Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, রবিবার, ১৯ জানুয়ারি, ২০২০ , ৬ মাঘ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (95 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০১-০৫-২০১২

মালয়েশিয়ায় বৈধতা পাচ্ছেন ২০০০০০ বাংলাদেশী

মিজানুর রহমান


মালয়েশিয়ায় বৈধতা পাচ্ছেন ২০০০০০ বাংলাদেশী
ঢাকা, ০৫ জানুয়ারী ২০১২
দালালদের অপ-তৎপরতা, হয়রানি, আবেদনকারীদের ভোগান্তি আর হাইকমিশনারকে প্রাণনাশের হুমকির বিপরীতে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের নিরলস খাটনিতে মালয়েশিয়ায় বৈধতা পেতে যাচ্ছেন দু’ লাখ বাংলাদেশী। আগামী ১০ই জানুয়ারির মধ্যে রোহিঙ্গা আর গুরুতর অভিযুক্ত ছাড়া সব আবেদনকারীই মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট পাচ্ছেন। ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো-বিএমইটি এবং কুয়ালালামপুরস্থ হাইকমিশন সূত্র জানিয়েছে, গত সোমবার পর্যন্ত ১ লাখ ৯৮ হাজার আবেদনকারীর নিবন্ধন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে। তারা পাসপোর্ট হাতে পেয়েছেন। লাইনে আছেন আর মাত্র ২১ হাজার। প্রবাসী কল্যাণ সচিব ড. জাফর আহমদ খান জানিয়েছেন, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে তাদের ব্যক্তিগত সাক্ষাৎকার, যাচাই-বাছাই, প্রক্রিয়া নিবন্ধন এবং পাসপোর্ট দেয়ার কাজ সম্পন্ন হবে। ২০১১ সালের মাঝামাঝিতে মালয়েশিয়া সরকার দেশটিতে অবৈধভাবে বসবাসরত বিদেশীদের বৈধতা দেয়ার ঘোষণা দেয়। এ ঘোষণার পর বাংলাদেশের তরফে কূটনৈতিক তৎপরতা শুরু হয়। স্থানীয় হাইকমিশনের উদ্যোগের সঙ্গে ঢাকা থেকে প্রবাসী কল্যাণ সচিব এবং পরে মন্ত্রীর নেতৃত্বে প্রতিনিধি দল কুয়ালালামপুর সফর করেন। তারা অবৈধ বিদেশীদের বৈধতা দেয়ার ঘোষণায় মালয়েশিয়া সরকারকে বাংলাদেশের সরকার ও জনগণের তরফে কৃতজ্ঞতা জানান। একই সঙ্গে বৈধতা হাসিলের প্রক্রিয়া হিসেবে বাংলাদেশীদের নিবন্ধন ও পাসপোর্ট দেয়ার কাজ শুরুর নির্দেশনা দেন। গত আগস্ট থেকে নিবন্ধনের জন্য আবেদন গ্রহণ, যাচাই বাছাই এবং পাসপোর্ট দেয়া শুরু হয়। সূত্র জানিয়েছে, দীর্ঘ এ প্রক্রিয়ায় ওয়ান টু-ওয়ান সাক্ষাৎকার গ্রহণ এবং নাগরিকত্ব যাচাই বাছাই করে এ পর্যন্ত ১ লাখ ৯৮ হাজার আবেদনকারীর যথাযথ পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেছে। তাদের নিবন্ধন ও পাসপোর্ট দেয়ার প্রক্রিয়াও সম্পন্ন হয়েছে। আবেদন করেছেন এমন ২১ হাজার বাংলাদেশীর ইন্টারভিউর দিনক্ষণ জানিয়ে দেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে এজেন্সির মাধ্যমে তাদের বাংলাদেশী নাগরিকত্বের ব্যাপারে খোঁজখবর নেয়া হচ্ছে। তাদের পরিচয় নিশ্চিত হওয়ার পর নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই তারা নিবন্ধন ও পাসপোর্ট হাতে পাবেন। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানিয়েছে, নিবন্ধন প্রক্রিয়ায় গতি কম হওয়া, আবেদনকারীদের ভোগান্তি, দালালদের হয়রানি এবং এক পর্যায়ে হাইকমিশনারকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়ার প্রেক্ষিতে সরকারের তরফে বিষয়টিতে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়া হয়। হাইকমিশনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে ঢাকা থেকে বাড়তি জনবল পাঠানো হয়। পররাষ্ট্র দপ্তরের ক’জন কর্মকর্তাকে এ কাজে সহযোগিতার জন্যই প্রায় তিন মাস ধরে কুয়ালালামপুরে দায়িত্ব দিয়ে রাখা হয়েছে। প্রবাসী কল্যাণ সচিব গতকাল সন্ধ্যায় মানবজমিনকে বলেন, ২ লাখ ১৯ হাজার বৈধ হতে আগ্রহ দেখিয়েছে। তারা নিবন্ধনের জন্য আবেদন করেছে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে তাদের নিবন্ধন প্রক্রিয়া শেষ করে নতুন পাসপোর্ট ইস্যু করতে সংশ্লিষ্টদের বেগ পেতে হচ্ছে। সচিব জানান, একটা বড় অংশ এখনও নিবন্ধনে আগ্রহই দেখায়নি। এ সংখ্যা প্রায় ৩০ হাজার বলে ধারণা দেন তিনি। জানান, তাদের স্বজন ও বন্ধু- বান্ধবের মাধ্যমে যেটুকু তথ্য পাওয়া গেছে তাতে দেখা গেছে, অনেকেই স্থান পরিবর্তন করেছে। কেউ দেশে ফিরে এসেছে, কেউ অন্য দেশে গেছে, কেউ বা চলমান প্রক্রিয়ায় বৈধতা নেয়ার বিষয়ে দ্বিধাদ্বন্দ্বে ভুগছে। সচিব বলেন, আশা করছি, ওই সব শ্রমিকের বিভ্রান্তি কাটবে। একই সঙ্গে মালয়েশিয়া সরকারও আরও কিছুটা সময় বাড়াবে। তবে গতকাল পর্যন্ত সময় বাড়ানোর কোন খবর আসেনি বলে জানান সরকারের উচ্চ পদের ওই কর্মকর্তা।

মালয়েশিয়া

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে