Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বৃহস্পতিবার, ৪ জুন, ২০২০ , ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৩-৩০-২০২০

ব্যতিক্রমী কাউন্সিলর আজাদ, খাবার পাঠাচ্ছেন সাড়ে তিন হাজার পরিবারে

ব্যতিক্রমী কাউন্সিলর আজাদ, খাবার পাঠাচ্ছেন সাড়ে তিন হাজার পরিবারে

সিলেট, ৩০ মার্চ - করোনাভাইরাস আতঙ্কে যখন মানুষ গৃহবন্দি, তখন অসহায় ও নিম্নবিত্ত পরিবারগুলোতে দেখা দিয়েছে খাদ্য সংকটের। সিটি করপোরেশনেরও নেই দূর্যোগকালীন ফান্ড। এমতাবস্থায় ‘খাদ্য ফান্ড’ গঠন করে নগরীর বিত্তশালীদের কাছে সাহায্যের আহ্বান জানিয়েছেন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

সরকারি বরাদ্দ আর বিত্তবানদের দিকে যখন সবাই চেয়ে আছেন তখন অসহায়দের পাশে দাঁড়িয়েছেন সিটি করপোরেশনের ২০ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদ। মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক ও ক্রীড়া সংগঠক আজাদ তার ওয়ার্ডের মহল্লায় মহল্লায় গিয়ে তালিকা করেছেন অসহায় ও নিম্নবিত্তদের।

খাদ্য সংকটে পড়া এরকম সাড়ে তিন হাজার পরিবারের জন্য খাদ্য সহায়তা নিয়ে মাঠে নেমেছেন তিনি। সবার ঘরে ঘরে পৌঁছে দিচ্ছেন খাদ্য সামগ্রী। কাউন্সিলর আজাদের এই উদ্যোগ প্রশংসিত হয়েছে নগরবাসীর কাছে। অন্য কাউন্সিলর ও জনপ্রতিনিধিদের জন্য এটা অনুকরণীয় হতে পারে বলেও মন্তব্য করছেন অনেকে।

সোমবার দুপুরে সৈয়দ হাতিম আলী স্কুলে খাদ্য সহায়তা কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদ। কয়েকজন অসহায়ের হাতে খাদ্য সামগ্রী তুলে দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে এই কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। এরপর তিনি ঘরে ঘরে গিয়ে পৌঁছে দেওয়া শুরু করেন খাদ্য সহায়তা।

কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদের দেওয়া খাদ্য ও পরিচ্ছন্নতা সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে চাল, ডাল, তেল, পিয়াজ, লবন, আলু ও সাবান।

এ ব্যাপারে কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদ বলেন, ‘গরীব-দু:খী মানুষই ভোট দিয়ে আমাদেরকে জনপ্রতিনিধি বানান। দু:সময়ে তাদের পাশে দাঁড়াতে না পারলে নিজেকে স্বার্থপর ও অমানবিক মনে হয়। করোনাভাইরাসের কারণে মানুষ গৃহবন্দি। কাজ না থাকায় শ্রমজীবীরা ঘরে পরিবার পরিজন নিয়ে উপোস করছে। এমতাবস্থায় আমার ওয়ার্ডের সকল অসহায় পরিবারে খাদ্য সহায়তা পাঠানোর উদ্যোগ নিয়েছি। প্রয়োজনবোধে এই সহায়তা আরও বাড়ানো হবে।’

খাদ্য সামগ্রী বিতরণ উদ্বোধনকালে উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মো. আবদুল্লাহ সিদ্দিকী, টিলাগড় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের মোতাওয়াল্লী অধ্যাপক সৈয়দ মকসুদ আলী, বিশিষ্ট শিল্পপতি ও সমাজসেবী মো. আতাউল্লাহ সাকের, সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সাবেক পরিচালক মো. আমিরুজ্জামান চৌধুরী দুলু, এসসিএস’র চেয়ারম্যান মো. মুহিব উস শাকুর মনি, সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শাহ দিদার আলম চৌধুরী নবেল, ২০নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের  ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মুহিবুর রহমান মুহিব, সহ সভাপতি আবদুল মুক্তাদির জুবের, সিলেট বিভাগীয় ক্রিকেট দলের সাবেক ম্যানেজার আলী ওয়াসিকুজ্জামান চৌধুরী অনি, হোটেল মেট্রো ইন্টারন্যাশনালের ম্যানেজিং ডিরেক্টর মিজানুর রহমান পায়েল, ২০নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা আবদুল বাছিত চৌধুরী বুলন, সহ সভাপতি বিশ্বজিত দেব রায় বিষু, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক বদরুল হোসেন লিটন, সৈয়দ হাতিম আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. এলাইছ মিয়া, জেলা যুবলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক হিরক রঞ্জন দে পাপলু, সিলেট মহানগর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহ সভাপতি এনায়েতুল বারী মুর্শেদ, মনিপুরীপাড়া মন্দির কমিটির সভাপতি সুরজিৎ সিংহ, সহ সভাপতি চন্দ্র শেখর বদর, সাধারণ সম্পাদক প্রদিপ সিংহ, ২০নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা শ্রী দেব দুলাল পাল, মহানগর যুবলীগ নেতা মোহা. মিনার আহমদ, সৈয়দ হাতিম আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য মো. খালেদুর রহমান, শোয়েব আহমদ, মুজিবুর রহমান প্রমুখ।

সূত্র : সিলেটভিউ২৪
এন এইচ, ৩০ মার্চ

সিলেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে