Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ৫ জুন, ২০২০ , ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৪-০৭-২০২০

ঢাকার প্রবেশপথে তারকাঁটার ব্যারিকেড, কঠোর নজরদারি

ঢাকার প্রবেশপথে তারকাঁটার ব্যারিকেড, কঠোর নজরদারি

ঢাকা, ৮ এপ্রিল- করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে ঢাকার প্রবেশপথগুলোতে তারকাঁটা দিয়ে ব্যারিকেড দিয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। পাশাপাশি রাজধানী ঢাকার ভেতরে ও বিভিন্ন জায়গায় ব্যারিকেড দিয়ে চেকপোস্ট তৈরি করা হয়েছে। এসব স্থানে জরুরি পণ্য পরিবহন ছাড়া অন্যান্য পরিবহন আটকে দেওয়া হচ্ছে। গতকাল সোমবার (৬ এপ্রিল) ও আজ মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল) ঢাকার বেশ কয়েকটি প্রবেশপথ ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে জরুরি সেবা ছাড়া রাজধানীতে সাধারণ মানুষের প্রবেশ ও ত্যাগ বন্ধে কঠোর হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী।

এর আগে গত শুক্র ও শনিবার কিছু কিছু কারখানা চালু হওয়ার খবরে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে তৈরি পোশাক শ্রমিকসহ হাজার হাজার মানুষের ঢাকামুখী ঢল নামে। পরে সমালোচনার মুখে ১১ এপ্রিল সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটি পর্যন্ত গার্মেন্টস কারখানাগুলো বন্ধ রাখতে মালিকদের প্রতি আহ্বান  জানায় পোশাক খাতের দুই সংগঠন বিজিএমইএ ও বিকেএমইএ। এরপরেই আবার ঢাকায় ফেরা শ্রমিকরা গ্রামের বাড়ির উদ্দেশে ঢাকা ছাড়তে শুরু করেন।

এ অবস্থায় করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে ঢাকা থেকে যাতে কোনও লোক বাইরে যেতে না পারে এবং বাইরে থেকে ঢাকায় প্রবেশ করতে না পারে, সেজন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে পুলিশের সব ইউনিটকে নির্দেশনা দেন বাংলাদেশ পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী।

এরই পরিপ্রেক্ষিতে গত রোববার (৫ এপ্রিল) থেকে ঢাকার প্রবেশ পথ বাবুবাজার ও ঢাকা-মাওয়া রোডের পোস্তগোলা ব্রিজে ব্যারিকেড দিয়ে বন্ধ করে দেওয়া হয়। এছাড়া গাবতলী, কাঁচপুর ব্রিজ ও চট্টগ্রাম রোডের বিভিন্ন স্থানে তারকাঁটা দিয়ে ব্যারিকেড তৈরি করে দেওয়া হয়েছে। এসব স্থানে কঠোর নজরদারি রাখা হচ্ছে। কোনও পরিবহন যাতে ঢাকা ছাড়তে না পারে সে বিষয়েও লক্ষ রাখা হচ্ছে। প্রতিটি এলাকায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর টহল জোরদার করা হয়েছে। জরুরি সেবা, অ্যাম্বুলেন্স, গণমাধ্যম ও খাদ্যবাহী যান চলাচলে বাধা দেওয়া হচ্ছে না।

দায়িত্বপ্রাপ্ত একাধিক পুলিশ সদস্য জানান, করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সবাইকে ঘরে থাকার জন্য সরকারের পক্ষ থেকে আহ্বান জানানো হয়েছে। আর একারণেই ঢাকা থেকেও কাউকে বের হতে দেওয়া হচ্ছে না এবং ঢাকার বাইরে থেকে কাউকে ঢাকায় প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না।

সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন 

আর/০৮:১৪/৮ এপ্রিল

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে