Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০ , ১২ আশ্বিন ১৪২৭

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৭-৩০-২০২০

২ জন রোগীর বিপরীতে ৬৮ জন চিকিৎসক

২ জন রোগীর বিপরীতে ৬৮ জন চিকিৎসক

গাজীপুর, ৩০ জুলাই- স্বাস্থ্য সেবা খাতে যখন বলা হচ্ছে চিকিৎসকদের সংকট। চিকিৎসক বাড়ানোর জন্য প্রধানমন্ত্রী একের পর এক উদ্যোগ নিচ্ছেন। ২ হাজার চিকিৎসক নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। আরো ২ হাজার চিকিৎসক নিয়োগের প্রক্রিয়া চলছে। ঠিক এমন সময় দেখা গেলো ঢাকা এবং ঢাকার আশেপাশের হাসপাতালগুলোতেই অধিংকাশ ডাক্তাররা পদায়ন নিয়েছেন। অন্যদিকে মফস্বল কিংবা উপজেলা পর্যায়ে ডাক্তার নেই। এরকম একটি চাঞ্চল্যকর তথ্য পেয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। আরো চাঞ্চল্যকর তথ্য পাওয়া গেছে ঢাকার অদূরে গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে। এই হাসপাতালটিতেও করোনা রোগীদের চিকিৎসা করা হচ্ছে। চিকিৎসার জন্য বর্তমানে সেখানে রোগী আছেন মাত্র দুই জন। এই দুইজন রোগীর বিপরীতে সেখানে ৬৮ জন চিকিৎসক রয়েছেন। এই ৬৮ জন চিকিৎসক আবার পালাক্রমে দুইজন রোগীকে চিকিৎসা দিচ্ছেন। যেখানে বাংলাদেশ বিশ্বে রোগীর অনুপাতে চিকিৎসকের সংখ্যা কম থাকা দেশের মধ্যে অন্যতম, সেখানে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজের এই ঘটনা চাঞ্চল্যকরই বটে।

আরও পড়ুনঃ ঈদে সরকার এক কোটি দরিদ্র পরিবারকে ১০ কেজি করে চাল দিচ্ছে

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব মো. আবদুল মান্নান এ কথা স্বীকার করে বলেন, এই তথ্যটি জানার পরই স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে আমি সেখানে পাঠিয়েছি এ ব্যাপারটি দেখার জন্য। যারা সেখানে অতিরিক্ত আছেন তাদেরকে যেন অন্যত্র বদলি করে দেওয়া হয় সেজন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য যে, ঢাকা এবং ঢাকার আশেপাশে চিকিৎসকরা থাকতে ইচ্ছুক। ঢাকার বাইরে পদোন্নতি দিলে নানারকম দেনদরবার এবং তদবির করেন। আর এজন্যই দেখা যায় যে, ঢাকায় চিকিৎসকের সংখ্যা অনেক বেশি। যারা ঢাকায় থাকতে পারেন না তারা বড়জোর ঢাকার আশেপাশে দায়িত্ব নেওয়ার চেষ্টা করেন।

স্বাস্থ্য সেবা সচিব মো. আবদুল মান্নান জানান যে, এই যে দুইজন রোগীর জন্য ৬৮ জন চিকিৎসক রয়েছেন সরকারের পক্ষ থেকে তাদেরকে প্রণোদনা দিতে হচ্ছে, বিভিন্ন হোটেলে থাকছেন সেই খরচ সরকারকে বহন করতে হচ্ছে, এছাড়াও এই চিকিৎসকরা একমাসে মাত্র সাতদিন ডিউটি করছেন। এরকম অবস্থা কিভাবে চলতে পারে সেটি বোধগম্য নয়।

তিনি বলেন যে, স্বাস্থ্যখাতে আমরা শুদ্ধি অভিযান শুরু করেছি। শুধু এটি নয়, এরকম যা যা অনিয়ম বিভিন্ন জায়গায় রয়েছে সেই অনিয়মগুলো দূর করার জন্য আমরা সব ধরণের চেষ্টা করছি।

শহীদ তাজউদ্দীন হাসপাতাল নয়, ঢাকা এবং ঢাকার আশেপাশের হাসপাতালগুলোতে এমন বিপুল পরিমাণ চিকিৎসক রয়েছেন সে তুলনায় রোগীর সংখ্যা কত সেটি তদন্ত করছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। 

তথ্যসূত্র: বাংলা ইনসাইডার
এআর/৩০ জুলাই

 

গাজীপুর

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে