Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০ , ৭ আশ্বিন ১৪২৭

গড় রেটিং: 2.9/5 (29 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৪-২৬-২০২০

ইতালিতে করোনায় আরো এক বাংলাদেশির মৃত্যু

জাকির হোসেন সুমন


ইতালিতে করোনায় আরো এক বাংলাদেশির মৃত্যু

রোম, ২৭ এপ্রিল - ইতালির ভেনিসে মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরো এক বাংলাদেশির মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এ নিয়ে ৯ জন বাংলাদেশি প্রাণ হারালেন করোনাভাইরাসে। 

জানা গেছে, ইতালির ভেনিসের মেসত্রেতে বসবাসরত নোয়াখালী জেলার বৃহত্তর নোয়াখালী সোশ্যাল ফেডারেশন ভেনিসের উপদেষ্টা মো. শাহজাহান (৪৬) ডায়াবেটিস, হার্ডের সমস্যা, ফুসফুসে সমস্যা ও এজমা নিয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ  ভুগছিলেন।

নিহতের বড় মেয়ের স্বামী মো. ইলিয়াস জানান, নিয়মিত স্বাস্থ্য  পরীক্ষার জন্য গত ২ মার্চ মো. শাহজাহান ভেনিসের মেসত্রে আঞ্জেল্লো হাসপাতালে যান সেখানে তার সমস্ত পরীক্ষা করানো হয়। সে সময় করোনাভাইরাস তার দেহে নেই বলে ডাক্তার নিহতের পরিবারকে নিশ্চিত করেন।

অন্যান্য অসুখে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে ডাক্তার তাকে হাসপাতালে ভর্তি করে নেন। এরপর ১ সপ্তাহ পরে তার শারীরিক সুস্থতা বৃদ্ধি পেলে ভেনিসের অন্য একটি হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মো. শাহজাহান করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বলে ধরা পরে।

সেই সময়ে সার্বক্ষণিক  হাসপাতালে খোঁজ-খবর নিতে যাওয়া নিহতের দুই মেয়ে ও স্ত্রীকে কোয়ারান্টিনে রাখা হয়। তবে বিষয়টি পারিবারিকভাবে গোপন রাখা হয়। গত ২৪ এপ্রিল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত মো. শাহজাহান মৃত্যুবরণ করেন।

প্রথমদিকে বিষয়টি গোপন রাখা হলেও স্থানীয় গণমাধ্যমে তার মৃত্যুর খবরটি প্রকাশিত হলে বাংলাদেশি কমিউনিটির অনেকেই জানতে পারেন করোনাভাইরাসে তার মৃত্যু হয়েছে। আজ রবিবার টেলিফোনে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মৃত শাহজাহানের বড় মেয়ের স্বামী মো. ইলিয়াস। জানা গেছে মৃত শাহজালালের মৃতদেহ হাসপাতাল মর্গে রয়েছে, আনুষ্ঠানিকতা শেষে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

এদিকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা ধীরে ধীরে কমতে শুরু করেছে ইতালিতে। সরকারি হিসেব অনুযায়ী ইতালিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ লাখ ৯৭ হাজার ৬৭৫ জন এবং মোট মৃত্যুবরণ করেছেন ২৬ হাজার ৬৪৪ জন।  মোট সুস্থ হয়েছেন ৬৪ হাজার ৯২৮ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় (রবিবার) মৃত্যুবরণ করেছে ২৬০ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৮০৮ জন করোনা আক্রান্ত রোগী।  

করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী ও মৃত্যুর সংখ্যা কমতে শুরু করায় জনমনে কিছুটা স্বস্তি ফিরে এসেছে। ইতিমধ্যে বেশ কিছু ব্যবসা শিল্প প্রতিষ্ঠান খুলে দে‌ওয়া হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে আগামী ৩ মের পর লকডাউন কিছুটা শিথিল করে আরো কিছু ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হবে।

এন এ/ ২৭ এপ্রিল

ইতালি

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে