Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শনিবার, ১১ জুলাই, ২০২০ , ২৭ আষাঢ় ১৪২৭

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৫-২০-২০২০

ঘরভাড়া না দেয়ায় ভাড়াটিয়াকে পিটিয়ে জখম, গ্রেফতার দুই

ঘরভাড়া না দেয়ায় ভাড়াটিয়াকে পিটিয়ে জখম, গ্রেফতার দুই

ঢাকা, ২০ মে - ঘরভাড়া না দেয়ায় রাজধানীর চকবাজার থানাধীন হোসনী দালান শিয়া গলির এক বৃদ্ধ ভাড়াটিয়াসহ তার দুই ছেলেকে পিটিয়ে গুরুতর জখম করেছে বাড়ির মালিক ও তার ভাতিজা। মঙ্গলবার বিকেলে হোসনী দালান, শিয়া গলির ১৬ নং ভাড়া বাসায় এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- পিঠা ঝালমুড়ি বিক্রেতা মো. হান্নান (৫০), ছেলে আল আমিন (২৪) ও সাইদুল ইসলাম (২০)। পরে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন ডিএমপির লালবাগ বিভাগের চকবাজার জোনের সহকারী কমিশনার মো. ইলিয়াছ হোসেন।

আটক করেন বাসার মালিক রাজু আহমেদ ও ভাতিজা সোহানকে। ওই ঘটনায় রাতেই চকবাজার থানায় একটি মামলা নথিভুক্ত হয়েছে।

মারধরের শিকার ভাড়াটিয়া মো. হান্নান কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, ‘পিঠা ও ঝালমুড়ি বিক্রি করে আমার সংসার চলে যায়। দীর্ঘ ৫ বছর ধরে এই বাসায় ভাড়ায় বসবাস করে আসছি। কখনও ভাড়া নিয়ে সমস্যা হয়নি। কিন্তু এবার করোনার কারণে পিঠা ও ঝালমুড়ি ব্যবসা চলছে না। দুই মাসের এই করোনার কারণে বিক্রি বন্ধ থাকায় আর্থিক সংকটে পড়েছি। যে কারণে ভাড়া দিতে পারিনি’।

তিনি বলেন, ভাড়া দিতে না পারায় মালিক বাসায় তালা দিয়ে দেয়। আজ বিকেলে দোতলায় চাবি দেয়ার জন্য অনুরোধ করলে তিনি রেগে যান। তখন বলি প্রতিমাসে ১২ হাজার করে টাকা ভাড়া দিয়ে আসছি, কখনও সমস্যা হয়নি। এইবারই প্রথম। যদি একান্তই না মানেন তাহলে অ্যাডভান্স হিসেবে দেয়া ৪০ হাজার টাকা থেকে কেটে নিন। এই কথা শোনা মাত্রই বাড়ির মালিক আমার বুকে আঘাত করে। দুই ছেলেকে মাথায় ও হাতে আঘাত করে। তিনজনকেই রক্তাক্ত করে বের করে দেয়। অন্য ভাড়াটিয়াদের সহযোগিতায় বেরিয়ে আসি, সে সময়ও হত্যার হুমকি দিতে থাকে’।

এ ভাড়াটিয়া বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ আসে। পুলিশই আমাদের হাসপাতালে নেয়। মাথায় ৩টি সেলাই লাগে এবং হাতে মাথায় ব্যান্ডেজ দিতে হয়।

চকবাজার জোন পুলিশের সহকারী কমিশনার মো. ইলিয়াছ হোসেন বলেন, ওই বাসার মালিক রাজু আহমেদ আরও ভাড়াটিয়ার ঘরে তালা দিয়েছেন ভাড়ার জন্য। সবাই চাবি ফেরত পেলেও হান্নানের পরিবার কাকুতি-মিনতি করেও ঘরে ঢোকার চাবি পায়নি। এই করোনায় মানবিকতাকেই সবাই যেখানে গুরুত্ব দিচ্ছে, সেখানে তিনি এক মাসের ভাড়ার জন্য দীর্ঘদিনের ভাড়াটিয়াকে পিটিয়ে রক্তাক্ত করেছেন।

তিনি বলেন, পিটিয়ে রক্তাক্ত করার খবর পাওয়ার পর ঘটনাস্থলে টহল পুলিশ দল নিয়ে উপস্থিত হই। আহতদের উদ্ধার করে মেডিকেলে পাঠানো হয়। ভাড়াটিয়াদের জখম করার অপরাধে বাড়ির মালিক রাজু আহমেদ ও তার ভাতিজা মো. সোহানকে আটক করে থানায় নেয়া হয়েছে।

ভুক্তভোগী ভাড়াটিয়ার অভিযোগের ভিত্তিতে চকবাজার থানায় একটি মামলা রুজু করা হয়। মামলা নং ৬। পুলিশ মামলার বাদী ও তার ছেলেদের নিরাপত্তা দেওয়া ও ওই বাসায় থাকার ব্যবস্থা করে দিয়েছে। বুধবার সকালে দায়ের করা মামলায় বাড়ির মালিক রাজু আহমেদ ও তার ভাতিজা মো. সোহানকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে সোপর্দ করা হবে।

সূত্র : জাগো নিউজ
এন এইচ, ২০ মে

ঢাকা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে