Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ২০ জানুয়ারি, ২০২০ , ৭ মাঘ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.1/5 (37 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১০-০১-২০১১

ছিটমহল বিনিময়ের দাবিতে সাইকেল মিছিল

ছিটমহল বিনিময়ের দাবিতে সাইকেল মিছিল
ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে ছিটমহল বিনিময়ে স্পষ্ট ঘোষণার দাবিতে সাইকেল মিছিল করেছে স্থানীয় বাসিন্দারা।
এই দাবিতে ১০ দিনের কর্মসূচির নবম দিন শনিবার মশাল মিছিল করবে ভারত-বাংলাদেশ ছিটমহল বিনিময় সমন্বয় কমিটি।
সমন্বয় কমিটির বাংলাদেশ ইউনিটের সভাপতি মইনুল হক শুক্রবার সকালে কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার দাসিয়ার ছড়া ছিটমহলের কালিরহাটে সাইকেল মিছিলের উদ্বোধন করেন। কয়েকশ' সাইকেলের এই শোভাযাত্রা গঙ্গারহাট হয়ে ৮ কিলোমিটার দূরের ফুলবাড়ী উপজেলা সদরে পৌঁছায়। সেখানে পথসভা শেষে আবার দাসিয়ার ছড়ায় ফিরে যায় সাইকেল মিছিল।

কুড়িগ্রামে ১২টি ভারতীয় ছিটমহলের অধিবাসীরাও একইভাবে সাইকেল মিছিল নিয়ে নাগেশ্বরী, ভূরুঙ্গামারী ও ফুলবাড়ী উপজেলা সদরে গিয়ে নিজেদের দাবি তুলে ধরে।

ছিটমহল বিনিময় সমন্বয় কমিটির বাংলাদেশ ইউনিটের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, "গাড়াতি ছিটমহলে পঞ্চগড় জেলার ৩৬টি ছিটমহলের সাইকেল মিছিলের শুরু হয়। পঞ্চগড় উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আনোয়ার ছাদাত সম্রাট এতে নেতৃত্ব দেন।"

লালমনিরহাটের পাটগ্রামের পুটিমারী ছিটমহলে হয় ৫৯টি ছিটমহলের অধিবাসীদের সাইকেল মিছিল। এছাড়া নীলফামারী জেলায় চারটি ভারতীয় ছিটমহলের অধিবাসীরা কোট ভাজনী ছিটমহল থেকে সাইকেল মিছিল নিয়ে বের হন।

বাংলাদেশের ভেতরে ভারতের ১১১টি ছিটমহল থেকে বের হওয়া এসব মিছিল পার্শ্ববর্তী উপজেলা শহর প্রদক্ষিণ করে বিভিন্ন স্থানে পথসভা করে।

সমন্বয় কমিটির ভারত শাখার সহ-সাধারণ সম্পাদক দীপ্তিমান সেন গুপ্ত বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে বাংলাদেশের ৫১টি ছিটমহলের মধ্যে কোচবিহার জেলায় ৪৭টি ও জলপাইগুড়ি জেলায় ৪টি ছিটমহল আছে।

শুক্রবার সকালে উত্তর বাঁশজানি ছিটমহলে মিলন বকসী, দক্ষিণ মশালডাঙ্গায় রাজু ভট্টাচার্য, মধ্য মশালডাঙ্গায় নওশের আলী, মধ্য বাকালির ছড়ায় গবিন্দ্র চন্দ্র বর্মণ, ছিট প্রসাদ মুস্তাফিতে ঈশ্বর চন্দ্র বর্মণ, ছিট করলায় নূর উদ্দিন মিয়া এবং মধ্য মশালডাঙ্গা ছিটমহলে বেলাল হোসেনের নেতৃত্বে সাইকেল মিছিল বের হয়।

এছাড়া অন্যান্য ছিটমহল থেকে বের হওয়া সাইকেল মিছিল তিন ভাগে বিভক্ত হয়ে ভারতের দিনহাটা, মাথাভাঙ্গা এবং মেকলিগঞ্জ মহকুমা শহরে মিলিত হয়।

বাংলাদেশের ভেতরে ১১১টি ভারতীয় ছিটমহল এবং ভারতের সীমানায় বাংলাদেশের ৫১টি ছিটমহল রয়েছে।

১৯৭৪ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও ইন্দিরা গান্ধীর মধ্যে হওয়া ভারত-বাংলাদেশ স্থল সীমান্ত চুক্তিতে দুদেশের মধ্যে ছিটমহল বিনিময় বিষয়টি উল্লেখ থাকলেও এতোদিনে তা আলোর মুখ দেখেনি।

তবে গত ৬ ও ৭ সেপ্টেম্বর ভারতের প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের ঢাকা সফরে ১৯৭৪ সালের স্থলসীমা চুক্তি বাস্তবায়নে একটি প্রটোকলে সই করে দুদেশ।

নতুন করা ওই প্রটোকলের মাধ্যমে ১৯৭৪ সালের চুক্তির আওতায় এসব ছিটমহল বিনিময় করার সুযোগ হবে। এছাড়া দুদেশের মধ্যে সাড়ে ৬ কিলোমিটার অচিহ্নিত সীমানা এবং অপদখলীয় ভূমি সমস্যারও সমাধান করা হবে এর মাধ্যমে।

তবে ছিটমহলবাসীর আশা ছিল, মনমোহনের সফরের সময়ই এ ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট দিন তারিখ ঘোষণা করা হবে। ছিট বিনিময়ের বিষয়টি দ্রুত বাস্তবায়নের দাবিতে তখন থেকেই বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে আসছেন তারা।

এশিয়া

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে