে যাতায়াত বন্ধ করে।

গতবছর ওই বিরোধপূর্ণ ১১০ একর ভূমি জরিপ করতে বাংলাদেশ সেটেলম্যান্টের মহাপরিচালক ও বিলোনিয়া স্থলবন্দর সংলগ্ন বিরোধপূর্ণ স্থান পরিদর্শন করে ভারতীয় সেটেলম্যান্ট কর্মকর্তাদের সাথে বৈঠক করেছিল। গত বৃহস্পতিবার একইভাবে সেটেলম্যান্ট কর্মকর্তারা ভারতীয় ভূমি জরিপ কর্মকর্তাদের সাথে দ্বিপাক্ষিক জরিপ করে বিরোধপূর্ণ সীমানা নির্ধারণ করে দেয় এবং শুক্রবার ও শনিবার থেকে অস্থায়ী খুঁটি দিয়ে সীমানা নির্ধারণ করে দিয়েছে।

বিলোনিয়ার বিরোধপূর্ণ জমি বাংলাদেশ ফেরত পেলেও পরশুরাম উপজেলার দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা এই বিষয়ে কোনো সুনির্দিষ্ট তথ্য দিতে পারেনি।

পরশুরাম পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ইকবাল রেজা রিপন জানান, ১১০ একর জমি নিয়ে বিরোধ থাকলেও বাংলাদেশের অংশেই বেশি জমি পেয়েছে। প্রায় ১০০ একর জমি বাংলাদেশ ফেরত পেয়েছে।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে