Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০ , ৫ আশ্বিন ১৪২৭

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৮-১১-২০২০

জিদানের বাতিলের তালিকায় হাই প্রোফাইল খেলোয়াড়রা

জিদানের বাতিলের তালিকায় হাই প্রোফাইল খেলোয়াড়রা

রিয়াল মাদ্রিদ যখন ম্যানচেস্টার সিটির মাঠে ধরাশায়ী হচ্ছিল, তখন গলফ খেলতে ব্যস্ত ছিলেন স্প্যানিশ ক্লাবটির অন্যতম বড় তারকা গ্যারেথ বেল। তিনি নিজ থেকেই জানিয়েছিলেন, ম্যান সিটির বিপক্ষে ম্যাচে যেন তাকে স্কোয়াডে না রাখা হয়। সে কথা মোতাবেক রিয়াল কোচ জিনেদিন জিদানও ছুটি দিয়েন বেলকে।

অবশ্য বেলের অমন দলে রাখতে না বলার কারণও বেশ জোরালো। কেননা জিদানের অধীনে কখনওই যে যথাযথ সুযোগ পাননি বেল। বরং তিনিও যুক্ত হয়েছেন জিদানের ‘হাই প্রোফাইল বাতিল খেলোয়াড়’দের তালিকায়। যেখানে রয়েছে হামেস রদ্রিগেজ, কেইলর নাভাসদের মতো তারকারাও।

দায়িত্ব নেয়ার পর বেশ কিছু খেলোয়াড়কে একপ্রকার জোর করেই ক্লাব ছাড়তে বাধ্য করেছেন জিদান। সেসব খেলোয়াড়কে বেঞ্চে বসিয়ে রেখে স্পষ্ট বুঝিয়ে দিয়েছেন যে, ভবিষ্যতে লস ব্লাঙ্কোসদের হয়ে খুব বেশি সুযোগ পাবেন না তারা। ফলে নিজেদের ক্যারিয়ারের কথা ভেবেই নতুন ক্লাবে চলে গিয়েছে অনেক বড় বড় তারকা।

আরও পড়ুন: করোনা আক্রান্তদের পাশে মেসি

যে তালিকায় সবশেষ সংযোজন বলা যায় গ্যারেথ বেলকে। দলের অন্যতম সেরা তারকা হয়েও মৌসুমের সিংহভাগ সময় কাটাতে হয়েছে ডাগআউটে বসেই। যেমনটা হয়েছিল হামেস রদ্রিগেজের বেলাতেও। ধারণা করা হচ্ছে, আসন্ন গ্রীষ্মে হামেসের মতোই ক্লাব ছেড়ে যাবেন বেল।

হামেসের মতো জিদানের বাতিলের খাতায় পড়া আরেক তারকা ছিলেন গোলরক্ষক কেইলর নাভাস। দায়িত্ব নেয়ার পর থেকে নাভাসকে বেঞ্চে বসিয়ে থিবো কর্তোয়াকে খেলাতে শুরু করেন জিদান। ফলে একপর্যায়ে বাধ্য হয়েই রিয়াল ছেড়ে ফরাসি ক্লাব প্যারিস সেইন্ট জার্মেইতে চলে যান নাভাস।

শুধু নাভাস-হামেস নন, আরও অনেকের সঙ্গেই এমনটা হয়েছে জিদানের কোচিং ক্যারিয়ারে। তার মধ্যে অন্যতম আশরাফ হাকিমি, আলভারো মোরাতা, দানি সেবায়োস, মাতেও কোভাসিচ এবং মার্কোস লরেন্তে। তাদের প্রত্যেকেই রিয়াল কোচ জিদানের কাছ থেকে পেয়েছেন প্রায় একই ধরনের ব্যবহার।

স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড মোরাতা সবসময়ই চাইতেন আরও বেশি সময় মাঠে কাটাতে। কিন্তু জিদানের পরিকল্পনায় করিম বেনজেমাকে বেঞ্চে বসিয়ে মোরাতার পক্ষে মাঠে নামা ছিল খুবই দূরহ ব্যাপার। তাই ক্লাব ছেড়ে নাম লেখান চেলসিতে। এখন খেলছেন অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদে।

তিন মিডফিল্ডার কোভাসিচ, লরেন্তে এবং সেবায়োসের পক্ষে ভাঙা সম্ভব হয়নি জিদানের প্রিয় তিন মিডফিল্ডার ক্যাসেমিরো, টনি ক্রুস ও লুকা মদ্রিচের বন্ধন। ফলে তিনজনই নিজেদের ভবিষ্যত নিয়ে পড়ে যান দুশ্চিন্তায়। এখন চেলসিতে কোভাসিচ এবং আর্সেনালের হয়ে মাঠ মাতাচ্ছেন সেবায়োস।

অন্যদিকে লরেন্তের অবস্থার পরিবর্তন হয়েছে দারুণভাবে। সাধারণত মিডফিল্ডার হলেও অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদে নাম লিখিয়ে তিনি পেয়েছেন আক্রমণভাগে খেলার দায়িত্ব। আশরাফ হাকিমি বরুশিয়া ডর্টমুন্ড হয়ে এখন চলে গেছেন ইন্টার মিলানে। তাদের এই তালিকায় নতুন করে যোগ হতে চলেছে গ্যারেথ বেলের নাম।

সূত্র : জাগো নিউজ
এন এইচ, ১১ আগস্ট

ফুটবল

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে