Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ১৭ জানুয়ারি, ২০২০ , ৪ মাঘ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.7/5 (133 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১২-২১-২০১৩

জেনে নিন মুখের দুর্গন্ধ দূর করার সহজ উপায়গুলো

সাদিয়া ইসলাম বৃষ্টি


ব্যস্ততাময় ও কর্মমুখর এই জীবনে নিজের শরীরের জন্যে হয়তো খুব একটা সময় রাখাই হয়না আপনার। যত্ন নেওয়া হয়না দাঁত ও মুখেরও। কিন্তু এই সামান্য অযত্নের ফলে বাড়তে থাকা মুখের দুর্গন্ধ আপনার সামাজিক ও পেশাগত জীবনে ফেলতে পারে অনেক খারাপ প্রভাব। আর তাই খুব কম কষ্টে কি করে স্বাস্থ্যকর নিঃশ্বাসের অধিকারী হওয়া যায় জেনে নিন।

জেনে নিন মুখের দুর্গন্ধ দূর করার সহজ উপায়গুলো

ব্যস্ততাময় ও কর্মমুখর এই জীবনে নিজের শরীরের জন্যে হয়তো খুব একটা সময় রাখাই হয়না আপনার। যত্ন নেওয়া হয়না দাঁত ও মুখেরও। কিন্তু এই সামান্য অযত্নের ফলে বাড়তে থাকা মুখের দুর্গন্ধ আপনার সামাজিক ও পেশাগত জীবনে ফেলতে পারে অনেক খারাপ প্রভাব। আর তাই খুব কম কষ্টে কি করে স্বাস্থ্যকর নিঃশ্বাসের অধিকারী হওয়া যায় জেনে নিন।

আরও পড়ুন: প্রাণ খুলে হাসার চেয়ে ভালো কোনো ওষুধ আর নেই

মুখের দুর্গন্ধ দুরকমের হতে পারে। স্বল্পস্থায়ী এবং দীর্ঘস্থায়ী। স্বল্প সময় ধরে থাকা মুখের দুর্গন্ধ নিয়ে খুব একটা দুশ্চিন্তা করার কিছু নেই। এসময় সামান্য কষ্ট করলেই আপনি দুর করতে পারেন এই ঝামেলাটাকে। সেগুলো হল-

খানিকটা পানি পান করা।
 

দাঁত ব্রাশ করা।

চিনিবিহীন মিন্ট চকোলেট অথবা চুইঙ্গাম খাওয়া।

কিন্তু এটা যদি দীর্ঘস্থায়ী হয় এবং সমস্যায় পরিণত হয়ে থাকে তাহলে নিচের কাজগুলো আপনাকে ভালো ফল দিতে পারে। যেমন-

দিনে দুবার ( সকালে ও রাতে) কমপক্ষে দুই মিনিটের জন্য ব্রাশ করা। ব্রাশ করার সময় কিছু ব্যাপার মাথায় রাখতে হবে। যেমন ডক্টরের পরামর্শ অনুযায়ী ব্রাশ ব্যবহার করা, প্রতি তিন-চার মাস অন্তর ব্রাশ বদলে ফেলা, মুখের প্রতিটি কোনায়, বিশেষ করে মাড়িতে ভালোভাবে ব্রাশ করা, জুস খাবার ৩০ মিনিটের মধ্যে ব্রাশ না করা, প্রয়োজন পড়লে জীহ্বা পরিষ্কার করার জন্য টাঙ ক্লিনার ব্যবহার করা ইত্যাদি।

যেসব খাবার মুখে দুর্গন্ধ সৃষ্টিকারী ব্যাকটেরিয়া উত্পাদন করে সেগুলোকে এড়িয়ে চলা।

নিয়ম মেনে খাওয়া। যেমন- এলকোহল, সিগারেট, পেয়াজ, রসুন, মাছ ইত্যাদি।

দিনে কমপক্ষে ৮ গ্লাস পানি পান করা। পানি জীহ্বাকে নরম হতে এবং এর ওপরে খাবার থেকে জন্ম নেওয়া ব্যাকটেরিয়াগুলোকে দুর করতে সাহায্য করে।

মুখকে শুষ্ক করে দেয় এমন খাবার যেমন- কফি, চা ইত্যাদি পরিহার করা।

ডেইরি পন্য, যেমন- ডিম, দুধ এবং স্নেহজাতীয় খাবার মুখের এ্যাসিডিটির পরিমাণ পরিবর্তন করে ব্যকটেরিয়ার পরিমাণ বৃদ্ধি করে। তাই এগুলোও এড়িয়ে চলা।
 

পানি ছাড়া অন্য কিছু পান করার পর কুলি করে নেওয়া।

জোরে না কাশা। জোরে কাশলে জিহ্বার পেছনে থাকা টনসিল স্টোনের কিছু অংশ, যেগুলো মুখে দুর্গন্ধ সুষ্টি করতে পারে, সামনে চলে আসতে পারে।
 

পেয়ারা এবং এই জাতীয় শক্ত খাবার খাওয়া। এগুলো মুখ পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করে।
 

অন্তত প্রতি দু বছরে একবার ডেন্টিস্টের কাছে যাওয়া।

 

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে