Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ১৩ জুলাই, ২০২০ , ২৯ আষাঢ় ১৪২৭

গড় রেটিং: 3.0/5 (10 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৪-২৯-২০২০

করোনাকালে জনপ্রিয় হচ্ছে ভিডিও কনফারেন্স

তৌফিক ওরিন


করোনাকালে জনপ্রিয় হচ্ছে ভিডিও কনফারেন্স

করোনাভাইরাস (কোভিড ১৯) প্রাদুর্ভাবে সব ধরনের সভা, সমাবেশ বা জনসমাগম নিষিদ্ধ করেছে সরকার। ফলে বিভিন্ন সভা বা অনুষ্ঠান টেলিকনফারেন্স ও ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সম্পন্ন হচ্ছে। সরকারি-বেসরকারি এসব কার্যক্রমে বাসা থেকেই অংশ নিচ্ছেন অতিথিরা। ফলে জনপ্রিয় হচ্ছে ভিডিও বা টেলিকনফারেন্স কনফারেন্স।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে দেশব্যাপী চলমান কার্যক্রম সমন্বয়ের লক্ষ্যে গত ৩১ মার্চ গণভবন থেকে ৬৪ জেলার কর্মকর্তাদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে সংযুক্ত হন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ৫ এপ্রিল গণভবন হতে করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের কারণে দেশে সম্ভাব্য অর্থনৈতিক প্রভাব ও উত্তরণের কর্মপরিকল্পনা ঘোষণা করেন। ৭ এপ্রিল চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের জেলাসমূহ, ১২ এপ্রিল বরিশাল ও খুলনা বিভাগের জেলাসমূহ, ১৬ এবং ২০ এপ্রিল ঢাকা বিভাগের জেলাসমুহ, ২৭ এপ্রিল রাজশাহী বিভাগের জেলাসমূহের সাথে কর্মকর্তাদের সাথে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হন। এছাড়া সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের সভাও হচ্ছে ভিডিও কনফারেন্সে।

বুধবার স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দাপ্তরিক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। করোনা ভাইরাস সংক্রমণের পরিস্থিতিতে জনসমাগম এড়িয়ে দাপ্তরিক কাজ স্বাভাবিক রাখাতে এ উদ‍্যোগ নেয়া হয়েছে।

অনলাইন মিটিং প্রসঙ্গে পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের সচিব রেজাউল আহসান বলেন, করোনাভাইরাস সংক্রমণ থেকে বাঁচতে জনসমাগম এড়িয়ে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মিটিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এতে অত্র বিভাগের স্বাভাবিক কার্যক্রম অব‍্যাহত থাকবে, বাঁচবে সময়। দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের প্রেক্ষাপটে বিভাগের অধীন অধিদপ্তরগুলোর সঙ্গে আরো একাধিক জরুরি মিটিং ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হবে। প্রযুক্তি ব‍্যবহারে স্বাভাবিক কার্যক্রম অব‍্যাহত রাখা দেশের ডিজিটাল অগ্রগতির এটি একটি উদাহরণ। বর্তমানে ই-ফাইলিংয়ের মাধ‍্যমে প্রতিকূল পরিবেশেও অত্র বিভাগের কার্যক্রম স্বাভাবিকভাবে চলমান আছে।

শুধু সরকারি নয়, বেসরকারি অফিসগুলোতেও জনপ্রিয় হচ্ছে ভিডিও কনফারেন্স। করোনা প্রাদুর্ভাবের পর বিভিন্ন বেসরকারী অফিস বাসা থেকে কাজ করার অনুমতি দিয়েছে। ফলে এসকল অফিসের জরুরী মিটিং সম্পন্ন হচ্ছে ভিডিও অথবা টেলিকনফারেন্সের মাধ্যমে। বাসা থেকে অনলাইনে যুক্ত হয়ে মিটিংয়ে অংশ নিচ্ছেন।

টেলিভিশন চ্যানেলগুলোর অনেক অনুষ্ঠানও হচ্ছে বাসা থেকে। উপস্থাপক বা উপস্থাপিকা নিজ বাসায় থেকে অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করছেন। অতিথিরাও নিজ নিজ বাসা থেকেই আলোচনায় অংশ নিচ্ছেন। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমেই চলছে এসব আয়োজন।

শুধু জরুরি সভা কিংবা অনুষ্ঠান নয়, আড্ডাও চলছে অনলাইনে। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অনলাইন আড্ডা দিচ্ছেন বিভিন্ন বয়সী মানুষ। ঘর থেকে বের না হয়ে বাসায় থেকে অনলাইন আড্ডায় অংশ নিচ্ছেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী শিবলী নোমানী। প্রতিষ্ঠান লক ডাউনের কারণে নিজ গ্রামে অবস্থান করছেন তিনি। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ে বন্ধুদের সাথে আড্ডা থেমে নেই। একটি নির্দিষ্ট সময়ে বন্ধুদের সাথে ভিডিও কনফারেন্সে আড্ডা তিনি।

এ প্রসঙ্গে শিবলী বলেন, সারাদিন বাসায় থেকে বোর হয়ে যাই। একঘেয়েমি কাটাতে ভিডিও কলের মাধ্যমে বন্ধুদের সাথে আড্ডা দেই। সময়ও ভালো কাটে, একে অপরের খোজ খবরও নিতে পারি।

সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল

আর/০৮:১৪/৩০ এপ্রিল

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে