Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৯ , ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.3/5 (15 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১২-২৮-২০১১

উৎসব মুখর পরিবেশে ‘ক্রিসমাস ডে’

উৎসব মুখর পরিবেশে ‘ক্রিসমাস ডে’
মেট্রো ওয়াশিংটনসহ যুক্তরাষ্ট্রে উৎসব মুখর পরিবেশে পালিত হল‘ক্রিসমাস ডে’। ২৪শে ডিসেম্বর সন্ধ্যায় (খ্রিস্টমাস ইভ) থেকেই সামাজিক এবং পারিবারিক প্রীতিবন্ধনের সমাবেশ থেকে এই মহাজন্মোত্সবের সুচনা হয়।

তবে এই উৎসবের প্রস্তুতি চলেছে মাসব্যাপী। প্রথা অনুসারে নভেম্বরের শেষ বৃহস্পতিবার থ্যাঙ্কস গিভিং দিবসের পরে ব্লাক ফ্রাইডে থেকে প্রিয়জনদের জন্য উপহার সামগ্রী সংগ্রহের মাধ্যমে এই মহা উৎসবের  প্রস্তুতি শুরু হয়। মাসব্যাপী বাসা বাড়ীতে আলোক সজ্জা,  গির্জাসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, শপিং মল ও বাসাবাড়িতে ‘ক্রিসমাস ট্রি’ স্থাপন, রংগীন বল, জড়ি, ক্যান্ডীসহ নানা উপকরণে  ক্রিসমাস ট্রি সজ্জা, প্রীতিভোজ, খ্রিস্টমাস কেক কাটার আনন্দের মধ্য দিয়ে উৎসবের  সামাজিক পর্বটি সমাপ্তি হয়। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান  এবং কর্মক্ষেত্রের প্রতিটি স্তরে আদান প্রদান করা হয় উপহার সামগ্রী, আয়োজন করা হয় প্রীতিভোজের। সিক্রেট সান্তার লুকোচুরির খেলায় গিফট আদান প্রদান হয়ে থাকে মহা আনন্দ ধারায়। এই সময় শপিং  মলগুলি হয়ে উঠে প্রানচাঞ্চল্য। রংগীন সজ্জায় সজ্জিত  মলে স্থাপিত দীর্ঘ ‘ক্রিসমাস ট্রি আর লাল পোষাক আর ধবধবে সফেদ চুল-দাড়ি, উপহার ভর্তি কাঁধের লাল ঝোলা শিশুদেরকে দারুন ভাবে আকৃষ্ট করে।  শপিং মলগুলির উপচে পড়া ভীড় বাংলাদেশের ঈদের বাজারকেই স্নরণ করিয়ে দেয়। সত্যিকার অর্থে দেশে ঈদের আনন্দ প্রবাসে এই ‘ক্রিসমাস ডে’র আনন্দের সমার্থ হয়ে উঠে। ‘ক্রিসমাস ডে’ উপলক্ষে প্রায় প্রতিটি বাড়ীই সাজানো হয় বর্নিল আলোক সজ্জায়। অনেকেই গাড়ী নিয়ে বেড়িয়ে পড়ে এই আলোক সজ্জার দৃষ্টি নন্দন শোভা অবলোকনে। এমনি করেই খ্রিষ্টধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উত্সব হয়ে উঠে সর্বজনীন উৎসব। এরই মধ্যে ব্যস্ত নগরী এবং শপিং মলগুলির প্রানচাঞ্চল্যতা থেমে গেছে। অতি জরুরী কিছু দোকান ছাড়া খ্রিস্টমাস ইভের সন্ধ্যার আগেই সব কিছু বন্ধ হয়ে যায়। খ্রিস্টমাস ইভের আলোক ছটায়  নানা  আয়োজনে,  আবেগ আর অনুভুতি নিয়ে ‘ক্রিসমাস ডে’আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয় বন্ধু এবং পরিবারের প্রিয়জনদের সান্নিধ্যে । সারা মাসব্যাপী পাওয়া উপহার সামগ্রী যা বাড়ীতে স্থাপিত ‘ক্রিসমাস ট্রি" পাশে জমা ছিল, সকলের উপস্থিতিতে সেই উপহার সামগ্রীগুলি  খোলা হয় আনন্দ চিত্তে। রাতে প্রতিটি বাড়ীতেই আয়োজন করা হয় সুস্বাদু খাবারের।  সারা রাত আনন্দ উল্লাসের মধ্যে কেটে যায় প্রতিক্ষিত এই উৎসবের তার। ২৫শের দুপুরে প্রধান আয়োজন প্রার্থনা সভার। এই সময় দল বেধে নতুন পোষাকের সাজ সজ্জায়  ছুটে যায় গীর্জায়।  অংশ নেয় পৃথিবীর সকল  মানুষের কল্যানে বিশেষ প্রার্থনার।


মেট্রো ওয়াশিংটনের বাংলাদেশী আমেরিকানদের "খ্রীসমাস ডে উপদযাপন

বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো  মেট্রো ওয়াশিংটনের বাংলাদেশী বাংগালী  খ্রিস্টান সম্প্রদায় উৎসব, আনন্দ আর প্রার্থনার মধ্য দিয়ে দিবসটি উদযাপন করেন। যিশুখ্রিস্টের জন্মতিথিতে বাসের বাংলাদেশী আমেরিকান খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের
সাথে একাত্ম হয়ে ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে সকল প্রবাসী বাংলাদেশী্র অন্তরে লেগেছিল উৎসবের ছোঁয়া। উৎসবের আনন্দের মাঝে খ্রীসমাস ডে এর এই উৎসব হয়ে
 উঠে সার্বজনীন। মোমবাতি প্রজ্জ্বলন,‘ক্রিসমাস ট্রি’র পরূপ সাজের মাঝে উপহার সামগ্রী বিনিময় সাথে সুস্বাদু খাবার আর কেক এবং বাড়ির আংগিনায় আলোক সজ্জা করে  দিবসটিকে করে তোলে আরো আলোকিত।

"খ্রীসমাস ডে"কে কেন্দ্র করে প্রতিবারের ত এবারো মেট্রো ওয়াশিংটনের পরিচিত মুখ সংগীত শিল্পী ডরথী বোস রিমি / ডেভিড সমাদ্দার রানার বাসায় এবং  জনাব বেঞ্জামিনের বাড়িসহ বাংলাদেশী বাংগালী  আয়োজন করা হয় ক্রিসমাস পার্টির।

বড়দিনের  লোভনীয় খাবার , শোভনীয় ক্রিসমাস ট্রি আর বাহারী উপহারের সাথে অফুরন্ত আড্ডায় এক আনন্দ ভুবনে বেশ কিছুটা সময় কেটে যায় অনুষ্ঠানে  আগত ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে সকলের। রিমি, রানা, ঞ্জামিন আর ফ্লোরা ভাবীর আন্তরিক আপ্যায়ন তাতে ভিন্ন মাত্রা যোগ দেয়।

এ ছাড়া  প্রবাসের  আরো অনেক ব্যক্তি এবং গ্রুপ নিজ নিজ  বৃত্তে  খ্রীসমাস ডে উপলক্ষে প্রীতি সমাবেশের আয়োজন করে।

যূক্তরাষ্ট্র

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে