Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ১৭ জানুয়ারি, ২০২০ , ৪ মাঘ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.7/5 (3 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১২-২৭-২০১১

বাংলাদেশে যুদ্ধের ঝুঁকি দেখিয়ে বীমা কোম্পানির অনৈতিক ব্যবসা

বাংলাদেশে যুদ্ধের ঝুঁকি দেখিয়ে বীমা কোম্পানির অনৈতিক ব্যবসা
যুদ্ধের দোহাই দেখিয়ে এ দেশের বীমা (ইন্সুরেন্স) কোম্পানিগুলো আমদানিপত্রের বিপরীতে ‘যুদ্ধ ঝুঁকি বীমা’ আদায় করছে।

আন্তর্জাতিক কোনও মানদণ্ডের ভিত্তিতে এ দেশকে যুদ্ধের আওতায় দেখানো না হলেও এদেশের বীমা কোম্পানিগুলো এ কাজ করছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সমুদ্রসীমা অণুবিভাগের অতিরিক্ত সচিব কমোডর (অব.) খুরশীদ আলম এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘বীমা কোম্পানিগুলো সম্পূর্ণ অনৈতিকভাবে যুদ্ধ ঝুঁকি বীমা আদায় করছে।’

সমুদ্রসীমা ও আন্তর্জাতিক জাহাজ চলাচল বিষয়ে বাংলাদেশকে ঝুঁকির মধ্যে রাখার ওপর কাজ করতে গিয়ে এ বিষয়টি সম্পর্কে জানতে পারেন নৌ বাহিনীর সাবেক কর্মকর্তা খুরশীদ আলম।  

তিনি বলেন, ‘এদেশের ব্যবসায়ীদের আমদানিপত্র (এলসি) খুলতে গেলেই যুদ্ধ ঝুঁকি বীমা নেওয়া হয়।’

আমদানিকৃত পণ্যের দামের ওপর দশমিক শূণ্য পাঁচ শতাংশ হারে এ বীমার প্রিমিয়াম নেওয়া হচ্ছে বলে তিনি জানান।

তিনি বলেন, ‘বীমা আদায়ের হার আপাত দৃষ্টিতে কম মনে হলেও এটি অনেক টাকা। অতিরিক্ত এই অর্থ তো আমদানিকৃত পণ্যের দাম বাড়িয়ে দেয়।’

খুরশীদ বলেন, ‘যুদ্ধ ঝুঁকি বীমা কেন নেওয়া হয় তা জানতে আমি কয়েকটি বীমা কোম্পানির সঙ্গে এরই মধ্যে যোগাযোগ করেছি। কিন্তু কোনও জবাব পাইনি।’

তিনি আরও বলেন, ‘পররাষ্ট্রমন্ত্রী দীপু মনিকেও বিষয়টি জানানো হয়েছে।’

অতিরিক্ত পররাষ্ট্র সচিব বলেন, ‘বীমা কোম্পানিগুলো বিষয়টি নিয়ে ব্যাংকগুলোর ওপর দোষ চাপাচ্ছে। আবার ব্যাংকগুলো বলছে, দায়ী হলো ইন্স্যুরেন্স কোম্পানিগুলো।’
 
খুরশীদ আলম বলেন, ‘যে যার ওপরই দোষ চাপাক না কেন, এটি অনৈতিকভাবেই আদায় করা হচ্ছে। কারণ বাংলাদেশ তো যুদ্ধের ঝুঁকিতে নেই।’

প্রসঙ্গত, দেশে ৬০টি বীমা কোম্পানি রয়েছে। এর মধ্যে সাধারণ বীমা কোম্পানি ৪৩টি। অবশিষ্ট ১৭টি জীবন বীমা। বীমা কোম্পানিগুলোর বার্ষিক প্রবৃদ্ধিও বেশ ভালো।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে