Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ২৬ মে, ২০২০ , ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৪-০২-২০২০

রফতানি বাধা দূর করতে বাণিজ্য সচিবের হস্তক্ষেপ চায় বাপা

রফতানি বাধা দূর করতে বাণিজ্য সচিবের হস্তক্ষেপ চায় বাপা

ঢাকা, ০৩ এপ্রিল - প্রসেসড ফুড বা প্রক্রিয়াজাত খাদ্য রফতানিতে প্রতিবন্ধকতা দূর করতে বাণিজ্য সচিবের সরাসরি হস্তক্ষেপ দাবি করেছে বাংলাদেশ এগ্রো প্রসেসরস অ্যাসোসিয়েশন (বাপা)। বৃহস্পতিবার বাপার সভাপতি এ. এফ. এম. ফখরুল ইসলাম মুন্সি এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য বাণিজ্য সচিবের কাছে একটি চিঠি পাঠিয়েছেন।

চিঠিতে তিনি বলেন, বাপা বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধিত সংগঠন। বর্তমানে এ সংগঠনের প্রায় ৩০০ সদস্য কৃষিভিত্তিক খাদ্য উৎপাদন, বিপণন ও রফতানি কার্যক্রমের সাথে জড়িত। আমাদের সদস্যরা দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিশ্বের প্রায় ১৪০টি দেশে প্রক্রিয়াজাত কৃষি খাদ্যপণ্য রফতানি করে আসছে। বিগত অর্থবছরে এ খাতে রফতানি আয় প্রায় ৫০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

এতে বলা হয়, গত বছরের তুলনায় ২০২০ সালের জানুয়ারি থেকে এই খাতে রফতানি অর্ডার ছিল ঈর্ষণীয়। কিন্তু আমাদের দেশে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে রফতানি কার্যক্রম হঠাৎ ব্যাহত হচ্ছে। এখন এ দুর্যোগকালীন সময়ে আমরা প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার দিকনির্দেশনা মেনে খাদ্য উৎপাদন কাজ চালিয়ে যেতে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখি, যাতে করে দেশে কোনো খাদ্য সংকট না হয়। পাশাপাশি রফতানি কার্যক্রম ব্যাহত না হয় এবং কৃষক যেন তার উৎপাদিত পণ্যের ন্যায্যমূল্য পায়।

চিঠিতে অভিযোগ করা হয়, তবে গত কিছুদিন যাবত আমরা লক্ষ করছি, আপনার মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ চট্টগ্রাম প্ল্যান্ট কোয়ারেন্টাইন উইং কর্তৃক আমাদের সদস্যদের ফাইটো সনদ প্রদানে গড়িমসি করছে। তারা রফতানি পণ্যের অনুকুলে বি.এস.টি. আই. কর্তৃক ইস্যুকৃত হেলথ সার্টিফিকেট দাবি করছে।

বাণিজ্য সচিবের উদ্দেশ্যে লেখা চিঠিতে আরও বলা হয়, আপনি অবগত আছেন, বাংলাদেশে অদ্যবধি হেলথ সার্টিফিকেট ইস্যু করার কোনো অথরিটি না থাকায় রফতানিকারকরা ফাইটো সনদের মাধ্যমে ওই কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। ঢাকা থেকে বিগত ছুটির দিনগুলোতে কোনো প্রকার ফাইটো সনদ ইস্যু না হওয়া, রফতানি উন্নয়ন ব্যুরাের কার্যক্রম বন্ধ থাকায় যথাসময়ে জি.এস.পি. সনদ ইস্যু না হওয়ায় রফতানি কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। এছাড়াও কিছু কিছু দেশ কন্টেইনার, পণ্য ও উৎপাদন কাজে নিয়ােজিত শ্রমিকদের করােনা ফ্রি সনদ চাচ্ছে।

চিঠিতে আরও বলা হয়, বর্তমান বিশ্ব পরিস্থিতি বিবেচনা করে হেলথ সার্টিফিকেট, করোনা ফ্রি সনদ ইস্যু করার জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষ সৃষ্টি করা, জি.এস.পি. ইস্যু এবং বর্তমান কার্যক্রম চালিয়ে যেতে ঢাকা বা চট্টগ্রাম থেকে ফাইটো সনদ ইস্যুর জটিলতা লাঘবে আপনার সরাসরি হস্তক্ষেপ কামনা করছি। উক্ত বিষয়ে আপনি তড়িত সিদ্ধান্ত না নিলে রফতানি কার্যক্রম ব্যাহত হবে, যার ফলে রফতানিকারক তথা দেশ ক্ষতিগ্রস্থ হবে।

সূত্র : জাগো নিউজ
এন এইচ, ০৩ এপ্রিল

ব্যবসা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে