Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০ , ১৫ আশ্বিন ১৪২৭

গড় রেটিং: 3.0/5 (10 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৭-২৩-২০২০

বিয়ের আট মাসের মাথায় যৌতুকের বলি গৃহবধূ

বিয়ের আট মাসের মাথায় যৌতুকের বলি গৃহবধূ

নরসিংদী, ২৪ জুলাই- নরসিংদীর রায়পুরায় বিয়ের আট মাসের মাথায় হাবিবা আক্তার (১৯) নামে এক গৃহবধূ যৌতুকের বলি হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনার পর থেকেই ঘাতক স্বামী মো. সাকিব মিয়া পলাতক রয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৩টায় উপজেলা আমিরগঞ্জ পূর্বপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত হাবিবা একই ইউনিয়নের করিমগঞ্জ নয়াহাটির ব্যবসায়ী মো. জাকির হোসেনের মেয়ে।

খবর পেয়ে সন্ধ্যায় আমিরগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই রিয়াজ উদ্দিন ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের লাশ সুরতহাল শেষে ময়না তদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানা গেছে।

পারিবারিক সূত্র জানায়, হাবিবা হাসনাবাদ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ে দশম শ্রেণীতে পড়া অবস্থায় সাকিবের সঙ্গে প্রেমে জড়িয়ে পড়েন। গত আট মাস আগে পরিবারে অমতে দুজন বিয়ে করেন। হাবিবার বাবা বাদে দুই পরিবারে সবাই তাদের বিয়ে মেনে নেয়। বিয়ের পর থেকে যৌতুকের দাবিতে স্বামী তার ওপর অমানবিক নির্যাতন চালায়। পরে মেয়ের সুখের কথা চিন্তা করে হাবিবার পরিবার সাকিবকে আট লাখ টাকা দেয়। সেই টাকায় একটি ট্রলি কিনেন সাবিক। 

আরও পড়ুন:  ফের বিতর্কে জড়ালেন এমপি বুবলি

তিন দিন আগে আবারও যৌতুকের দাবিতে স্বামী তাকে মেরে বাবার বাড়ি পাঠায়। সেখানে দুদিন থাকার পর গতরাতে হাবিবার মা ও এক বোন তাকে বুঝিয়ে-শুনিয়ে শ্বশুরবাড়ি পাঠায়। আজ বিকালে ছেলের বাড়ির লোকজন মেয়ের পরিবারকে জানায় হাবিবা আত্মহত্যা করেছে। খবর পেয়ে হাবিবার মা-বাবা, ভাই-বোন ও আত্মীয়-স্বজনরা এসে দেখতে পান শোবার ঘরের চৌকির ওপর তার নিথর দেহটি রাখা আছে।

হাবিবার বড় বোন ফারজানা জানায়, বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের জন্য সাকিব প্রায়ই হাবিবার ওপর অমানবিক নির্যাতন চালাত। তিন দিন আগেও নির্যাতন করা হয়েছে। পরে বাপের বাড়ির চলে আসেন হাবিবা। গতকাল রাতে হাবিবা তার শ্বশুরবাড়ি চলে আসেন। এরপর স্বামী তাকে অমানবিক নির্যাতন চালিয়ে হত্যা করেন।

আমিরগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই রিয়াজ উদ্দিন জানান, প্রাথমিকভাবে আত্মহত্যার কোনো লক্ষণ ধরা পড়েনি। দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি অভিযোগ পেয়েছি। গৃহবধূর শ্বশুরবাড়ির অভিযোগ আত্মহত্যা অপরদিকে বাবার বাড়ির অভিযোগ যৌতুকের জন্য হত্যা করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, ময়না তদন্ত রিপোর্ট হাতে আসার পর মৃত্যুর প্রকৃত রহস্য জানা যাবে। ঘটনার পর থেকেই গা ঢাকা দিয়েছে নিহত গৃহবধূর স্বামী।  

সূত্র: কালের কন্ঠ

আর/০৮:১৪/২৪ জুলাই

নরসিংদী

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে