Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০ , ১০ আশ্বিন ১৪২৭

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৮-১০-২০২০

স্বাধীন সত্তা বিলোপ করে সরকারের চাকর হয়েছে ইসি: রিজভী

স্বাধীন সত্তা বিলোপ করে সরকারের চাকর হয়েছে ইসি: রিজভী

ঢাকা, ১০ আগস্ট- রাজনৈতিক দলের মতামত না নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কথায় নির্বাচন কমিশন স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠান নাম পরিবর্তন করছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

কমিশনকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, আপনার তো নিজেরাই নিজেদের স্বাধীন সত্তা বিলোপ করে চাকর হয়েছেন সরকারের।

সোমবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ছাত্রদল আয়োজিত মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রিজভী এসব কথা বলেন।

স্বেচ্ছাসেবক দলের প্রয়াত সভাপতি শফিউল বারী বাবু ও বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক প্রয়াত আবদুল আউয়াল খানের রুহের মাগফিরাত কামনায় এ মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

নির্বাচন কমিশনকে নির্বাচন ব্যবস্থা ধ্বংস করার প্রতীক উল্লেখ করে রিজভী বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন তো একটি ইন্ডিপেনডেন্ট বডি, স্বাধীন সত্তা।  এখানে প্রত্যেকটি রাজনৈতিক দল এক একটি শেয়ার হোল্ডার।’

আরও পড়ুন: এটাই যেন হয় শেষ বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড: সিনহার মা

তিনি বলেন, ‘আপনি শেখ হাসিনার কথায় দিনের ভোট রাতে করেছেন। ভোটকেন্দ্রে মানুষকে বিতাড়িত করে গরু-ছাগল পাঠিয়েছেন। এটার প্রতীক হলো নির্বাচন কমিশন, নির্বাচনকে ধ্বংস করার প্রতীক হলো নির্বাচন কমিশন।

কমিশনকে উদ্দেশ করে বিএনপি মুখপাত্র বলেন, ‘এ দেশের দীর্ঘদিনের ঐতিহ্য যে পদ্ধতি, সেই পদ্ধতিগুলো আপনি পরিবর্তন করছেন শেখ হাসিনা কথায়। এখানে অন্যান্য কোনো রাজনৈতিক দলের মতামত নিচ্ছেন না কারণ আপনারা তো সরকারি চাকরি করেন। আপনারা তো নিজেরাই নিজেদের স্বাধীন সত্তা বিলোপ করে চাকর হয়েছেন সরকারের।’

তিনি বলেন,  ‘এখন নির্বাচন কমিশনের কোনো কাজ নাই। নির্বাচনক্ষেত্র গোরস্থানে পাঠিয়েছে, দিনের ভোট রাতে করেছে।’

‘এখন তিনি (প্রধান নির্বাচন কমিশনার) বিরাট কাজে হাত দিয়েছেন। উনি ইউনিয়ন পরিষদকে পল্লী পরিষদ করবেন, উনি উপজেলা চেয়ারম্যানকে উপজেলার পিতা করবেন সেই কাজে হাত দিয়েছেন। যে ঐতিহ্য, যে সংস্কৃতি, তিনি সেটাকে ভাঙছেন’ যোগ করেন রিজভী।

এ সময় তিনি বলেন, এই সরকার শুধু ক্রসফায়ার, গুম-খুনের মধ্য দিয়ে একটা অমানবিক রাজনৈতিক সংস্কৃতি চালু করেনি, এই সরকার সারাদেশের মানুষকে মৃত্যুকূপে ফেলে দেওয়ার জন্য সব ব্যবস্থা করেছে।

বিএনপি মুখপাত্রের অভিযোগ, আজকে মেগা প্রজেক্ট করেন, আজকে ফ্লাইওভার করেন আর টাকা চলে যায় কানাডায়, টাকা চলে যায় মালয়েশিয়ায়। শুনি বেগম পল্লী, শুনি সেকেন্ড হোমের কথা। আর বাংলাদেশের হাসপাতালগুলোতে ধুকে ধুকে মরে সাধারণ মানুষ।

জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামলের সঞ্চালনায় মিলাদ ও দোয়া মাহফিলে বক্তব্য রাখেন- বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব খাইরুল কবির খোকন, প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক এবিএম মোশাররফ হোসেন, সহ-সাংগঠনিক শহিদুল ইসলাম বাবুল, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদের ভুঁইয়া জুয়েল, ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান, নির্বাহী কমিটির সদস্য আকরামুল হাসান প্রমুখ।

অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, ছাত্রদল নেতা কাজী রওনুকুল ইসলাম শ্রাবণ,  মাজেদুল ইসলাম রুমণ, সাইফ মাহমুদ জুয়েল, হাফিজুর রহমান, আশরাফুল আলম ফকির লিংকন, আমিনুর রহমান আমিন, আবদুস সাত্তার পাটোয়ারী, রাকিবুল ইসলাম রাকিব, নাছির উদ্দিন নাছির, খন্দকার এনামুল হক, সাজ্জাদ হোসেন রুবেল প্রমুখ।

সূত্র : দেশ রূপান্তর
এম এন  / ১০ আগস্ট

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে