Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ৫ আগস্ট, ২০২০ , ২১ শ্রাবণ ১৪২৭

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৭-০৪-২০২০

যে কারণে শাহরুখ খানকে চড় মেরেছিলেন সরোজ

যে কারণে শাহরুখ খানকে চড় মেরেছিলেন সরোজ

মুম্বাই, ৫ জুলাই- বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান। কেউ তাকে কিং খান বলে ডাকেন। কেউ আবার বলেন রোমান্টিক কিং শাহরুখ। মোদ্দা কথা, বলিউডে তিনি প্রভাবশালী। তার আঙুলের ইশারায় অনেক বাস্তবতাও বদলে যায়। সেই তিনি কী না চড় খেয়েছেন! সেটাও আবার শুটিং স্পটে ভরা মজলিসে।

চোখ কপালে উঠলেও কথা সত্যি। একবার এক সিনেমার শুটিংয়ের সময় ‘অনেক কাজ করে ফেলেছি, ক্লান্ত লাগছে’ বলে বসে পড়েছিলেন শাহরুখ। তার মুখে একথা শুনে তাকে থাপ্পড় মেরে ছিলেন সদ্য প্রয়াত ড্যান্স মাস্টার সরোজ খান।

গত শুক্রবার সরোজ খানের মৃত্যুর পর উঠে আসছে অনেক স্মৃতিকথা। শাহরুখ খানও সরোজকে ‘প্রকৃত শিক্ষক’ বলে বর্ণনা করে স্মৃতিচারণ করেছেন।

৩ জুলাই সরোজ খানের মৃত্যুতে নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে শাহরুখ লেখেন, ‘ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে আমার প্রথম এবং প্রকৃত শিক্ষক ছিলেন তিনি। নাচের মধ্যে ডুব দিয়ে কীভাবে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কাটানো যায় তিনি শিখিয়েছেন। তিনি যত্ন করে, ভালোবেসে শিখিয়েছেন। সরোজজি আমার কাছে অনুপ্রেরণা হয়ে থাকবেন। আল্লাহ তার আত্মাকে শান্তি দান করুন। আমাকে এভাবে গড়ে তোলার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।’

শুধু তাই নয়, ২০১৮ সালে টেলিগ্রাফকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে শাহরুখ বলেছিলেন, ‘আমার ক্যারিয়ারের শুরু দিকের কথা। স্পষ্ট মনে আছে। আমি তখন তিনবেলাই কাজ করছি। সরোজজিকে বলেছিলাম, এত কাজ হাঁপিয়ে গেছি। তিনি সেকথা শুনে আমার গালে চড় মারেন। বলেছিলেন, কখনো একথা বলবে না যে অনেক কাজ। আমি তাই নিজেকে ভাগ্যবান মনে করি। যত কাজই থাকুক চাপ লাগে না।’

শাহরুখ-সরোজের সম্পর্ক ছিলো খুবই ভালো। শাহরুখের দুই হাত ছড়িয়ে যে আইকনিক পোজটি, তা শিখিয়েছিলেন সরোজ খানই। এক সাক্ষাৎকারে সরোজ খান বলেন, মরিশাসে যখন বাজিগরের শুটিং হচ্ছে, তখন একটি দৃশ্যে শাহরুখকে আকাশের নিচে দাঁড়িয়ে দুহাত ছড়িয়ে দিতে দেখা যায়। তারপর জামা খুলে বুকে লেখা নামটি ও দেখায়। এই পোজ আমিই ওকে শিখিয়েছিলাম।’

সূত্র: জাগোনিউজ

আর/০৮:১৪/৫ জুলাই

বলিউড

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে