Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বৃহস্পতিবার, ৬ আগস্ট, ২০২০ , ২২ শ্রাবণ ১৪২৭

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৭-২৮-২০২০

কর্মসংস্থানে নজির গড়তে চলেছেন মমতা সরকার, প্রচুর নিয়োগের সম্ভাবনা

কর্মসংস্থানে নজির গড়তে চলেছেন মমতা সরকার, প্রচুর নিয়োগের সম্ভাবনা

কলকাতা, ২৮ জুলাই - গোটা দেশ এখন করোনা গ্রাসে। ক্রমশ খারাপ হচ্ছে পরিস্থিতি। করোনার কারণে টলমল দেশের অর্থনীতি। এই পরিস্থিতিতে সর্বত্রই এখন অস্থিরতা। আতঙ্ক। যে কোনও মুহূর্তে চাকরি যাওয়ার ভয়। গোটা দেশজুড়ে চলা ভয়ঙ্কর এই পরিস্থিতিতেই সমস্ত দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার সরকারি ক্ষেত্রে কর্মসংস্থানে নজির গড়তে চলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

সম্প্রতি পাবলিক সার্ভিস কমিশন (পিএসসি) নিয়ন্ত্রিত ক্লার্কশিপের প্রাথমিক পরীক্ষার (প্রিলি) ফল বেরিয়েছে। আর তাতে ৬৬ হাজারের বেশি চাকরি পদপ্রার্থী সফল হয়েছেন। চূড়ান্ত পরীক্ষাতে বসতে চলেছেন তাঁরা। আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর এই সংক্রান্ত পরীক্ষা হতে পারে বলে খবর।

এক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর মোতাবেক, বিশাল সংখ্যক সফল প্রার্থীকে চূড়ান্ত পরীক্ষাতে ডাকা হবে। নিয়োগের ক্ষেত্রেও লিস্ট লম্বা হবে বলে জানা যাচ্ছে। আর তা হলে সরকারি অফিসে করণিক পদে রেকর্ড নিয়োগ হবে রাজ্যে। প্রকাশিত খবর মোতাবেক, ক্লার্কশিপের প্রাথমিক পরীক্ষায় এবার সবচেয়ে বেশি সংখ্যক চাকরিপ্রার্থী সফল হয়েছেন।

আরও পড়ুন: অগাস্ট মাস জুড়ে সপ্তাহে দু’দিন করে লকডাউনের ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

জানা যাচ্ছে, বিভিন্ন সরকারি দফতরে এই মুহূর্তে যা শূন্যপদ, সেই নিরিখে ৬ হাজারের বেশি নিয়োগও হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। আর তা একটা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকারের কাছে একটি রেকর্ড হিসাবেই মনে করা হচ্ছে। তবে শেষ পর্যন্ত কত নিয়োগ করা হবে তা নবান্নই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে বলে জানা যাচ্ছে।

পিএসসি তরফে আরও বলা হয়েছে, এবারে বহু সংখ্যক পরীক্ষার্থী প্রাথমিক পরীক্ষায় একই নম্বর পেয়েছেন। ফলে সফল পরীক্ষার্থীর সংখ্যা অনেক বেড়ে গিয়েছে। প্রকাশিত ওই খবরে বলা হয়েছে যে, ক্লার্কশিপের প্রাথমিক পরীক্ষা হয় গত ২৫ জানুয়ারি।

অঙ্ক, ইংরেজি ও জেনারেল নলেজের উপর ১০০ নম্বরের মাল্টিপল চয়েসের প্রশ্ন ছিল। পিএসসি জানিয়েছে, সাধারণ বা অসংরক্ষিত পরীক্ষার্থীরা ৬৫ পর্যন্ত পেয়ে প্রাথমিক পরীক্ষায় সফল হয়েছেন। তফসিলি জাতি ও উপজাতি পরীক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে সফল হওয়ার ন্যূনতম নম্বর ছিল যথাক্রমে ৪৮.৬৭ ও ২৯.৬৭।

ওবিসি-এ এবং বি শ্রেণীর জন্য ছিল যথাক্রমে ৪৩ ও ৫৬.৩৩। এই হিসেবে মোট ৬৬ হাজার ৪৯২ জন লিখিত চূড়ান্ত পরীক্ষায় বসার সুযোগ পেয়েছেন। পরীক্ষায় বসেছিলেন প্রায় ৬ লক্ষ পরীক্ষার্থী।

এবার সফল পরীক্ষার্থীদের ইংরেজি, বাংলা, হিন্দি, নেপালি, উর্দু এবং সাঁওতালির মধ্যে যে কোনও একটি ভাষার উপর ৫০ নম্বর করে মোট ১০০ নম্বরের চূড়ান্ত লিখিত পরীক্ষায় বসতে হবে। এই পরীক্ষায় মোট প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে সফল চাকরি পদপ্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ করবে পিএসসি। এমনটাই প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে।

সূত্র : কলকাতা২৪
এন এইচ, ২৮ জুলাই

পশ্চিমবঙ্গ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে