Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ১৫ জুলাই, ২০২০ , ৩১ আষাঢ় ১৪২৭

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৫-২৪-২০২০

মেস ভাড়া মওকুফের আহ্বান জানিয়ে ছাত্রফ্রন্টের খোলা চিঠি

মেস ভাড়া মওকুফের আহ্বান জানিয়ে ছাত্রফ্রন্টের খোলা চিঠি

সিলেট, ২৪ মে- করোনার প্রাদুর্ভাবকালীন সময়ে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের মেস ভাড়া মওকুফের আহ্বান জানিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বরাবর খোলা চিঠি লিখেছেন শাবিপ্রবি সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রণ্ট। রবিবার সকালে সংগঠনটির পক্ষ থেকে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। 

খোলা চিঠিতে সংগঠনটির নেতৃবৃন্দরা বলেন, করোনা সঙ্কটকালীন সময়ে ঢাকাসহ সারাদেশের নানা প্রান্তে মেসের ভাড়া নিয়ে বিভিন্ন সংকটের মধ্যে পড়েছেন শিক্ষার্থীরা। মেসের ভাড়া দিতে না পারলে জিনিসপত্র নিয়ে মেস থেকে চলে যেতে বলছেন মালিকরা। বারবার বাসায় ফোন আসছে। কথা শোনার ভয়ে অনেকে ফোনও বন্ধ করে রাখছে। আবার অনেকে নিজেদের রেখে আসা জিনিসপত্রের কি হবে না হবে ভেবে বা একটা কিছু ব্যবস্থা হবে আশা করে অনুনয়-বিনয় করে মেস মালিকদের কাছ থেকে সময়ও নিচ্ছেন। এর মধ্যে যাদের বাবা কৃষক, শ্রমিক, ক্ষুদে ব্যবসায়ী, কম্পানির চাকুরে সবার আজ বেহাল দশা । এদের কারো কারো অবস্থা কল্পনা করেও অনুভব করা যাবে না।    

এদিকে শিক্ষার্থীদের মেস ভাড়া মওকুফের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় খোলার পর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। যা খুবই অদূরদর্শী ও অযৌক্তিক সিদ্ধান্ত বলে মনে করছেন সংগঠনটির নেতৃবৃন্দরা। এর কারণ উল্লেখ করে নেতৃবৃন্দ বলেন, মেস বা বাড়ি মালিকদের সাথে আলোচনা ব্যতীত তারা ভাড়ার ব্যাপারে কখনোই চাপ দেওয়া বন্ধ করবে না। সেজন্য যত দ্রুত সম্ভব উদ্যোগ গ্রহণ প্রয়োজন। 

এদিকে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যোগে ও জেলা প্রশাসনের সমন্বয়ে শহরের বিভিন্ন কলেজ, মেস বা বাড়ির মালিক সমিতি, স্থানীয় প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসন আলোচনা করে ভাড়া মওকুফের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। ফলে অতিসত্ত্বর কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণ শাবিপ্রবি প্রশাসনের সদিচ্ছার পরিচায়ক হবে বলে মনে করেন তাঁরা।

চিঠিতে নেতৃবৃন্দরা বলেন, আমরা সকলেই জানি যে বিশ্ববিদ্যলয়ের একেকটি গবেষণা কোটি কোটি মানুষের বেঁচে থাকা ও জীবনযাপনের ক্ষেত্রে অনেক বড় ভূমিকা পালন করতে পারে। বর্তমান করোনা পরিস্থিতি সেই উপলব্ধি বাড়িয়ে দিয়েছে। ভাইরাস নিয়ে গবেষণায় এবং মোকাবেলায় দেশের বেশিরভাগ বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণার মতো আমাদের দুর্দশাও চাক্ষুষ হয়েছে। এর কারণগুলো খুঁজতে গেলে গবেষণার সুযোগ, অর্থ বা অবকাঠামোর অভাবের সাথে শিক্ষার্থীদের শিক্ষা জীবনে কষ্টকর সংগ্রামের কথাও উঠে আসে।

তারা আরো বলেন, সারাদিনের একাডেমিক ব্যস্ততা শেষে পড়তে বসায় সময় বের করব নাকি মাস অতিক্রম করার জন্য অত্যাবশ্যক টিউশনি করবে -তাই ভাবার বিষয় হয়ে দাঁড়ায়। সেই খরচের চাপ কমিয়ে স্বাস্থ্যকর একটি পরিবেশে বসবাসের ব্যবস্থা করতে পারত আবাসিক হলের ব্যবস্থাদী। যেখানে হলের সিটে থাকা একজন শিক্ষার্থীর অত্যাবশ্যক অধিকার সেখানে প্রায় ১০৪০০ জনের এই বিশ্ববিদ্যালয়ে হলে থাকতে পারে মাত্র ২০০০ থেকে ২৫০০ জন। দীর্ঘদিন আমাদের সংগঠন, অন্যান্য সংগঠন ও শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে দাবি উঠলেও সংকট নিরসনে কোনো কার্যকর উদ্যোগ নেয়নি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। হলের মধ্যে বসবাসের উন্নত ব্যবস্থা যদি করা সম্ভব হতো তবে বহু শিক্ষার্থীর শিক্ষা জীবনের বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণা পরিস্থিতির একটি উল্লেখজনক পরিবর্তন আমরা হয়তো দেখতে পারতাম। বর্তমান অবস্থার মতো মেস মালিকদের অহেতুক ঝামেলারও সৃষ্টি হতো না । 

এদিকে চলতি বছরের অর্থবাজেট সম্পর্কে নেতৃবৃন্দরা বলেন, চলতি বছরের জুন মাসে ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেট প্রণয়ন হবে। এবারের বাজেটে যেন শিক্ষা খাতে বরাদ্দ পর্যাপ্ত বাড়ানো হয় এবং তা যেন শাবিপ্রবি'র বাজেটেও ভূমিকা রাখতে পারে সে ব্যাপারে শাবি প্রশাসনের উদ্যোগ নেওয়া দরকার। এই বর্ধিত বাজেটটি করোনা সংকট পরবর্তীতে সংকটগ্রস্ত শিক্ষার্থীদের বেতন ফি মওকুফের ও সহযোগিতা প্রদানের ক্ষেত্রে ভূমিকা রাখবে। ফলে মেস মালিকরা দীর্ঘসময় মেসের ভাড়া মওকুফ না করলেও সহায়তা প্রদানের পর শাবিপ্রবি প্রশাসন অর্থ সংকটে পড়লেও এই বাজেট দিয়ে সেই সংকট দূর করা সম্ভব হবে বলে মনে করছেন তাঁরা। 

এই চিঠিতে শিক্ষার্থীরা তাদের বিভিন্ন পর্যবেক্ষণ ও শিক্ষার সমস্যা ও সংকটগুলো কাটাতে কি কি উদ্যোগ নেওয়া যেতে পারে তা তুলে ধরেছেন বলে দাবি করছেন তাঁরা। এই কথা ও দাবিগুলো শিক্ষার্থীদের প্রাণের দাবি বলে মনে করছেন নেতৃবৃন্দরা। দাবিগুলো বাস্তবায়ন করে এই সংকট মোকাবেলা করতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন যথাযথ ভূমিকা রাখবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তাঁরা।

সূত্র : কালের কণ্ঠ
এম এন  / ২৪ মে

শিক্ষা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে