Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০ , ১৪ আশ্বিন ১৪২৭

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৮-১১-২০২০

ডাক্তারি সার্টিফিকেট নেই, তবুও ক্লিনিক চালাচ্ছিলেন তিনি

ডাক্তারি সার্টিফিকেট নেই, তবুও ক্লিনিক চালাচ্ছিলেন তিনি

দিনাজপুর, ১১ আগস্ট- দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে লাইসেন্স না থাকায় অবৈধভাবে বিভিন্ন চিকিৎসা সেবা প্রদান করার অপরাধে রিন নার্সিং হোম ক্লিনিককে সিলগালা করা হয়। এ সময় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ঘোড়াঘাট উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ওয়াহিদা খানম একজন ভুয়া নারী চিকিৎসকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে একমাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন।

আটক হওয়া ভুয়া চিকিৎসক পাশ্ববর্তী গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার সৈয়দ নুরুল ইসলামের মেয়ে সৈয়দা রিমা আক্তার (২৪)।

সোমবার দুপুরে ঘোড়াঘাট পৌর এলাকার আজাদমোড়ে রীন নাসিং হোম ক্লিনিকে এই মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়।
এ সময় ডাক্তারি সার্টিফিকেট না থাকা সত্ত্বেও ওই নারীর নামের আগে ডাক্তার লিখে চিকিৎসা সেবা প্রদান করার অপরাধে ওই নারী চিকিৎসকে ১ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন।

আরও পড়ুন: গণপরিবহনের বর্ধিত ভাড়া প্রত্যাহারের দাবি

ঘোড়াঘাট উপজেলার স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার নুর নেওয়া আহম্মেদ বলেন, ‘খবর পেয়েছি বেশ কিছুদিন থেকে ভুয়া চিকিৎসক সৈয়দা রিমা আক্তার ও তার স্বামী ডাক্তার পি কে শাহিন ঘোড়াঘাট আজাদমোড়ের একটি পাঁচতলা ভবনের তৃতীয় ও চতুর্থ তলা ভবন ভাড়া নিয়ে ডাক্তারি লাইসেন্স ছাড়াই অবৈধভাবে রিন নার্সিং হোম নামে একটি ক্লিনিক পরিচালনা করে আসছিল।’

‘সাধারণ চিকিৎসা সেবা প্রদানের পাশাপাশি গর্ভবতী নারীদের অপারেশনের (সিজার) মাধ্যমে বাচ্চা প্রসব করানো হতো সেখানে। ওই ভুয়া নারী চিকিৎকের বৈধ কোনো ডাক্তারি সার্টিফিকেট না থাকা সত্ত্বেও নিজের নামের আগে অবৈধভাবে ডাক্তার লিখে সাধারণ মানুষকে প্রতারিত করেছে’, যোগ করেন তিনি।

সূত্র : আমাদের সময়
এম এন  / ১১ আগস্ট

দিনাজপুর

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে