Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৯ , ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.8/5 (10 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ১২-১২-২০১৩

লক্ষ্মীপুরে তিনজন নিহত, ১৮ দলের তাণ্ডব, র‌্যাব অবরুদ্ধ


	লক্ষ্মীপুরে তিনজন নিহত, ১৮ দলের তাণ্ডব, র‌্যাব অবরুদ্ধ

লক্ষ্মীপুর, ১২ ডিসেম্বর- লক্ষ্মীপুর জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাহাবউদ্দিন সাবুর বাসভবনে আজ বৃহস্পতিবার ভোরে অভিযান চালায় র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। এ ঘটনার জেরে ১৮ দলের কর্মী-সমর্থকদের সঙ্গে র‌্যাবের দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়। এতে তিনজন নিহত হয়েছে বলে র‌্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক জিয়াউল আহসান নিশ্চিত করেছেন।

১৮ দলের কর্মী-সমর্থকদের সঙ্গে র‌্যাবের সংঘর্ষ একপর‌্যায়ে পুরো শহরে ছড়িয়ে পড়ে। শহরে তাণ্ডব চালায় কর্মী-সমর্থকেরা। দুপুর ১২টার দিকে পুলিশ লাইনের সামনে র‌্যাবকে অবরুদ্ধ করে ফেলে তারা। অবরুদ্ধ র‌্যাব সদস্যদের উদ্ধারে ঢাকা থেকে হেলিকপ্টারে করে র‌্যাব সদস্যরা ঘটনাস্থলে যান।

হেলিকপ্টারে করে যাওয়া র‌্যাব-১১-এর সদস্যরা বেলা সোয়া তিনটার দিকে অবরুদ্ধ কয়েকজন র‌্যাব সদস্যকে উদ্ধার করেন। এরপর তাঁরা ১৮ দলের কর্মী-সমর্থকদের ধাওয়া দিয়ে ছত্রভঙ্গ করতে শুরু করে। র‌্যাব সদস্যরা এখন নিরাপদে আছেন বলে বিকেল চারটার দিকে র‌্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক জানান।

বিএনপির নেতার বাড়িতে অভিযানের জের ধরে সকালে ১৮ দলের কর্মী-সমর্থকদের সঙ্গে র‌্যাবের সংঘর্ষে অন্তত ১৫ জন গুলিবিদ্ধ হন। এর প্রতিবাদে আগামী শনিবার জেলায় সকাল-সন্ধ্যা হরতালের ডাক দিয়েছে ১৮ দল।

এলাকাবাসী ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, আজ ভোর ছয়টার দিকে বিএনপির নেতা সাহাবউদ্দিন সাবুর বাসভবনে র‌্যাব অভিযান চালায়।
এই নেতার পরিবারের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, অভিযানের সময় র‌্যাবের গুলিতে সাহাবউদ্দিন সাবু গুলিবিদ্ধ হন। পরে তাঁকে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ খবর শুনে জেলা যুবদলের ১০-১৫ জনের একটি দল মিছিল নিয়ে শহরের চকবাজার মসজিদের সামনে গেলে র‌্যাবের সঙ্গে তাঁদের সংঘর্ষ হয়। এ সময় র‌্যাবের গুলিতে দুজন গুলিবিদ্ধ হন।

পরে শহরের আলিয়া মাদ্রাসা, ঝুমুর সিনেমা হলসহ বিভিন্ন স্থানে ১৮ দলের কর্মী-সমর্থকদের সঙ্গে র‌্যাবের দফায় দফায় ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও সংঘর্ষ হয়। এ সময় এনএসআই সদস্য আনোয়ার হোসেন, বিএনপির কর্মী মানিক হোসেন, শিমুল, বারিক হোসেন, কামাল হোসেন, ওসমান, টিপু ও তারেকসহ ১২ জন গুলিবিদ্ধ হন। তাঁদের লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) লোকমান হোসেন র‌্যাবের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। সাহাবউদ্দিন সাবুসহ গুলিবিদ্ধ ব্যক্তিদের লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

লক্ষীপুর

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে