Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ২২ জুলাই, ২০১৯ , ৬ শ্রাবণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.6/5 (50 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০১-১৬-২০১৪

ফেসবুক-এ ছবি পোস্ট করায় জীবন দিলো হাসি

আশরাফুল ইসলাম ও রফিকুল ইসলাম


ফেসবুক-এ ছবি পোস্ট করায় জীবন দিলো হাসি

কিশোরগঞ্জ, ১৬ জানুয়ারি- প্রেমিকের প্রেমের ফাঁদ বুঝতে পারেনি স্কুলছাত্রী হাসি আক্তার জ্যোতি (১৪)। অকৃত্রিম বিশ্বাস নিয়ে সে দাঁড়িয়েছিল প্রেমিক সুস্মিত সুলতান (২০)-এর পাশে। ভালবেসে দেহ-মন সব উজাড় করে দিয়েছিল। ছোট্ট একটি গৃহকোণের স্বপ্ন দেখতেও শুরু করেছিল। কিন্তু প্রেমিকের প্রতারণায় তাসের ঘরের মতোই ভেঙে গেল তার সে স্বপ্ন-সাধ। ভালবাসার এমন অমর্যাদাকে কিছুতেই মেনে নিতে পারে নি সে। বিশ্বাসভঙ্গের বেদনা নিয়ে পৃথিবীকেই চিরবিদায় জানালো আবেগী মেয়েটি। সম্পর্কের অবনতির জের ধরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক-এ প্রেমিক সুস্মিত সুলতান ভুয়া আইডি খুলে দু’জনের অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবি পোস্ট করায় সোমবার সন্ধ্যায় গলায় ওড়না পেঁচিয়ে নিজের রুমের সিলিং-এ ঝুলে আত্মহত্যা করে হাসি।

স্কুলছাত্রী হাসি আক্তার জ্যোতি ভৈরব পৌরশহরের চরচণ্ডিবের উত্তরপাড়ার কাতারপ্রবাসী ইসলাম উদ্দিনের কন্যা এবং স্থানীয় মুর্শিদ মুজিব উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণীর ছাত্রী। এ ঘটনায় অভিযুক্ত প্রেমিক সুস্মিত সুলতানকে রাতেই গ্রেপ্তার করে পুলিশ। সে একই এলাকার হাজী বাচ্চু মিয়ার ছেলে। সে গত বছর ঢাকার নটর ডেম কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেছে বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে। এদিকে গ্রেপ্তারকৃত সুস্মিত সুলতান মঙ্গলবার বিকালে কিশোরগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আশরাফুজ্জামান জিলানী’র নিকট ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। পুলিশ ও সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্রে জানা গেছে, গত ২ বছর ধরে সুস্মিত সুলতানের সঙ্গে হাসি আক্তার জ্যোতির প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। অন্তরঙ্গতার সুবাদে দু’জন বিভিন্ন সময়ে শারীরিক সম্পর্কেও জড়িয়ে পড়ে। কিছুদিন ধরে সুস্মিত সুলতানকে বিয়ের জন্য চাপাচাপি করলে এ দু’জনের সম্পর্কে কিছুটা অবনতি ঘটে। এরপরও সুস্মিত প্রায়ই তাদের অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে হাসিকে একান্তে ডেকে নিতো। একপর্যায়ে হাসি এতে অস্বীকৃতি জানালে সুমিত মিয়া নামে একটি ভুয়া ফেসবুক আইডি খুলে ওই আইডিতে সম্প্রতি হাসির সঙ্গে তার অন্তরঙ্গ মুহূর্তের একাধিক ছবি পোস্ট করে সুস্মিত। এলাকায় বিষয়টি প্রচার হওয়ায় লোকলজ্জা আর কলঙ্কের অপবাদ থেকে বাঁচতে সোমবার সন্ধ্যায় গলায় ওড়না পেঁচিয়ে শিখা ভবনের নিজ কক্ষে সিলিং-এ ঝুলে হাসি আত্মহত্যা করে। খবর পেয়ে ভৈরব থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তার মৃতদেহ উদ্ধার করে এবং রাতেই অভিযুক্ত সুস্মিত সুলতানকে গ্রেপ্তার করে। মঙ্গলবার জেলা হাসপাতাল মর্গে লাশের ময়নাতদন্ত শেষে রাতে স্থানীয় কবরস্থানে হাসিকে দাফন করা হয়। এ ঘটনায় হাসির চাচা গিয়াস উদ্দিন বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের সংশ্লিষ্ট ধারায় সুস্মিত সুলতানকে আসামি করে ভৈরব থানায় সোমবার রাতে মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে আসামি সুস্মিত সুলতান অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করায় তাকে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে মঙ্গলবার আদালতে পাঠানো হয়। সেখানে কিশোরগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আশরাফুজ্জামান জিলানী আসামি সুস্মিত সুলতানের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করেছেন বলে ভৈরব থানার ওসি মু. সরাফত উল্লাহ জানিয়েছেন।

কিশোরগঞ্জ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে