Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯ , ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.8/5 (52 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০১-১৪-২০১৪

ডেপুটি স্পিকারসহ আরও মন্ত্রীর পদ চাইবে জাপা

ডেপুটি স্পিকারসহ আরও মন্ত্রীর পদ চাইবে জাপা

ঢাকা, ১৪ জানুয়ারি- জাতীয় সংসদে ডেপুটি স্পিকার ও সরকারে আরও বেশি মন্ত্রী চাইবে জাতীয় পার্টি। আজ মঙ্গলবার জাতীয় পার্টির সংসদীয় দলের সভা শেষে পানিসম্পদমন্ত্রী ও জাতীয় পার্টির সাংসদ আনিসুল ইসলাম মাহমুদ সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

বেলা ১১টা থেকে দেড়টা পর্যন্ত বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদের গুলশানের বাসায় এ বৈঠক হয়। তবে বৈঠকে দলের চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ উপস্থিত ছিলেন না।

আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রংপুরে যে আসনটি ছেড়ে দিয়েছেন, এ আসন থেকে জাতীয় পার্টি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে। এ আসন থেকে জি এম কাদেরকে জিতিয়ে আনার যে খবর প্রকাশিত হয়েছে বিভিন্ন গণমাধ্যমে, সে বিষয়ে তিনি কিছু বলেননি।

আজকের সভায় দলের ৩৩ জন সাংসদের মধ্যে ২৭ জন উপস্থিত থাকলেও উপস্থিত ছিলেন না দলের মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার। তবে তাঁর স্ত্রী সাংসদ নাসরিন জাহান উপস্থিত ছিলেন।

আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেন, জাতীয় পার্টি কীভাবে সরকার ও বিরোধী দলে সমান ভূমিকা রাখতে পারে, এ নিয়েও আজ আলোচনা হয়েছে। নবম জাতীয় সংসদে ডেপুটি স্পিকার পদটি বিরোধী দলকে ছেড়ে দেওয়ার কথা হয়েছিল। এ সংসদে জাতীয় পার্টি যেন ডেপুটি স্পিকার পদটি পায়, এ বিষয়টি তোলা হবে। তিনি বলেন, ‘সরকারি দল সাধারণত মন্ত্রিসভায় বিরোধী দলকে চায় না। কিন্তু এমন উদাহরণ পাকিস্তানে আছে। মন্ত্রিসভায় জাতীয় পার্টির আরও সদস্য অন্তর্ভুক্ত করার ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীকে আমরা অনুরোধ জানিয়েছি।’ এ ছাড়া বিশেষ দূতের দায়িত্ব নিয়ে এরশাদ খুশি হতে পারছেন না বলে প্রচার পেয়েছে—এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেছেন, ‘যত দূর জানি এরশাদ এই পদ নিয়ে অখুশি নন।’

সংসদীয় দলের সভায় সাংসদ হয়েও এরশাদ কেন অনুপস্থিত, এমন প্রশ্নের জবাব আনিসুল ইসলাম মাহমুদ দেননি। এরশাদের পর এখন মহাসচিব অসুস্থ বলে জানিয়েছে দলটি।

জাতীয় পার্টি সূত্রে জানা গেছে, রওশনের বাসায় বৈঠক নিয়ে অস্বস্তিতে আছে এইচ এম এরশাদসহ দলের একটি অংশ। তারা মনে করছে, রওশনকে বিরোধীদলীয় নেতা করে দলের একটি অংশ এরশাদকে কোণঠাসা করতে চাইছে। গতকাল সোমবার দলের এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, জাপার চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ তাঁর দলীয় মুখপাত্র হিসেবে পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য জি এম কাদের ও মহাসচিব এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদারকে দায়িত্ব দেন। এর ঠিক এক দিন পরই আজ এ বৈঠক বসল।

গত বৃহস্পতিবার এরশাদ সিএমএইচে থাকাকালে দলের সাংসদেরা জাতীয় সংসদে রওশন এরশাদকে বিরোধীদলীয় নেতা নির্বাচন করেন। গত ৩ ডিসেম্বর ৫ জানুয়ারির নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দিয়েছিলেন এরশাদ। তবে এরশাদপত্নী রওশনের নেতৃত্বে জাপার একাংশ ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের সঙ্গে মিলেমিশে নির্বাচনে অংশ নেয়। এতে এরশাদসহ ১৩ জন জয়ী হন। এর আগে রওশনসহ দলটির ২০ জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হন। এখন দলটির মোট সাংসদ ৩৩ জন।

গত বৃহস্পতিবার দলের সাংসদেরা শপথ নিলেও এরশাদসহ দলের দুজন শপথ নেননি। পরে গত শনিবার এরশাদ শপথ নেন।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে